জিএসটি ভর্তি পরীক্ষায় হাবিপ্রবিতে অংশ নিচ্ছে ৭২৮৯ জন



হাবিপ্রবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

  • Font increase
  • Font Decrease

১৭ অক্টোবর ( রোববার ) সাধারণ ও বিজ্ঞান প্রযুক্তি( জিএসটি) ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে যাচ্ছে দেশের প্রায় ১ লাখ ৩২ হাজার শিক্ষার্থী। এ দিন 'এ ' ইউনিটের পরীক্ষায় হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ( হাবিপ্রবি) থেকে অংশ নিবেন ৭২৮৯ জন ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাবিপ্রবির ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সচিব ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা. মোঃ ফজলুল হক। উক্ত ভর্তি পরীক্ষার নাম্বারের উপর ভিত্তি করে ২০ টি বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নিজ নিজ সার্কুলার প্রকাশ করবে।

এরইমধ্যে পরীক্ষা গ্রহণের সকল প্রকার পূর্বপ্রস্তুতি শেষ করেছে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে করোনা মহামারির কারণে পরীক্ষার্থীদের মানতে হবে বাধ্যতামূলক স্বাস্থ্যবিধি।

হাবিপ্রবির ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ড. মোঃ ফজলুল হক বলেন, " জিএসটির 'এ ' ও ' বি ' ইউনিটের পরীক্ষায় হাবিপ্রবি থেকে ৭২৮৯ জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২২ টি কক্ষে এসকল পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া 'সি ' ইউনিটের পরীক্ষায় হাবিপ্রবি থেকে মাত্র ১৩৪৮ জন ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী অংশ নিবে। সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০ টি কক্ষ ব্যবহার হবে"।

অন্যদিকে, ভর্তি পরীক্ষার সার্বিক প্রস্তুতির ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বলেন, " আমরা ইতিমধ্যে সকল প্রকার প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে পুরো ক্যাম্পাস ক্লোজ সার্কিট টেলিভিশন ক্যামেরার ( সিসিটিভি) আওতায় আনা হয়েছে। পরীক্ষা সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে পুলিশ সহ অন্যান্য নিরাপত্তা কর্মী নিয়োজিত থাকবে। করোনা পরিস্থিতি ও হলসমূহ বন্ধ থাকায় ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের জন্য থাকার কোনো ব্যবস্থা নেই। যদিও হাবিপ্রবিতে নিকটবর্তী জেলার শিক্ষার্থীরাই অংশ নিবে। তাই তারা সকালে এসে পরীক্ষা দিয়ে পুনরায় চলে যেতে পারবে। আশা করি কোনো শিক্ষার্থীর কোনো প্রকার সমস্যা হবে না। পাশাপাশি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের বসার জন্য স্টোলের ব্যবস্থা করা হয়েছে "।

পক্ষান্তরে, ভর্তি পরীক্ষা কমিটি জানায়, " স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের। প্রত্যেক পরীক্ষার্থীকে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। কক্ষগুলোতে আগে থেকেই হ্যান্ড-স্যানিটাইজার ও হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে "।

অন্যদিকে, শরিবার (১৬ অক্টোবর) ভর্তি পরীক্ষার ইউনিট ভিত্তিক আসন বিন্যাস ও সংশ্লিষ্ট তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইটে দুপুরের মধ্যেই বিস্তারিত আকারে জানানো হবে।

উল্লেখ্য, রোববার (১৭ অক্টোবর) বেলা ১২টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তবে ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের সাড়ে ১১ টার মাঝেই নির্ধারিত পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে।