অধ্যক্ষকে পানিতে ফেলার মামলার মূল আসামিসহ গ্রেফতার ৪

স্টাফ করেসপন্ডেট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, রাজশাহী
অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিতের ঘটনায় জড়িতরা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিতের ঘটনায় জড়িতরা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহী পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে টেনেহিঁচড়ে পানিতে ফেলার ঘটনায় নেতৃত্ব দেয়া ছাত্রলীগ নেতা কামাল হোসেন সৌরভসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছ গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের বিশেষ টিম।

সোমবার (১৮ নভেম্বর) রাতে নগরীর বেলপকুর থানার বিসমিল্লাহ পেট্রোল পাম্প এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মামলার প্রধান আসামি কামাল হোসেন সৌরভ, দুই নম্বর আসামি মুরাদ, তিন নম্বর আসামি শান্ত ও ছয় নম্বর আসামি সালমান ওরফে টনি। এনিয়ে মামলায় ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

অধ্যক্ষকে পানিতে ফেলার ঘটনার নেতৃত্ব দেয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা

রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার আবু আহম্মেদ আল আমুন বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, ঘটনার পর থেকে আসামিরা পলাতক ছিলেন। দফায় দফায় তারা অবস্থান বদল করে আত্মগোপন করায় তাদের অবস্থান নিশ্চিত হতে কিছুটা সময় লেগেছে। তবে সোমবার রাতে তারা বেলপুকুর থানার বিসমিল্লাহ পেট্রোল পাম্প এলাকায় আত্মগোপন করে আছেন, এমন তথ্যে সেখানে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের নগরীর চন্দ্রিমা থানায় হস্তান্তর করা হবে।

জানা যায়, অন্যায় আবদার না মানায় গত ২ নভেম্বর নামাজ পড়ে কার্যালয়ে ফেরার সময় অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে রাস্তা থেকে টেনেহিঁচড়ে পুকুরে ফেলে দেয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। ওই ঘটনায় নগরীর চন্দ্রিমা থানায় ৮ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৫০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন অধ্যক্ষ।

আপনার মতামত লিখুন :