বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল কিশোরী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নিবার্হী অফিসার (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পঙ্কজ বড়ুয়ার হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে লিজা বেগম (১৪) নামে এক কিশোরী।

বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নে সুতিয়ারা এলাকায় কনের বাড়িতে গিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বাল্যবিয়ে বন্ধসহ বরকে এক মাসের কারাদণ্ড দেন পঙ্কজ বড়ুয়া। লিজা বেগম ওই এলাকার মো. হাবিবুর রহমানের মেয়ে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নিবার্হী অফিসার (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পঙ্কজ বড়ুয়া জানান, দুপুরে লিজা বেগমের সঙ্গে মজলিশপুর ইউনিয়নের দারমা এলাকার তাহের মিয়ার ছেলে রহমত মিয়ার (২২) বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষয়টি জানতে পেরে ওই বাড়িতে গিয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়। অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে বিয়ে করতে চাওয়ায় বিকেলের দিকে বর রহমত মিয়াকে এক মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়। মেয়ে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবে না মর্মে পরিবারে কাছ থেকে মুচলেকা আদায় করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :