লক্ষ্মীপুরে ডিসি অফিসের কর্মচারীর বিরুদ্ধে বিধবার সংবাদ সম্মেলন



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, লক্ষ্মীপুর
ছেলে-মেয়েদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে ওই নারী, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ছেলে-মেয়েদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে ওই নারী, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক (ডিসি) কার্যালয়ের কর্মচারী আহম্মদ হোসেনের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগে আয়েশা বেগম নামের এক বিধবা নারী সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

সোমবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে জেলা শহরের অঙ্গশোভা ভবনে একটি পত্রিকা কার্যালয়ে এ সম্মেলন করা হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন ওই নারীর ছেলে লোকমান হোসেন, আবদুল আজিজ, মেয়ের জামাই মো. রাসেল, মেয়ে সাথী বেগম ও জুলেখা বেগম। আয়েশা লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের আবিরনগর এলাকার মৃত শাহ আলমের স্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়, আবিরনগর এলাকার শাহ আলম মারা যাওয়ার পর স্ত্রী ও ছেলেমেয়ে ওয়ারিশ সূত্রে সাড়ে ৩১ শতাংশ জমির মালিক হন। লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী আহম্মদ হোসেন তাদের ১৭ শতাংশ জমি জোরপূর্বক দখল করে নিয়েছেন। জমি ফিরে পেতে গত ২৪ অক্টোবর আয়েশার ছেলে ভ্যানচালক লোকমান বাদী হয়ে জেলা লিগ্যাল এইডে আহম্মদসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এতে আহম্মদ ক্ষিপ্ত হয়ে ৩০ অক্টোবর শহরের শেখ রাসেল সড়ক এলাকায় আয়েশাকে মারধরসহ শাড়ি-ব্লাউজ ছিড়ে ফেলেন। এ ঘটনায় ৩১ অক্টোবর আয়েশা বাদী হয়ে আহম্মদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন।

এরপর থেকেই মামলাটি তুলে নিতে আহম্মদসহ তারা ভাইয়েরা বিধবার পরিবারের সদস্যদেরকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়। সবশেষ বিধবার বসতঘরটিও দখলের জন্য বিভিন্নভাবে পাঁয়তারা করা হচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে আহম্মদ হোসেন বলেন, 'কারো জমি দখল করিনি। ওয়ারিশি জমির ওপরই আমি ঘর-বাড়ি নির্মাণ করেছি। আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে অভিযোগ আনা হচ্ছে।'