বাগমারায় স্কুল ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির দায়ে শিক্ষকের জেল



স্টাফ করেসপন্ডেট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে স্কুল মাঠে বিক্ষোভ, ছবি: বার্তা২৪

শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে স্কুল মাঠে বিক্ষোভ, ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির দায়ে বিপুল কুমার প্রামাণিক (৪৫) নামের এক শিক্ষককে তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সাজাপ্রাপ্ত বিপুল কুমার উপজেলার বাসুপাড়া ইউনিয়নের হলুদঘর গ্রামের হিমেন্দ্রনাথের ছেলে।

শনিবার (২৯ জুন) দুপুর আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও বাগমারা থানা পুলিশ সূত্র জানায়, শনিবার উপজেলার বাসুপাড়া ইউনিয়নের মোহম্মাদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ক্লাস চলাকালীন সময়ে শিক্ষক বিপুল কুমার প্রামানিক পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীর শ্লীলতাহানি করেন। পরে ওই ছাত্রী বিষয়টি তার পরিবারের সদস্যদেরকে জানায়।

কিছু সময়ের মধ্যেই ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হয়ে যায়। ফলে এলাকার লোকজন স্কুলে জড়ো হয়। তারা অভিযুক্ত শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে স্কুল মাঠে বিক্ষোভ শুরু করেন।

খবর পেয়ে বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান ঘটনাস্থলে যায়। তবে ওই শিক্ষককে স্কুল থেকে বের করে থানায় নিতে স্থানীয়দের বাধার মুখে পড়ে পুলিশ। স্থানীয়দের দাবির প্রেক্ষিতে দুপুর আড়াইটার দিকে সেখানে যান বাগমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাকিউল ইসলাম। ইউএনও-কে স্কুলের চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণির ৫/৬ জন ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকেরা বিপুল কুমারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ দেন।

পরে ইউএনও স্কুল প্রাঙ্গণে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসান। আদালতে অভিযুক্ত শিক্ষক নিজের অপরাধ স্বীকার করলে তাকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন। একই সঙ্গে স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি পরিবর্তনসহ সকল শিক্ষকদের বদলির ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন।

বাগমারা থানার ওসি আতাউর রহমান বলেন, ‘সাজাপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক বিপুল কুমারকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে স্কুল ও ওই এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। তবে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে সন্ধ্যা পর্যন্ত সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়।’