‘তিস্তায় পানি সঙ্কট দেশের সবচেয়ে বড় সমস্যা’



সেন্ট্রাল ডেস্ক ২

  • Font increase
  • Font Decrease
তিস্তার পানি সমস্যা বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্যা বলে জানিয়েছেন পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। তিনি বলেছেন, শুষ্ক মৌসুমে তিস্তায় পানি থাকে না। এই পানি সংকট থেকে উদ্ধার পেতে এ অঞ্চলের সব দেশের সহযোগিতা প্রয়োজন। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিআইআইএসএস) আয়োজিত ‘বাংলাদেশ ডেলটা প্ল্যান-২১০০’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে দেওয়া প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশের ভবিষৎ নির্ভর করছে পানি ব্যবস্থাপনার ওপর। কিন্তু এটি ইউরোপ-আমেরিকার প্ল্যানের কৌশলে প্রণয়ন করলে হবে না। এটি এখানকার পরিস্থিতি মেনেই করতে হবে। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করতে হলে পানি সংকট কাটানো জরুরি উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, কেননা জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এই সঙ্কট আরও ভয়াবহ হতে পারে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ডেলটা প্ল্যান জাতির অস্তিত্বের সঙ্গে জড়িত। এ প্ল্যান নিয়ে আমাদের সচেতনতা আরও বাড়ানো উচিত। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ডেলটা বাংলাদেশ, বিশে^র কারও সঙ্গে এ ডেল্টার তুলনা চলে না। আনিসুল ইসলাম বলেন, এখানে বর্ষা মৌসুমে দেশের ব্যাপক অঞ্চল প্লাবিত হয়। বন্যায় আমাদের প্রতি বছর ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়। আবার গ্রীষ্মে দেখা দেয় খরা। এই উভয়মুখী সংকটে বাংলাদেশের মানুষ অপরিমেয় ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এই প্ল্যান করার যাবতীয় সামর্থ এখন বাংলাদেশের আছে। গোলটেবিল বৈঠকে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অর্থপ্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান বলেন, ডেল্টা প্ল্যান বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ পরিকল্পনা। এটি বাস্তবায়নের মাধ্যমে বাংলাদেশ এই সমস্যা বহুলাংশে কাটিয়ে উঠতে পারে। শতবর্ষব্যাপী এই পরিকল্পনা ষাট বছর পরে হলেও শুরু হয়েছে। সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় এটাকে যথেষ্ট গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সাধারণের বোঝার স্বার্থে পরিকল্পনাটি বাংলায় দেওয়ার প্রস্তাব করেন আব্দুল মান্নান। গোলটেবিল আলোচনায় আরও বক্তব্য দেন- বিআইআইএসএসের চেয়ারম্যান রাষ্ট্রদূত মুন্সী ফয়েজ আহমদ এবং মহাপরিচালক মেজর জেনারেল এ কে এম আবদুর রহমান। বাংলাদেশ পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য ড. শামসুল আলম প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।