ধর্ষককে খালাস দেওয়ার ঘটনায় উত্তাল আয়ারল্যান্ড

ধর্ষককে খালাস দেওয়ার ঘটনায় উত্তাল আয়ারল্যান্ড, ছবি: সংগৃহীত

আয়ারল্যান্ডের ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরীকে রাস্তায় ধর্ষণ করেও আদালতের বিচারে খালাস পেয়েছে ধর্ষক। আর এতেই ক্ষেপেছে আয়ারল্যান্ডের সাধারণ জনতা। সাধারণ মানুষের উত্তেজনায় ঘি ঢেলেছে ধর্ষকের আইনজীবীর একটি মন্তব্য। সব মিলিয়ে আয়ারল্যান্ডের ডাবলিন শহর এখন উত্তাল।

২৭ বছর বয়সী ধর্ষকের আইনজীবী ধর্ষিতার অন্তর্বাস নিয়ে করা বেফাঁস মন্তব্য এই আন্দোলনের পেছনে প্রভাবক হিসেবে কাজ করছে।

আদালতে এলিজাবেথ ওকনেল নামের ওই আইনজীবী ধর্ষণের জন্য ধর্ষিতার পরিহিত আকর্ষণীয় অন্তর্বাসের কথা বলেন।

নিজের ক্লায়েন্টকে সমর্থন করে তিনি বলেন, ‘অভিযুক্ত মেয়েটির প্রতি আকৃষ্ট হয়েছিল সত্য। কিন্তু মেয়েটির গায়ে কেমন পোশাক ছিল সেটাওতো দেখতে হবে! নকশা কাটা ও আকর্ষণীয় অন্তর্বাস ছিল তার পরনে, এতে যে কেউ আকৃষ্ট হবে।’

আদালতে আইনজীবীর এমন অশালীন মন্তব্যে ক্ষোভে ফেঁটে পড়ে আয়ারল্যান্ডের সাধারণ মানুষ।

এর প্রতিবাদে দেশটির নারীরা টুইট বার্তায় নিজেদের অন্তর্বাসের ছবি পোস্ট করে প্রতিবাদ জানাতে থাকে। সেই সঙ্গে ‘দিস ইজ নট কনসেন্ট’বা ‘এটাই সম্মতি নয়’#হ্যাশট্যাগে তাদের ছবিগুলো টুইটারে পোস্ট করে নিজেদের ক্ষোভ প্রকাশ করছে।

এছাড়া দেশটির বিভিন্ন স্থানে শত শত নারী জড়ো হয়েও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। এমনকি তারা নিজেদের অন্তর্বাসের ওপর বিভিন্ন স্লোগান লিখে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন।

আন্তর্জাতিক এর আরও খবর

//election count down