নিরাপত্তা কৌশল শিখলেন দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীরা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নিরাপত্তা ও ক্ষমতায়ন বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের নারী শিক্ষার্থীদের বিশেষ প্রশিক্ষণে উপস্থিত থেকে উৎসাহ যুগিয়েছেন অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন, এভারেস্টজয়ী নিশাত মজুমদার, ক্রিকেটার জাহানার আলম। মঙ্গলবার ও বুধবার (১৪ ও ১৫ মার্চ, ২০২৩) রাজধানীর ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ (ইউল্যাব) এবং ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে (ডিআইইউ) ৫০ জন করে নারী শিক্ষার্থীদেরকে প্রশিক্ষণের আয়োজন করে বাংলাদেশের খালেদ মোশাররফ ট্রাস্ট ও ভারতের ইন্দ্রানি বালান ফাউন্ডেশন ।

ইউল্যাবে ‘নির্ভয়: নারী নিরাপত্তা ও ক্ষমতায়ন প্রশিক্ষণ’ শীর্ষক এ কর্মসূচিশেষে আজ মঙ্গলবার অংশগ্রহণকারীদেরকে সনদপত্র প্রদান করা হয়। এই প্রশিক্ষণ অংশগ্রহণকারীদেরকে আরও সাহসী মানুষ হিসেবে গড়ে তুলবে বলে আয়োজকরা আশা করছেন।

প্রশিক্ষণে মানবদেহের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বিভিন্ন ধরণের নিরাপত্তা কৌশল শেখানো হয়। কৌশলগুলোর মধ্যে রয়েছে বডি টুলস, বডি কন্ডিশনিং, স্ট্রাইকিং, কিকবক্সিং কম্বিনেশনস। এছাড়া প্রতিদিন সঙ্গে রাখা প্রয়োজন এমন বস্তু এবং নিজের আশপাশ দেখে কী ধরণের প্রস্তুতি নিতে হবে সেগুলো সম্পর্কে পরামর্শ দেওয়া হয়।


সাবেক সংসদ সদস্য ও খালেদ মোশাররফ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান মাহজাবিন খালেদের সঞ্চালনায় সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা ২ আসনের সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, বাংলাদেশে নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত এখিম ট্রস্টার (Mr. Achim Troster); ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব) উপাচার্য অধ্যাপক ইমরান রহমান, মেজর জেনারেল তাওহীদ রহমান বিএসপি, এনডিইউ, পিএসসি, এমডিএস, এমএসসি, এমপিসিএইচআরএস, এলএলবি (আর), জিবিআই সভাপতি, এলএলসি; বাংলাদেশ পুলিশের বিশেষ শাখার এসপি (অভ্যন্তরীণ বিষয়ক) মাহফুজা লিজা বিপিএম, অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন, পর্বতারোহী নিশাত মজুমদার, বাংলাদেশ নারী জাতীয় দলের ক্রিকেটার জাহানারা আলম।

সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পরে এতো মিথ্যাচার করা হয়েছে যে দুটি প্রজন্মকে মিথ্যা শিক্ষা দিয়ে বড় করা হয়েছে। সত্যিকার ইতিহাস শিখে বড় রাখতে হবে। নইলে যাই করি না কেন সব কিছু ব্যর্থ হয়ে যাবে। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে ৫২ শতাংশ ভোটার নারী। নারীরা এখন সবক্ষেত্রে ভালো করছে। আগামী প্রজন্মকে আরও সুন্দর বাংলাদেশ উপহার দিতে আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে।

জার্মান রাষ্ট্রদূত এখিম ট্রস্টার বলেন, পশ্চিমা দেশগুলিতে, আমাদের এখনও একটি ঐতিহ্যগত পারিবারিক প্রথা চালু আছে। এখন জার্মানিতে একজন নারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও একজন নারী উন্নয়নমন্ত্রী রয়েছেন। দুই সাপ্তাহ আগে আমরা নারী উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নের জন্য একটি নতুন ধারণা নারী পররাষ্ট্রনীতি এবং নারী উন্নয়ন নীতি তৈরি করেছি আমরা নিশ্চিত করতে চাই যে সেখানকার সমস্ত মহিলা নিরাপদ।

আজমেরী হক বাঁধন বলেন, “আমি এমন দেশের নাগরিক হতে চাই না যে দেশে আমাকে নিরাপত্তার জন্য কৌশল শিখতে হবে এবং তা প্রয়োগও করতে হবে। এমন দেশের নাগরিক হয়ে আমি লজ্জিত। কারণ রাষ্ট্রকে নারী-পুরুষ নির্বিশেষে নিরাপত্তা দিতে হবে।‘

সাবেক সংসদ সদস্য মাহজাবীন খালেদ জানান প্রথম পর্যায়ে যাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে তাদের মধ্য থেকে বাঁচাই করে কয়েকজনকে ভারতে উন্নত প্রশিক্ষণে পাঠানোর পরিকল্পনা আছে। যাতে তারা দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে গিয়েও একই প্রশিক্ষণ দিতে পারেন। আমরা আমাদের কাজকে সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে চাই।

রাবির ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন



রাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ৬ বিভাগ ও ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের মধ্য দিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বষের্র ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

বুধবার (৩১ মে) দুপুর ১টা থেকে ২টা পর্যন্ত এক ঘণ্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত ‘বি’ ইউনিটের অ-বাণিজ্য গ্রুপের পরীক্ষার মধ্য দিয়ে শেষ হয় এবারের ভর্তিযুদ্ধ। ভর্তি পরীক্ষায় তিন ইউনিটের ফলাফল আগামী সপ্তাহের শেষের দিকে প্রকাশের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে।

শেষ দিনের ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে বলেন, ভর্তি পরীক্ষার শেষ দিনের প্রথম শিফটে সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটের গ্রুপ-৫’র অ-বিজ্ঞান, দ্বিতীয় শিফট বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ৬ বিভাগ ও ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের গ্রুপ-১’র বাণিজ্য ও তৃতীয় শিফট দুপুর ১টা থেকে ২টা পর্যন্ত একই ইউনিটের গ্রুপ-২’র অ-বাণিজ্যের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে সি ইউনিটের গ্রুপ-৫ এর পরীক্ষায় ১ হাজার ৫৫৬ জন এবং বি ইউনিটের গ্রুপ-১ (বাণিজ্য) এ ১৬ হাজার ৯০৪ জন ও গ্রুপ-২ (অ-বাণিজ্য) এ ১৩ হাজার ৭৭১ জন পরীক্ষার্থী ছিলো। পরীক্ষাসমূহে উপস্থিতির হার ছিল ৮৩.৮৫ শতাংশ।

ফল প্রকাশের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) থেকে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রস্তুতের কাজ শুরু হবে। আগামী সপ্তাহের শেষের দিকে ফল প্রকাশ হতে পারে বলে আশা করা যাচ্ছে।’

এর আগে এদিন ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে বেলা ১১টা ২০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডীনস কমপ্লেক্ষের সামনে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে রাবি উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার তিন দিনব্যাপী এই ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সহযোগিতা প্রদানের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী, শিক্ষার্থী ও অভিভাবক, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ, স্থানীয় জনপ্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী কর্তৃপক্ষ, গোয়েন্দা সংস্থা, বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন, স্থানীয় এলাকাবাসী, ক্যাম্পাস ও বাইরের গণমাধ্যম প্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। এসময় তিনি আগামীতেও বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকাণ্ডে অনরূপ সহযোগিতা পাওয়া যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়টির উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম, উপ-উপাচার্য (একাডেমিক) অধ্যাপক হুমায়ুন কবীর, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক অবায়দুর রহমান প্রমানিক, প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক, ছাত্র উপদেস্টা অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম সাউদ, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডেসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত সোমবার বিজ্ঞান, কৃষি, প্রকৌশল, জীববিজ্ঞান, ভূ-বিজ্ঞান, ফিশারিজ ও ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্সেস অনুষদভুক্ত‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মধ্য দিয়ে শুরু হয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এবারের ভর্তিযুদ্ধ। বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৬টি বিভাগের আওতাভুক্ত এই ইউনিটের চার গ্রুপে নিবন্ধিত পরীক্ষার্থী ছিল মোট ৭৪ হাজার ২৯৬ জন। এতে উপস্থিতির হার ছিল প্রায় ৮৬ শতাংশ।

এছাড়া ভর্তি পরীক্ষার দ্বিতীয় দিন গতকাল মঙ্গলবার কলা, আইন, সামাজিক বিজ্ঞান ও চারুকলা অনুষদের ২৭টি বিভাগসহ শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটভুক্ত ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ‘এ’ ইউনিটে ইউনিটের চার গ্রুপে নিবন্ধিত পরীক্ষার্থী ছিল মোট ৭২ হাজার ৬৫ জন। নির্ধারিত চার শিফটের পরীক্ষাসমূহে উপস্থিতির শতকরা হার ছিল প্রায় ৮৭ শতাংশ।

;

প্রক্সি জালিয়াতি মামলায় রাবি ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক গ্রেফতার



রাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি জালিয়াতির মামলায় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী হাসিবুল ইসলাম শান্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার তাকে রাজশাহীর কাটাখালি এলাকা থেকে আটকের পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের মামলায় গ্রেফতার দেখিয়েছে মতিহার থানা পুলিশ।

বুধবার (৩১ মে) দুপুর পৌনে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ সিনেট ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্যটি জানিয়েছেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার বিজয় বসাক।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় গ্রেফতারকৃত আসামিদের তথ্যমতে হাসিবুল ইসলাম শান্তকে গতকাল রাজশাহীর কাটাখালি এলাকা থেকে আটক করা হয়। পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানোর পর তার মোবাইল থেকে জাহাঙ্গীরনগর, চট্টগ্রাম, রাবি ও জগন্নাথ (গুচ্ছ) বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষারসহ বিভিন্ন চাকরির পরীক্ষার বিপুলসংখ্যক প্রবেশপত্র পাওয়া গেছে। তার বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ নিতে প্রয়োজনী ব্যবস্থাগ্রহণ করা হচ্ছে।

এর আগে, গতকাল মঙ্গলবার ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় গ্রেফতারকৃত আসামিদের তথ্যমতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আবদুস সালাম বাদি হয়ে হাসিবুল ইসলাম শান্তের বিরুদ্ধে নগরীর মতিহার থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারে আসামিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণের অনুরোধ জানান তিনি।

;

রাবির ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় আটক ৭



রাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের কলা, আইন, সামাজিক বিজ্ঞান ও চারুকলা অনুষদ এবং শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটভুক্ত ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ মে) চারটি শিফটে অনুষ্ঠিত এই ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ছিল প্রায় ৮৭ শতাংশ।

ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সির অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ ৭ জনকে আটক করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত ‘এ’ ইউনিটের প্রথম শিফটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে এসে স্যার জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনে আটক হন মোহাম্মদ হোসাইন। তিনি আল হাসান সিয়াম (রোল- ২১৬০২) পরিবর্তে প্রক্সি দেন। কৃষি অনুষদ ভবনে তানভীর আহমেদের (রোল- ২৪০৯৬) পরিবর্তে প্রক্সি দিয়ে আটক হন রাবির লোক প্রশাসন বিভাগের ২০১৮-১৯ সেশনের স্বপন হোসাইন। দ্বিতীয় শিফটে আবারও জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনে ৩৩৭ নং কক্ষে মো. আব্দুর রাকিব (রোল- ৪০৯৪৩) আটক হন। তিনি প্রকৃত পরীক্ষার্থী হলেও তার রেজিস্ট্রেশনে অন্যের ছবি পাওয়া যায়।

এছাড়া দুপুর ১টা থেকে ২টা পর্যন্ত চলা তৃতীয় শিফটের পরীক্ষায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. এম এ ওয়াজেদ একাডেমিক ভবনে ২৩৪ নং কক্ষে মাইনুল ইসলামের (রোল- ৫৬৯৫৯) পরিবর্তে প্রক্সি দিতে এসে আটক হন মো. বিদুৎ হাসান এবং একই ভবনে ৪৩৮ নং কক্ষের তানভীর আহমেদের (রোল- ৫৮৩৯৭) পরিবর্তে প্রক্সি দিয়ে আটক হন মো. এনামুল হক। এনামুল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামি স্টাডিজ বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের সাবেক শিক্ষার্থী এবং বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত চলা চতুর্থ শিফটে বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্র ভবনে মো. তাহমিদ বিন সাদমানের (রোল ৮২৪৪০) হয়ে প্রক্সি দিতে এসে আটক হন মো. সোহানুর রহমান।

আটককৃত অপর পরীক্ষার্থীর বিষয়ে রাবি আইসিটি সেন্টার থেকে প্রাপ্ত তথ্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী কর্তৃপক্ষ যাচাই-বাছাই করছে।

প্রক্সির বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক বলেন, পরীক্ষার কেন্দ্রে কয়েকজনকে নিয়ে সন্দেহ হলে তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞেসাবাদ করা হয়। পরে আইসিটি সেন্টারে নিয়ে তাদের তথ্য যাচাই-বাছাই করলে প্রক্সির বিষয়টি জানা যায়। ইতোমধ্যে তাদেরকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে এবং তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থার কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে বলেন, ‘এ’ ইউনিটের গ্রুপ-১ নিবন্ধিত পরীক্ষার্থী ছিল ১৮ হাজার ১৭ ও গ্রুপ-২, গ্রুপ-৩ এবং গ্রুপ-৪ এ ছিল ১৮ হাজার ১৬ জন কওে শিক্ষার্থী। পরীক্ষাসমূহে উপস্থিতির হার ছিল প্রায় ৮৭ শতাংশ।

এদিকে এদিন সকাল সাড়ে ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন কমপ্লেক্সের সামনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে ক্যাম্পাসের নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা নিয়ে রাবি উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার বলেন, ক্যাম্পাসে সকলের নিরাপত্তায় সর্বদা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে কাজ করছে প্রক্টরিয়াল টিম। ক্যাম্পাসের ভেতরে ট্র্যাফিক নীতিমালা রক্ষা ও যেকোনো অনিয়ম রোধে সকলে তৎপর রয়েছে। এসময় সার্বিক বিষয়ে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্যদ্বয় অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম ও অধ্যাপক হুমায়ুন কবীর, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আবদুস সালাম, প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম সাউদ ও জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে প্রমূখ।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ভর্তি পরীক্ষার তৃতীয় দিনে আজ বুধবার ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ৬টি বিভাগ ও ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটভ্ক্তু 'বি' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এতে অংশগ্রহন করবে ৩০ হাজার ৬৭৫ জন শিক্ষার্থী। এর আগে গত সোমবার বিশ্ববিধ্যালয়টির বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়।

প্রসঙ্গত, এবারে কোটাসহ ৪ হাজার ৪৬৭ টি আসনের বিপরীতে ভর্তি পরীক্ষায় বসবে মোট ১ লাখ ৭৮ হাজার ৫৯১ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে পুরুষ আবেদনকারীর সংখ্যা ১ লাখ ৮৩৮টি এবং নারী আবেদনকারীর সংখ্যা ৭৭ হাজার ৭৫৩টি। এবার একক আবেদনকারীর সংখ্যা ১ লাখ ৫৫ হাজার ৮১৬ টি। ৮০টি বহুনির্বাচনী প্রশ্নে ১০০ নম্বরের এই ভর্তি পরীক্ষা এক ঘণ্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে। এতে চারটি ভুল উত্তরের জন্য ১ নম্বর কাটা হবে।

;

রাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সির অভিযোগে আটক ৩



রাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের কলা, আইন, সামাজিক বিজ্ঞান ও চারুকলা অনুষদ এবং শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটভুক্ত 'এ' ইউনিটের প্রথম শিফটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি দেয়ার অভিযোগে তিন জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত প্রত্যেককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র্যাব অফিসে নেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ মে) দুপুরে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে।

তিনি বলেন, ভর্তি পরীক্ষায় যে কোন অনিয়ম প্রতিরোধে শক্ত অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন। কেন্দ্রগুলোতে সর্বদা শিক্ষকগণ তদারকি করছেন। প্রথম শিফটে এসব শিক্ষার্থীর মধ্যে অসঙ্গতি দেখতে পাওয়ায় তাদের আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা প্রক্সির বিষয়টি স্বীকার করেছেন। এঘটনার সার্বিক বিষয় খতিয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

জানা গেছে, আজ চার শিফটে 'এ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে। সকাল ৯টায় অনুষ্ঠিত প্রথম শিফটে প্রক্সি দিতে এসে স্যার জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনে আটক হন মোহাম্মদ হোসাইন। তিনি আল হাসান সিয়াম (রোল- ২১৬০২) পরিবর্তে প্রক্সি দেন। একই ভবনের ৩৩৭ নং কক্ষের মো. আব্দুর রাকিবও (রোল- ৪০৯৪৩) আটক হয়েছেন। তিনি অন্যকে দিয়ে প্রক্সি দেওয়ানোর উদ্দেশ্যে নিজের এডমিট কার্ডের ছবি পরিবর্তন করেছিলেন। এছাড়া কৃষি অনুষদ ভবনে তানভীর আহমেদের (রোল- ২৪০৯৬) পরিবর্তনে প্রক্সি দিয়ে আটক হন স্বপন হোসাইন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের ২০১৮-১৯ সেশনের শিক্ষার্থী। এছাড়া সন্দেহজনক অবস্থায় আরও দুজনকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর দপ্তরে নিয়ে আসা হয়েছে। প্রক্টরে দপ্তরে তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ চলছে বলে জানা গেছে। 

রাজশাহী মেট্রোপলিটনের উপ-পুলিশ কমিশনার বিজয় বসাক বলেন, গতবারেও ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে এমন কয়েকজন আটক হয়েছিল। তাই এবার নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা চলছে।

প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক বলেন, যদি প্রক্সি অভিযোগ প্রমাণিত হয়। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি অনুয়ায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। একই সঙ্গে প্রত্যেকের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ মামলা করবে। এক্ষেত্রে কোন ছাড় নেই।

;