কমিটিতে থাকবেন না অভিমানী প্রসেনজিৎ, খুশি রাজ!



বিনোদন ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও রাজ চক্রবর্তী

প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও রাজ চক্রবর্তী

  • Font increase
  • Font Decrease

চলতি বছর কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সুবর্ণ জয়ন্তী। ফলে স্বাভাবিকভাবেই উৎসবের প্রস্তুতিও শুরু হয়ে গিয়েছে জোর কদমে। কিন্তু তার আগেই যেন ছন্দপতন হচ্ছে চলচ্চিত্র উৎসবের। গত বছর এই উৎসবের চেয়ারম্যান পদে ছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। এবার ওই পদে রাজ চক্রবর্তীর নাম সামনে এসেছে।

প্রসেনজিতের বদলে কেন রাজ? এখন এমনটাই প্রশ্ন টলিউডে।

জানা গেছে, প্রসেনজিৎ নাকি ব্যক্তিগত কাজের চাপে উৎসবের একাধিক মিটিংয়ে থাকতে পারেননি। এ কারণেই উৎসব কমিটি তার পরিবর্তে রাজকে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/14/1565778452869.jpg

এই প্রসঙ্গে যোগাযোগ করা হলে প্রসেনজিৎ বলেন, ‘আমাকে এ ব্যাপারে কিছুই জানানো হয়নি।’

তবে চলচ্চিত্র উৎসবের বিশেষ উপদেষ্টা কমিটিতে মাধবী মুখোপাধ্যায় বলেন, সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়, গৌতম ঘোষ, সন্দীপ রায়, অপর্ণা সেন, রঞ্জিত মল্লিক, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়, সৃজিত মুখোপাধ্যায়, অরিন্দম শীলের সঙ্গে রয়েছে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের নামও। উৎসব সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য এই বিশেষ উপদেষ্টা কমিটিই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে। তবে প্রসেনজিৎ নাকি চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন, নিজস্ব কাজের জন্য সে এই বছর কোনোভাবেই উপদেষ্টা কমিটিতে থাকতে পারছেন না। সত্যিই কি ওইসময় শহরের বাইরে থাকবেন? নাকি চেয়ারম্যান পদ চলে যাওয়ায় অভিমান?

অভিমানী প্রসেনজিতের জবাব, ‘যদি উৎসব কর্তৃপক্ষ মনে করেন আমি সময়ের অভাবে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব সামলাতে অপারগ, তাহলে কীভাবে আমি উপদেষ্টা কমিটির হয়ে কাজ করতে পারব! আমার ব্যস্ততা তো কিছু কম বা বেশি হচ্ছে না। ছবি নিয়ে কমিটমেন্ট যেমন থাকবে, তেমনই ছেলেকে (মিশুক) নিয়ে বিদেশে যাওয়াও থাকবে। তাই আমি চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছি এ বছর আমার পক্ষে থাকা সম্ভব নয়। তবে কলকাতা ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের প্রতি আমার সমর্থন সবসময় থাকবে।’

অন্যদিকে রাজ চক্রবর্তী স্বভাবতই খুশি। তিনি জানান, ‘এটি আমার কাছে যথেষ্ট সম্মানের বিষয়। প্রত্যেকবার কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে ছবি দেখি। আর এবার তো গুরু দায়িত্ব! কী করতে হবে, কীভাবে করতে হবে সেটি বড়দের থেকে ধীরে ধীরে শিখব। সবাইকে নিয়ে উৎসব যাতে সফল হয় সেই চেষ্টাই করব। আশা করি আমাকে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আমি তা পালন করতে পারব।’
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/14/1565778469900.jpg

কিন্তু এই নতুন পদ পাওয়ায় রাজের সঙ্গে প্রসেনজিতের সম্পর্কে কি চিড় ধরাবে? এমন প্রশ্নের জবাবে রাজ বলেন, ‘একদম বাজে কথা। কারা এসব রটাচ্ছে আমি জানি না। আমাদের সম্পর্ক যথেষ্ট ভালো। বুম্বাদা ছাড়াও ইন্ডাস্ট্রির অনকেই উৎসবের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছেন। একটি বিশাল টিম কাজ করে। সেখানে আমি একটা পদ পেয়েছি মাত্র। কিন্তু আমি জানি আমাকে সবাইকে নিয়েই এগতে হবে।’

এবছর উৎসবের মুখ্য উপদেষ্টার পদে রয়েছেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস ও কো চেয়ারম্যান মন্ত্রী তথা গায়ক ইন্দ্রনীল সেন। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে সম্ভবত পরিস্থিতি বুঝেই মুখ খোলেনি তারা। শাসক দল পন্থী রাজ, অপরদিকে প্রকাশ্যে কোনো দল সমর্থন করে না প্রসেনজিৎ। ফলে এখন দেখার কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সুবর্ণ জয়ন্তীর আগে পানি কতদূর গড়ায়!

করোনা আক্রান্ত সন্ধ্যাকে দেখতে হাসপাতালে মমতা



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
সন্ধ্যা মুখার্জী ও মমতা ব্যানার্জী

সন্ধ্যা মুখার্জী ও মমতা ব্যানার্জী

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন সংগীতশল্পী সন্ধ্যা মুখার্জী। তার হৃদযন্ত্রের অবস্থাও ভালো না। ফুসফুসেও ধরা পড়েছে সংক্রমণ। এছাড়াও রয়েছে বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যা। সবকিছু মিলিয়ে শুরুতে তাকে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও পরে সেখান থেকে অ্যাপোলো হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা গেছে, বুধবার (২৬ জানুয়ারি) রাতে বাথরুমে পড়ে যান সন্ধ্যা মুখার্জী। বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল থেকে শ্বাসকষ্ট শুরু হয় তার। পরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় এসএসকেএম হাসপাতালে। উডবার্ন ওয়ার্ডে ১০৩ নাম্বার বেডে তাকে রাখা হয়। এমনকি তার চিকিৎসার জন্য ৭ সদস্যের বিশেষজ্ঞ টিম তৈরি করা হয়।

এদিনই বিকেলে সন্ধ্যা মুখার্জীর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে এসএসকেএম হাসাপাতালে পৌঁছান মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেন। পরে হাসপাতালের বাইরে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মমতা ব্যানার্জী জানান, কোভিড পজিটিভ সন্ধ্যা মুখার্জী। বুকে আঘাত পেয়েছেন তিনি। হৃদযন্ত্র বিকল হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে তার। আর শারীরিক অবস্থা বিচার-বিবেচনা করেই তাকে অ্যাপোলো হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

সম্প্রতি পদ্মশ্রী প্রত্য়াখ্যান করেছেন সন্ধ্যা মুখার্জী। যা নিয়ে চারদিকে আলোচনা-সমালোচনার বন্যা বইতে শুরু করে। ক্যারিয়ারের এত বছর পর সন্ধ্যা মুখার্জীর মতো একজন কিংবদন্তি শিল্পীকে পদ্মশ্রী দেওয়ার সিদ্ধান্তে রীতমতো কটাক্ষের মুখে পড়ে কেন্দ্রীয় সরকার।

এখানেই শেষ নয়, ৯০ বছর বয়সী এই শিল্পী নিজেই জানিয়েছেন, খুবই অপমানজনকভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে ফোন করে তাকে পদ্মশ্রী দেওয়ার কথা জানানো হয়েছিল। অপমানিত হয়েই পদ্মশ্রী প্রত্য়াখ্যান করেন তিনি।

;

সামিতাকে আন্টি বললেন তেজস্বী, চটলেন বিপাশা



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
তেজস্বী প্রকাশ, বিপাশা বসু ও সামিতা শেঠি

তেজস্বী প্রকাশ, বিপাশা বসু ও সামিতা শেঠি

  • Font increase
  • Font Decrease

একজন বলিউড অভিনেত্রী সামিতা শেঠি অপরজন টেলিভিশনের জনপ্রিয় মুখ তেজস্বী। দু’জনই এখন ‘বিগ বস’র ১৫তম মৌসুমের প্রতিযোগী। শোয়ে ফাইনালিস্ট হিসেবেও জায়গা করে নিয়েছেন এই দুই তারকা।

এদিকে, ‘বিগ বস’র শুরুর দিকে সামিতা-তেজস্বীর মধ্যে ভালো সম্পর্ক থাকলেও ধীরে ধীরে সেটি সাপে নেউলে সম্পর্কে পরিণত হতে থাকে।

এমনকি কথিত প্রেমিক ‘বিগ বস’র আরেক প্রতিযোগী করণ কুন্দ্রার সঙ্গে সামিতা কিছু নিয়ে আলোচনা করলে তাও সহ্য করতে পারেন না তেজস্বী। যার ফল হিসেবে একবার তো বলিউডের এই অভিনেত্রীকে ‘আন্টি’ বলেই সম্বোধন করে ফেলেছেন ছোটপর্দার এই তারকা।

এদিকে, সামিতাকে আন্টি বলায় তেজস্বীর ওপর চটেছেন আরেক বলিউড অভিনেত্রী বিপাশা বসু। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে বিষয়টি প্রসঙ্গে বিপাশা লিখেছেন, “কাউকে লজ্জা দিয়ে তারপর ক্ষমা চাওয়া এটি সত্যিই খুব দুঃখজনক। আর এ ধরনের মানুষরাই যদি বিজয়ী বা যে কারও কাছে রোল মডেল হয় তাহলে সেটি খুব হতাশাজনক।”

যোগ করে বিপাশা বসু আরও লিখেছেন, “আপনি যদি নিরাপত্তাহীন বোধ করেন, তাহলে অন্য নারীকে (সামিতা শেঠি) নিচে টেনে না নিয়ে আপনার সঙ্গীকে (করণ কুন্দ্রা) প্রশ্ন করুন কারণ তিনিই আপনাকে নিরাপত্তাহীন বোধ করাচ্ছেন।”

এই মুহূর্তে ‘বিগ বস’র ঘরে রয়েছেন করণ কুন্দ্রা, তেজস্বী প্রকাশ, সামিতা শেঠি, নিশান্ত ভাট, রেশমি দেশাই ও প্রতীক শেহপাল। শেষমেষ কে এই শোয়ের ১৫তম মৌসুমের ট্রফি ঘরে তোলেন এখন সেটিই দেখার অপেক্ষায় রয়েছে দর্শক।

;

নতুন ধারাবাহিক ‘আকাশ মেঘে ঢাকা’



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা ২৪.কম
ধারাবাহিক নাটক ‘আকাশ মেঘে ঢাকা’

ধারাবাহিক নাটক ‘আকাশ মেঘে ঢাকা’

  • Font increase
  • Font Decrease

১ ফেব্রুয়ারি থেকে নাগরিক টিভিতে শুরু হচ্ছে ধারাবাহিক নাটক ‘আকাশ মেঘে ঢাকা’। এর রচয়িতা মাহ্বুব হাসান জ্যোতি। পরিচালনায় আছেন রূপক বিন রউফ।

নাটকটি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “এই ধারাবাহিকে এক ঝাঁক নতুন মুখকে দর্শক দেখতে পাবেন। বলতে পারেন এই নাটকে মুখের চাইতে গল্পটাই মুখ্য। আমি নাগরিক টিভির কাছে কৃতজ্ঞ সুযোগটি করে দেবার জন্য। নওগাঁ, পূবাইল এবং ঢাকায় এই ধারাবাহিকের কাজ হচ্ছে। ”

নাটকিটির কাহিনী সম্পর্কে তিনি জানান, ভালোবাসা ও পরিচর্যার বিকল্প আশ্রয়ে বড় হচ্ছিল একদল তরুণ-তরুণী, যেখানে আঠারো হয়ে গেলে কারোরই আর থাকার সুযোগ নেই। তাদের এগিয়ে যাওয়া, প্রেম, ঈর্ষা, টিকে থাকার চেষ্টা, আছে ভাওতাভাজী, এসব নিয়েই নাটকটির গল্প।

ধারাবাহিকটির থিম সং লিখেছেন সোমেশ্বর অলি, সুর করেছেন তাহসিন আহমেদ। এতে কণ্ঠ দিয়েছেন তাহসিন আহমেদ ও সিঁথি সাহা।

এতে অভিনয় করেছেন আজিজুল হাকিম, প্রাণ রায়, মাসুম আজিজ, হোসাইন নিরব, সুস্মিতা সিনহা, তৃষ্ণা, সাথী মাহমুদা, লিটন খন্দকার, সাহেলা আক্তার, সঞ্জীব আহমেদ, হারুন রশিদসহ অনেকে।

জানা গেছে, ধারাবাহিকটি শনি থেকে বৃহস্পতিবার প্রতিদিন রাত ১০টায় প্রচার হবে।

;

বঙ্গদূত হয়ে লাস ভেগাসে শাকিব খান



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা ২৪.কম
শাকিব খান

শাকিব খান

  • Font increase
  • Font Decrease

বর্হিঃবিশ্বে বাংলা ভাষাভাষিদের সবচেয়ে বড় উৎসব বঙ্গ সম্মেলনে বাংলাদেশ ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়েছেন সুপার স্টার শাকিব খান। চলতি বছর ১ থেকে ৩ জুলাই (২০২২ সাল) যুক্তরাষ্ট্রের আলো ঝলমলে জৌলুস নগরী লাস ভেগাসে এ আসর বসছে। উৎসবটি নর্থ আমেরিকা বেঙ্গল কনফারেন্স-এনএবিসি নামেও পরিচিত।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাঙালিরা ৫২ বছর আগে আমেরিকায় প্রতিষ্ঠা করেন কালচারাল এসোসিয়েশন অব বেঙ্গল-সিএবি বা বঙ্গ সংস্কৃতি সংঘ। আর এই সংগঠনের অধীনে ৪২ বছর ধরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বর্হি:বিশ্বের সবচেয়ে বৃহৎ এই বাংলা ভাষাভাষি সম্মেলন। বঙ্গ সম্মেলনের ইতিহাসে শাকিব খান প্রথম ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডর হলেন।

আজ বুধবার (২৬ জানুয়ারি) যুক্তরাষ্ট্রের ম্যানহাটানে ‘মাছের ঝোল’ নামে একটি রেস্টুরেন্টে শাকিব খানের সাথে একটি সম্মতি সাক্ষর হয়। এতে আয়োজক সংগঠন সিএবি'র পক্ষে সাক্ষর করেন বঙ্গ সম্মেলন ২০২২ এর আহ্বায়ক মিলন আওন। অনুষ্ঠানে সম্মেলনের বাংলাদেশ আউট রিচের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন হাসানুজ্জামান সাকী।


শাকিব খান বলেন, এরআগে কয়েকবার বঙ্গ সম্মেলনে আসার কথা থাকলেও সময় সুযোগ না হওয়ায় আসা হয়নি। এবার লাস ভেগাসের বঙ্গ সম্মেলনে আমাকে বাংলাদেশ আউট রিচ ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডর করায় আমি আনন্দিত। আমি আশা করি, জুলাই মাসে আমেরিকায় বসবাসকারী বাংলাদেশিরা বঙ্গ সম্মেলনে অংশ নেবেন।

মিলন আওন বলেন, প্রতি বছর বঙ্গ সম্মেলনে ৮ থেকে ১০ হাজার মানুষের ভীড় হয়। এবার বলিউড, ঢালিউড ও টলিউডের এক ঝাঁক তারকা উপস্থিত থাকবেন। বাংলা সংগীতের সবকটি শাখা নিয়ে আলাদা জমকালো আয়োজন থাকবে। সাহিত্য আসর, ফ্যাশন শো, নাটক, রিয়েলিটি শো-সহ অনুষ্ঠিত হবে চলচ্চিত্র উৎসব। বাংলাদেশ ও ভারতের প্রায় একশ শিল্পীকে এবারের উৎসবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বলে জানান মিলন আওন।

প্রসঙ্গত, এবছর লাস ভেগাসের এই আয়োজনে কয়েকটি পর্বে বাংলাদেশকে বিশেষভাবে উপস্থাপন করা হবে। প্রতিবছর উত্তর আমেরিকার বিভিন্ন শহরে এই আসর অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।

;