মঙ্গলবার থেকে বেরোবির ১ম বর্ষে ভর্তির আবেদন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) থেকে শুরু হবে। গুচ্ছভুক্ত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীরাই ভর্তি প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ বিভাগের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আলী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আগামী ১৫ ডিসেম্বর রাত ১২টা পর্যন্ত ভর্তির জন্য আবেদন করা যাবে। এবছর বেরোবির ছয়টি অনুষদভুক্ত ২২টি বিভাগে মোট ১৩৯৫ জন ছাত্রছাত্রী ভর্তি হতে পারবেন। এরমধ্যে কলা অনুষদের তিন বিভাগে ২১৫ টি, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ছয়টি বিভাগে ৩৭৫টি, বিজনেস স্টাডিজ অনুষদভুক্ত চারটি বিভাগে ৩০৫ টি,  বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত চারটি বিভাগে ২৮০ টি, প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদভুক্ত দুটি বিভাগে ১০০টি এবং জীব ও ভূ-বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত দুটি বিভাগে ১২০ টি আসনে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করা হবে। এছাড়াও এই সংখ্যার অতিরিক্ত শতকরা ৫ জন মুক্তিযোদ্ধা কোটা, ১.৫ জন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি, ১ জন প্রতিবন্ধী, ২জন পোষ্য এবং ০.৫ জন দলিত কোটায় ভর্তি করা হবে।

আবেদন প্রক্রিয়াসহ ভর্তি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

ভিসির বাস ভবনে শিক্ষক সমিতির প্রবেশের চেষ্টা, শিক্ষার্থীদের বাধা



শাবিপ্রবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ভিসির বাস ভবনে শিক্ষক সমিতির প্রবেশের চেষ্টা, শিক্ষার্থীদের বাধা

ভিসির বাস ভবনে শিক্ষক সমিতির প্রবেশের চেষ্টা, শিক্ষার্থীদের বাধা

  • Font increase
  • Font Decrease

ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ কার্যত অবরুদ্ধ অবস্থায় রয়েছে। রোববার থেকে পুলিশ ও সাংবাদিক বাদে অন্যদের ভিসি ভবনে প্রবেশ বন্ধ করে দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। ফলে অবরুদ্ধ ভিসির সাথে অনেক চেষ্টা করেও দেখা করতে পারে নি কেউ।

শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. তুলসি কুমার দাশ ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মুহিবুল আলমের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল মঙ্গলবার দুপুর ১টায় ভিসির বাস ভবনের প্রধান ফটকে আসেন এবং ভেতরে যাওয়ার চেষ্টা করেন কিন্তু শিক্ষার্থীরা তাতে বাধা প্রদান করে। শিক্ষকরা আলোচনার মাধ্যমে উদ্ভূত সমস্যা সমাধানের জন্য আহবান জানান কিন্তু শিক্ষার্থীরা পদত্যাগের দাবিতে অনড় থাকায় শিক্ষকরা ফিরে যান।

এ সময় শিক্ষকরা কিছু খাবার নিয়ে আসলে শিক্ষার্থীরা বলেন, খাবার বা অন্যান্য জিনিসপত্র নিরাপত্তা বাহিনীর মাধ্যমে দেওয়া যাবে কিন্তু শিক্ষক কেউ যেতে পারেন না। পরবর্তীতে খাবারের প্যাকেট যাচাই করে নিরাপত্তা বাহিনীর মাধ্যমে ভেতরে পাঠানো হয়। 

এদিকে মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় সিলেট-২ আসনের সাংসদ ও গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খান, সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী সুরাইয়া বেগমসহ কয়েকজন নেতাকর্মী অনশনরত শিক্ষার্থীদের দেখতে আসেন। এ সময় তিনি শিক্ষার্থীদের ন্যায্য দাবি মেনে নেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, একজন সংসদ সদস্য হিসেবে আমি শিক্ষার্থীদের দেখতে এসেছি। তাদের দুরাবস্থা ও দাবিগুলো আমি সংসদে তুলে ধরবো। সংবিধান প্রণেতা ড. কামাল হোসেনের পক্ষ থেকে আমি এখানে এসেছি। শিক্ষার্থীদেরকে ড. কামাল হোসেনের সাথে মোবাইলে কথা বলার জন্য বলেন কিন্তু শিক্ষার্থীরা তার সাথে কথা বলতে রাজি হয়নি। পরবর্তীতে কামাল হোসেন  গণমাধ্যমে মোবাইলে কথা বলেন।

এদিকে গত বুধবার থেকে শুরু হওয়া আমরণ অনশনের আজকে মঙ্গলবার বিকেল ৩টা পর্যন্ত ১৪৪ ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও কোনো সমাধান না আসায় অনশনরত শিক্ষার্থীদের নিয়ে উদ্বেগ উৎকণ্ঠা দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৮ জন অনশনরতদের মধ্যে ১৯ জনের স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে এবং ৯ জন ক্যাম্পাসে অনশন করছে।

;

শাবিপ্রবি অনশনরতদের মেডিকেল সাপোর্ট বন্ধের অভিযোগ



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সিলেট
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) অনশনরত শিক্ষার্থীদের মেডিকেল সাপোর্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) ভোররাত আড়াইটার দিকে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের জরুরি প্রেস ব্রিফিংয়ে এ সব তথ্য জানানো হয়।

আন্দোলনকারীদের এক মুখপাত্র চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে বলেন, অনশনরত শিক্ষার্থীদের সবার অবস্থার অবনতি হচ্ছে এবং তারা ধীরে ধীরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছেন। তারা সবাই খিঁচুনি, ব্লাডে অক্সিজেন ও সুগার লেভেল কমে যাওয়া, ব্লাড প্রেশারসহ নানা শারীরিক জটিলতায় পড়ছেন। তারা অর্গান ড্যামেজের ঝুঁকিতে আছেন।

তিনি আরও বলেন, অনশনকারীদের মেডিকেল রিপোর্ট বিশ্লেষণ করে সিনিয়র চিকিৎসকরা আরও জানিয়েছেন, অনশন দীর্ঘায়িত হলে যেকোনো মুহূর্তে হার্ট ফেইলিওরসহ কোমায় চলে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এরআগে, সোমবার (২৪ জানুয়ারি) রাতে আন্দোলনকারীরা অভিযোগ করে বলেন, তাদের আর্থিক সহায়তা আসা ৬টি একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যলয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা ব্যাংক একাউন্ট, বিকাশ, নগদ ও রকেটের মোট ৬টি একাউন্টের মাধ্যমে সহায়তার অর্থ পাঠান। এসব অর্থ দিয়ে প্রায় ৩ হাজার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীর খাবার ও আনুসাঙ্গিক খরচ চলে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দু'জন শিক্ষার্থী জানান, প্রতিদিন একাউন্টগুলোতে লাখ দুয়েক টাকার মতো আসতো। তবে আজ থেকে এ একাউন্টগুলোতে আমরা কোনো লেনদেন করতে পারছি না। ব্যাংক একাউন্টসহ সবগুলো একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। একাউন্ট বন্ধ করার ব্যাপারে আমাদের কিছু জানানো হয়নি। আমার স্থানীয়ভাবে বিকাশ অফিসে যোগাযোগ করেও কোনো সদুত্তর পাইনি।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ দাবিতে গত বুধবার দুপুর আড়াইটা থেকে আমরণ অনশনে বসেন শাবিপ্রবির ২৪ জন শিক্ষার্থী। এরমধ্যে একজনের বাবা হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ায় তিনি অনশন শুরুর পরের দিনই বাড়ি চলে যান। শনিবার রাতে গণঅনশনের অংশ হিসেবে নতুন করে যোগ দেন আরও ৪ জন। সবমিলে এখন অনশনে আছেন ২৮ জন।

প্রসঙ্গত, গত ১৩ জানুয়ারি রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রাধ্যক্ষ জাফরিন আহমেদের বিরুদ্ধে অসদাচরণের। অভিযোগ তুলে তাঁর পদত্যাগসহ তিন দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন হলের কয়েক শ ছাত্রী। শনিবার সন্ধ্যার দিকে হলের ছাত্রীদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগ। রোববার ছাত্রীরা উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট ছুঁড়ে ভিসিকে মুক্ত করে। এতে অর্ধশত শিক্ষার্থী আহত হন। এরপর থেকে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবি উঠে।

;

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (বাউবি) পরিচালিত সব পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। স্থগিত এসব পরীক্ষার সময়সূচি পরবর্তীতে জানানো হবে।

পরীক্ষাগুলো হলো- সিএসই, এইচএসসি (নিশ-২), এমবিএ এবং আগামী ২৮ ও ২৯ জানুয়ারি ২০২২ অনুষ্ঠিতব্য এসএসসি (নিশ-১), এইচএসসি (নিশ-১), বিএ, বিএসএস এবং ল (অনার্স), বিবিএ, এমএ অ্যান্ড এমএসএস (প্রিলিমিনারি অ্যান্ড ফাইনাল) পরীক্ষাসহ চলমান সব পরীক্ষা।

সোমবার বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য ও গণসংযোগ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ড. আ ফ ম মেজবাহ উদ্দিন এ তথ্য জানিয়েছেন।

;

শাবিপ্রবি ভিসির পদত্যাগের দাবিতে মশাল মিছিল



শাবিপ্রবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
শাবিপ্রবি ভিসির পদত্যাগের দাবিতে মশাল মিছিল

শাবিপ্রবি ভিসির পদত্যাগের দাবিতে মশাল মিছিল

  • Font increase
  • Font Decrease

ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলন অব্যাহত রয়েছে।

সোমবার রাত ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ক্যাম্পাসে এক ঘণ্টা মশাল মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। তিন শতাধিক শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে মশাল মিছিলটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে মুক্তমঞ্চে গিয়ে শেষ।

এতে শিক্ষার্থীরা বলেন, এই মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক-বর্তমান শিক্ষার্থীদের সিলেট আসার আহবান মিছিল। এ সময় শিক্ষার্থীরা- 'সব সাস্টিয়ান সিলেট আয়, বোমা ফরিদ ভয় পায়', 'এক দুই তিন চার, ভিসির ঘর অন্ধকার', 'এক দুই তিন চার, এই মুহূর্তে গদি ছাড়' ইত্যাদি নতুন স্লোগান দিতে থাকে।

এদিকে সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টায় প্রক্টর ড. আলমগীর কবিরসহ প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা ভিসির বাস ভবনে প্রবেশের চেষ্টা করেন কিন্তু শিক্ষার্থীরা তাদের প্রবেশ করতে দেয়নি। এ সময় প্রক্টর বলেন, ভিসি স্যার হার্টের রোগী। উনার জন্য আমরা কিছু ঔষধ নিয়ে আসছিলাম। এছাড়া শিক্ষকদের ডর্মে একজন অসুস্থ শিক্ষককে দেখতে চাচ্ছিলাম। আমরা অনশনরত শিক্ষার্থীদের জন্যও খাবার নিয়ে আসছিলাম কিন্তু ভেতরে যেতে পারিনি।

এদিকে অনশনরত ২৮ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে অসুস্থ ১৭ জনকে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে ও ১১ জন ক্যাম্পাসে রয়েছে এবং তারা সবাই এখনো অনশন করছে।

উল্লেখ্য, রোববার সন্ধ্যায় ভিসির বাস ভবনের বিদ্যুৎ ও গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেয় শিক্ষার্থীরা।

;