পটুয়াখালীতে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, পটুয়াখালী
ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

  • Font increase
  • Font Decrease

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে খুনের দায়ে স্বামী মো. ফেরদৌস হাওলাদারের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পটুয়াখালীর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক একেএম এনামুল করিম এ ররায় ঘোষণা করেন।

মামলার বরাদ দিয়ে রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী কমল দত্ত জানান, ২০১৩ সালের ৪ আগস্ট পারিবারিক কলহের জের ধরে কলাপাড়া উপজেলার নওয়াপাড়ায় স্বামী ফেরদৌসের হাতে খুন হন সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা আয়েশা বেগম। এ ঘটনায় আয়েশার বাবা ইউনুচ হাওলাদার বাদী হয়ে তার স্বামী ফেরদৌস, শ্বশুর আব্দুল খালেক, শ্বাশুড়ি রোকেয়া বেগমসহ পাঁচজনকে আসামি করে কলাপাড়া থানায় মামলা করেন।

তিনি আরও জানান, ওই বছরের ১০ অক্টোবর পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম ফেরদৌসকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। পরে ফেরদৌস আদালতে হাজির হলে তাকে জেলে পাঠানো হয়। আদালত ওই মামলায় ১৮ জনের স্বাক্ষী গ্রহণ শেষে ফেরদৌসকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন।

আপনার মতামত লিখুন :