আজ জিতলেই সিরিজ জয়ের আনন্দ



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম
আরেকটি জয়ের অপেক্ষায় বাংলাদেশ

আরেকটি জয়ের অপেক্ষায় বাংলাদেশ

  • Font increase
  • Font Decrease

জিম্বাবুয়ে ভালই জানে এটাই শেষ সুযোগ। সিরিজে ফিরে আসতে হলে এই ম্যাচে জিততেই হবে আজ। তবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ম্যাচ, তাই সম্ভবত ক্রিকেট পরিসংখ্যানের খাতাটা বন্ধই রেখেছে জিম্বাবুয়ে! এই মাঠে যে কখনোই বাংলাদেশকে হারাতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। মাঠে গড়ানো পেছনের পাঁচ ম্যাচের সবগুলোতেই জিম্বাবুয়েকে হারিয়েছে বাংলাদেশ।

সেই পরিসংখ্যান এবং বর্তমানের আত্মবিশ্বাসী ফর্ম-এই দুইকে সঙ্গী করে আজ চট্টগ্রামেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজের ফল চুড়ান্ত করতে চায় মাশরাফির দল। এই ম্যাচ জিতে সিরিজ পকেটে ভরে নিতে পারলে এই মাঠেই শেষ ম্যাচে একাদশ নিয়ে কিছুটা পরীক্ষা-নিরীক্ষার আয়েশ করতে পারে বাংলাদেশ।

আজ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচের একাদশ নিয়ে বাংলাদেশ তেমন বড় কোন চিন্তায় নেই। ইনজুরি সমস্যা না থাকলে ঠিক প্রথম ম্যাচের একাদশ নিয়েই মাঠে নামবে দল। অভিষেকে শূণ্য রান করা ফজলে রাব্বী যৌক্তিক কারণেই আরেকটি সুযোগ পাচ্ছেন। আগের দিন অনুশীলনে কনুইয়ের চোট নিয়ে সমস্যার কথা জানিয়েছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। সেক্ষেত্রে বাড়তি সতর্কতা হিসেবে মুস্তাফিজকে এই ম্যাচে বিশ্রামে রাখার একটা পরিকল্পনার কথা উড়ছিল বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্টের বৈঠক শুরুর আগে। মুস্তাফিজ এই ম্যাচে বিশ্রামে থাকলে আবু হায়দার রনি বা রুবেল হোসেন খেলার সুযোগ পেতে পারেন।

মিরপুরের মতো চট্টগ্রামের উইকেট সম্পর্কেও বাংলাদেশ দলের বেশ ভালোই জানা। বাংলাদেশ দল পেছনের বেশ কয়েকটি ম্যাচে এককভাবে কোন খেলোয়াড়ের পারফরমেন্সে সন্তোষ দেখালেও ব্যাটিংয়ে দলগত সাফল্যেকে আরো উর্ধ্বমুখী করার তাগিয়ে দেখিয়েছে। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা নিজেই দলের কাছে সেই দাবি জানিয়ে বলেছেন-‘স্কোরবোর্ডে তিনশ রান দেখতে চাই আমি।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/24/1540356028183.jpg

চট্টগ্রামের উইকেটে আজ টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেলে দলের খেলোয়াড়রা জোর চেষ্টা চালাবেন ম্যাচপূর্ব অধিনায়কের দাবি মেটাতে। চট্টগ্রামের উইকেটও সাধারণত মিরপুরের মতোই একই বৈশিষ্ঠ্যের। তবে নতুনভাবে গড়া এখানকার উইকেট ব্যাটসম্যানদের হয়েই কথা বলতে পারে বলে আশায় বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট।

বাংলাদেশ যেখানে টানা জয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখার কথা ভাবছে, ঠিক তখন জিম্বাবুয়ের চিন্তায়ও একই ভাবনা; তবে তারা ভাবছে টানা হারের গর্ত থেকে কিভাবে বেরিয়ে আসা যায়! লালচান্দ রাজপুত জিম্বাবুয়ের নতুন কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর টানা ১৫টি ম্যাচ হেরেছে জিম্বাবুয়ে। চলতি বছর আজকের ম্যাচের আগ পর্যন্ত জিম্বাবুয়ে খেলেছে ২৪টি ওয়ানডে, জিতেছে মাত্র ৫টিতে! বাকি ১৯টিতেই হার। টানা এই হারের সবচেয়ে বড় কারণ হিসেবে জিম্বাবুয়ে কোচ দেখছেন তার দলের শুরুর দিকের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতাকে। ম্যাচের শুরুটাই ভাল হচ্ছে না জিম্বাবুয়ের। আর সেই বাজে শুরুর পর আজ কোমর তুলে দাড়াতেই পারছে না দল। শুরুর সঙ্কট থেকে বেরিয়ে আসার জন্য জিম্বাবুয়ে চলতি বছর ওয়ানডেতে ওপেনিং জুটিতে সাতবার বদল এনেছে। কিন্তু কোন টোটকায় ও যে কাজ হচ্ছে না!

বাংলাদেশে চলতি সফরে জিম্বাবুয়ে তাদের অভিজ্ঞ এবং সিনিয়র ব্যাটসম্যানদেরও ফিরিয়ে এনেছে। তা সত্ত্বেও সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের অভিজ্ঞতা সুখকর হয়নি।

হারিয়ে যাওয়া সেই সুখের খোঁজ কি জিম্বাবুয়ে পাবে চট্টগ্রামে? আরেকবার জানিয়ে দেই-চট্টগ্রামে জিম্বাবুয়ে আগে কখনো হারাতে পারেনি বাংলাদেশকে। 

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ: লিটন দাস, ইমরুল কায়েস, ফজলে রাব্বী, মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদি হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), নাজমুল ইসলাম অপু ও মুস্তাফিজুর রহমান।