বই মেলায় মলি সিদ্দিকার ‘বুনো আঁধার’



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
মলি সিদ্দিকার ‘বুনো আঁধার’

মলি সিদ্দিকার ‘বুনো আঁধার’

  • Font increase
  • Font Decrease

মলি সিদ্দিকার লেখালেখি শুরু হয় অনেক অল্প বয়স থেকেই। প্রথম প্রকাশ ঘটে ২০০৪ সালের প্রথম দিকে খবরের কাগজে। গল্প লেখার পাশাপাশি কবিতাও লিখতেন, তবে গত কয়েক বছর কবিতাই বেশি লেখা হয়েছে তার।

বিভিন্ন সময়ে দেশে এবং অস্ট্রেলিয়াতে লেখা প্রকাশিত হয় অনলাইনে এবং কাগজে। এই কাজের ধারাবাহিকতায় এবারের অমর একুশে বই মেলায় লেখিকার প্রথম কবিতার বই ‘বুনো আঁধার’ প্রকাশ করছে নন্দিতা প্রকাশ।

বইটি পাঠকের সুবিধার্থে অনলাইনে রকমারি.কমেও পাওয়া যাচ্ছে।

খুব অল্প বয়সে মা হলেও পড়াশুনা এবং কাজ চালিয়ে গিয়েছেন মলি সিদ্দিকা। নব্বই দশকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে পড়াশোনা করার পাশাপাশি পোশাক শিল্পে তার উদ্যোগ বহুল প্রশংসিত হয়েছিলো। পরবর্তীতে বহুজাতিক কোম্পানিতে কাজ এবং শিক্ষকতা করেন তিনি।

শিল্প, সাহিত্য এবং মানবতাপ্রেমী এই লেখিকা ২০০৬ সালে উচ্চ শিক্ষার উদ্দেশে অস্ট্রেলিয়ায় যান। এই সুদীর্ঘ বছরগুলোতে নতুন দেশে নানা চড়াই-উৎরাই পার করেছেন এবং প্রতি মুহূর্তে নিজের জন্মভূমিকে আরও অনেক বেশি আপন করে অন্তরে ধারণ করেছেন। তার অনেক লেখাতেই সেই দেশপ্রেম ফুটে উঠেছে।

মলি সিদ্দিকা অস্ট্রেলিয়ার কার্টিন ইউনিভার্সিটি থেকে মানবাধিকার বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি করেন। সরকারি স্কুলে কাজ করার পাশাপাশি মানবাধিকার সংস্থাতে সম্পৃক্ত আছেন। লেখালেখিই সবচাইতে পছন্দের কাজ এবং বাকি জীবনটা তিনি কলমের সঙ্গেই থাকতে চান।

তার অনেক লেখাতেই আমাদের চারপাশে ঘটে যাওয়া রূঢ় সত্যি উঠে আসে, যা কিনা আমাদেরকে দ্বিতীয়বার ভাববার সুযোগ করে দেয় পরিবর্তন আনার ক্ষেত্রে। সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না, ভালোবাসা-ঘৃণা, প্রতিবাদ এসব কিছুই ঢেকে রাখা অন্ধকার গহ্ববর থেকে উঠে আসা ধ্বনি হয়ে মলাট বদ্ধ হয়েছে অনেক যত্নে ‘বুনো আঁধারে’। প্রকৃতিও তার লেখায় একটা বড় জায়গা করে নিয়েছে। লেখিকা প্রায়শই তার বর্তমান শহরের আলো-বাতাসে বিভিন্ন ঋতুতে দেশের মাটির গন্ধ পান। বসন্তের ঘ্রাণ এবং আরও কিছু কবিতায় এই ব্যাপারটা ফুটে উঠেছে।

সব কথার ইতি যেখানে
সেই খানেই কি তোমার বাস?
নাকি নতুন জন্ম,আবার নিঃশ্বাস!
    অঙ্কুরিত বিশ্বাস
    ছুটে চলা অবিরাম
    ছুঁয়ে দেয়া শত প্রাণ
    নাকি কেবলি ছায়া
    অথবা বর্ণচোরা
ভালোবাসার ফল্গুধারা!! (অঙ্কুরিত বিশ্বাস: বুনো আঁধার)

মলি সিদ্দিকা স্বপ্ন দেখেন বাংলা সাহিত্যকে ব্যাপকভাবে পুরো বিশ্বে ছড়িয়ে দেওয়ার। তিনি বিশ্বাস করেন সাহিত্য চর্চা এবং যে কোনো সৃষ্টিশীল কাজের মাধ্যমে আত্মার মুক্তি মেলে, যা কিনা নতুন পৃথিবীর স্বপ্ন দেখায়। তিনি সকলের কাছে দোয়া প্রার্থী তার কাজের ধারাবাহিকতার জন্য।

মলি সিদ্দিকা বর্তমানে অস্ট্রেলিয়াতে তার স্বামী, বড় মেয়ে-জামাই এবং ছোট মেয়েকে নিয়ে বসবাস করছেন।