তুরস্ক বেড়াবেন তাহলে এখনই সময়



কাওসার আহমেদ
ছবি: বার্তা২৪

ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

তুরস্ক, ইজমির থেকে: তিন মহাদেশে বিস্তৃত ছিল উসমানীয় খিলাফত বা অটোমান সাম্রাজ্য। যার গৌরব উজ্জ্বল ইতিহাস, ঐতিহ্য ও স্বর্ণযুগ সম্পর্কে জানতে প্রতি বছর পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তুরস্কে ভিড় করেন মিলিয়ন মিলিয়ন পর্যটক। আপনিও চাইলে ঘুরে আসতে পারেন নৈসর্গিক সৌন্দর্যের দেশ তুরস্ক। দেশটির নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দেখলে মনে হবে, আসলেই তুরস্ক এক ভূস্বর্গ।

শীত প্রধান এ দেশটিতে গ্রীষ্মের সময়ই ভ্রমণের জন্য উপযুক্ত। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র তুরস্কের ইস্পাত ও অ্যালুমিনিয়াম আমদানির ওপর দ্বিগুণ শুল্ক আরোপের ফলে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে লিরার দরপতন ঘটেছে। ডলারের বিপরীতে লিরা’র এই দরপতনকেই সুবর্ণ সুযোগ হিসেবে নিয়েছেন পর্যটকরা।

ট্যুরিজম নির্ভর অর্থনীতির দেশ তুরস্ক। গত বছর (২০১৭) বিশ্বের ৩২.৪১ মিলিয়ন (সাড়ে ৩ কোটি) পর্যটক তুরস্ক ভ্রমণ করেছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Aug/26/1535266099890.jpg

দেখা গেছে, রুশদের ভ্রমণের পছন্দের প্রথম তালিকায় তুরস্ক। রাশিয়ার পর সবচেয়ে বেশি সংখ্যক পর্যটক আসে জার্মানি ও ইরান থেকে। গতবছর (২০১৭) কেবল ৪.৭২ মিলিয়ন রাশিয়ান ভ্রমণ করেছে দেশটি। রাজস্বের ২৬.২৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার শুধু পর্যটন থেকেই আয় করে তুরস্ক। (সূত্রঃ রয়টার্স,জানুয়ারি ৩১, ২০১৮-৩:১৯)।

মুলত ইউরোপীয়নরা তুরস্ক ভ্রমণ করে থাকেন। গেল বছর মোট ১৭.৬ মিলিয়ন ইউরোপীয়ান দেশটি সফর করেছেন। তুরস্ক ভ্রমণের তালিকায় শীর্ষ পাঁচে রয়েছে রাশিয়া, জার্মানি, ইরান, জর্জিয়া ও ইউকে (সূত্রঃ হুররিয়াত, ডেইলি নিউজ ডটকম, ২৯ নভেম্বর২০১৭-১৪:২৯)।

ব্রিটেন ভিত্তিক ট্রাভেল এজেন্সি টিইউআই বলছে বিদেশি পর্যটকদের কাছে আকর্ষণের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে তুরস্ক ।

বৃটেন ভিত্তিক অন্য আরেকটি ট্রাভেল এজেন্সি টমাস কুক বলছে, লিরার দরপতনের পর তুরস্কে ব্রিটিশদের ভ্রমণের হার ৬৪ শতাংশ বেড়েছে।

পর্যটন আকর্ষণে তুরস্কের উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থানগুলোর মধ্যে রয়েছে এশিয়া ও ইউরোপের মধ্যবর্তী অঞ্চলের সীমানা নির্দেশক বসফরাস প্রণালী, ওসমানিয়া খিলাফতের রাজধানী ইস্তানবুল শহর, নান্দনিক স্থাপত্য নিদর্শন হ্যাগিয়া সোফিয়া, প্রাচীন শহর হিয়েরাপলিস, আজিয়ান সাগর ও ভূমধ্যসাগরের উপকূলীয় ইজমির প্রদেশের প্রাচীন গ্রীক ও রেমান রাজ্যের কেন্দ্র এফেসাস, শিরিনজে, আলাচাতি, চেসমে ও পচা সমুদ্র সৈকত।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Aug/26/1535266156661.jpg

এছাড়াও আনতালিয়া প্রদেশের আলতিনবেসিক কেভ ন্যাশনাল পার্ক। নেভশেহির এর ঐতিহাসিক কাপাদকিয়া এলাকা প্রাচীন পাথরের ঘর ও হট এয়ার বেলুনে চড়ে আনন্দ উপভোগের জন্য বিশ্বখ্যাত। বুরসায় উলুদা, আরাছ জলপ্রপাত, ইস্তাম্বুলের আরাস্তা বাজার, এস্কিশেহিরের অদুন বাজার ওসাজওভা পার্ক, কনিয়ার রুমির মাজার, বদরুম কালেসি, প্রথম বিশ্ব যুদ্ধের উৎপত্তিস্থল চানাক্কালে, ট্রাবজনের সুমেলা মানাস্ত্রি, উযুন গুল ও ট্রাবজন কালেসি, সারলি উরফায় ইব্রাহিম(আ.)এর অগ্নি কুণ্ডলীর স্থান, আনতালিয়ার পুরনো শহরে অবস্থিত কালেইসি, মেন্দেরেস নদীর উপত্যকায় অবস্থিত পামুক্কালে। আরও আছে নয়ন জড়ানো তরছ, দেমিরকাকিজ ও এরজিইস পর্বতমালা সহ বহু পর্যটক আকর্ষণ।