করোনা, ভ্যাকসিন, বার্ড ফ্লু



ড. মাহফুজ পারভেজ, অ্যাসোসিয়েট এডিটর, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

চলমান বৈশ্বিক মহামারিকালে ইউরোপে করোনার 'নতুন ধরনের' উদ্ভবের মধ্যেই দেশে দেশে ভ্যাকসিন প্রদানের কাজও শুরু হয়েছে। অনেক দেশ একই সঙ্গে লকডাউন ও সামাজিক-স্বাস্থ্যবিধি কঠোরতর করার সঙ্গে সঙ্গে ধাপে ধাপে ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রক্রিয়াও চালাচ্ছে।

বিভিন্ন কোম্পানির ভ্যাকসিন, দাম, কার্যকারিতার হার, ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া সম্পর্কিত আলাপ-আলোচনাও বিশেষজ্ঞ-বৈজ্ঞানিক মহলের সীমানা পেরিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে চলে এসেছে। ফলে ভ্যাকসিন সম্পর্কে মোটামুটি সবাই ওয়াকেবহাল। ভ্যাকসিনের দাম ও মান, উৎপাদনকারী ও ব্যবসায়ী সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা সর্বমহলে প্রচারিত ও প্রকাশিত হওয়ায় এক্ষেত্রে দামের কারচুপি করা বা মানহীন ভ্যাকসিন গছানোর পথ অনেকাংশেই রুদ্ধ।

তথাপি 'দুরাত্মার ছলের অভাব হয়না' এবং স্বচ্ছতার আবরণে 'নয়-ছয় করার' লোকেরও অভাব হয়না। সাহেদ, সারবিনা, পিকে হালদারগণ আস্তিনের লুকনো সাপের মতোই নিত্য ওৎ পেতে থাকে এবং সুযোগ পেলেই অসৎদের নিয়ে দল পাকিয়ে ছোবল মারতে উদ্যত হয়। ফলে জনস্বাস্থ্য ও জনস্বার্থে এহেন 'জীবন-মরণ' ইস্যুতে পরিপূর্ণ সততা, সতর্কতা ও সাধুতা অপরিহার্য।

আরেকটি বিষয়ও বেশ উদ্বেগের কারণে পরিণত হয়েছে। করোনার মধ্যেই প্রতিবেশী ভারতের কোনো কোনো রাজ্যে বার্ড ফ্লু আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। প্রাপ্ত তথ্যে, ইতিমধ্যে ভারতের ৯ রাজ্যে বার্ড ফ্লু ছড়িয়ে পড়েছে। রোগটি প্রথমে রাজস্থানের পোলট্রি ফার্মে শুরু হয়েছিল, যা পাশে অবস্থিত রাজধানী শহর দিল্লিতে ছড়ায় এবং বহু কাক ও হাঁস মারা যায়।

বার্ড ফ্লু সংক্রমণের খবরে ভারতে ব্রয়লার মুরগির ব্যবসায় ইতিমধ্যেই প্রভাব দেখা দিয়েছে। দাম কমছে মুরগীর মাংস ও ডিমের। যদিও চিকিৎসকদের মতে, রান্না মাংস বা ডিমে ফ্লুর কোনও ভয় নেই। এমন গুজবও ছড়িয়েছিল যে, ব্রয়লার মুরগি খেলে করোনা হয়। ফের বার্ড ফ্লু আতঙ্কে মুরগি ও ডিমের ব্যবসায় নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

চীনের করোনা যেভাবে ক্রমে ক্রমে বিশ্বময় ছড়িয়েছে, তাতে যেকোনো স্বাস্থ্য সমস্যায় জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের অতিরিক্ত সতর্ক থাকতে হচ্ছে। দেখতে হচ্ছে, রোগটি যেন অগোচরে এসে হানা না দেয়। আবার এটাও লক্ষ্য রাখতে হয়, যাতে রোগটি সম্পর্কে গুজব ও মিথ্যা তথ্য না ছড়ায়।

ভারতের বার্ড ফ্লু সম্পর্কে এখন থেকেই পর্যবেক্ষণ, নজরদারি ও মনিটরিং দরকার। কারণ, পোল্ট্রি ব্যবসার সঙ্গে যেমন লক্ষ লক্ষ মানুষ জড়িত, তেমনি কোটি কোটি মানুষ পোল্ট্রি থেকে প্রাপ্ত ডিম, মাংসের উপর নির্ভরশীল। ফলে এর সঙ্গে মানুষের আর্থিক জীবন এবং জীবনধারণ ও স্বাস্থ্যের ইস্যু জড়িত। করোনার বিপদের মধ্যে নতুন কোন বিপদ যেন আর্থিক ও স্বাস্থ্যগত দিক থেকে মানুষকে আরো বিপর্যস্ত করতে না পারে, সেজন্য সংশ্লিষ্টদের পক্ষ থেকে আগাম সতর্কতা ও প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করা অপরিহার্য। 

সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, বার্ড ফ্লু সংক্রমণ ও বিস্তার রোধে সীমান্ত দিয়ে যাতে হাঁস-মুরগি ও পাখি জাতীয় প্রাণী প্রবেশ করতে না পারে সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্র, বাণিজ্য এবং নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

সম্প্রতি ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে বার্ড ফ্লু রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়া এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।