জমির দাম না পেয়ে উজ্জ্বলের অভিনব প্রতিবাদ

ডিস্ট্রিক করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, নাটোর
নাটোর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে উজ্জ্বল, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর

নাটোর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে উজ্জ্বল, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর

  • Font increase
  • Font Decrease

উচ্চ আদালতের নির্দেশ সত্ত্বেও উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক অধিগ্রহণ করা জমির মূল্য ১৪ বছরেও না পেয়ে তারেকুজ্জামান উজ্জ্বল নামের এক ব্যক্তি অভিনব পন্থায় প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে নাটোর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে তিনি গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে দাঁড়িয়ে থাকেন। উজ্জল লালপুর উপজেলার গোপালপুর এলাকার বাসিন্দা।

উজ্জ্বল অভিযোগ করে বলেন, ২০০৫ সালে লালপুর উপজেলা পরিষদ দফতর স্থাপনের সময় সরকার তার ৭৩ শতক জমি অধিগ্রহণ করে। সেসময় ২০ শতক জমির মূল্য বাবদ তিনি ২৩ লাখ ৪৯ হাজার ৯৯৯ টাকা বুঝে পান। কিন্তু বাকি ৫৩ শতক জমির মূল্য ৬২ লাখ ২৭ হাজার ৪৫০ টাকা আজও বুঝে পাননি।

বিষয়টি নিয়ে উজ্জ্বল উচ্চ আদালতে রিট করলে আদালত জমির মূল্য পরিশোধ অথবা জমি ফেরত দেয়ার নির্দেশ দেন। এই নির্দেশ না মানায় হাইকোর্ট পুনরায় ২০১৭ সালে ৫ ডিসেম্বর বিবাদীদের বিরুদ্ধে কেন আদালত অবমাননায় ব্যবস্থা নেয়া হবে না তা ৪ সপ্তাহের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলেন। কিন্তু এখনো তিনি জমির মূল্য বুঝে পাননি।

উজ্জ্বল বলেন, ১৪টি বছর ধরে নাটোর আদালত ও কালেক্টরেট ভবনে ধর্না দিচ্ছি। কিন্তু কোন কাজই হয়নি। আর কোনো উপায় না দেখে এইভাবে প্রতিবাদে জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

উজ্জ্বলের অভিনব প্রতিবাদ, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

এ বিষয়ে নাটোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শরিফুন্নেছা বলেন, এই জমি অধিগ্রহণের কোন বরাদ্দ ছিল না। কোর্ট নোটিশ পাওয়ার পর বরাদ্দের জন্য উচ্চ পর্যায়ে আবেদন করে বরাদ্দ নেওয়া হয়েছে। জমি অধিগ্রহণের কাজ প্রায় শেষের দিকে। অল্পদিনের মধ্যে তিনি ক্ষতিপূরণের টাকা পেয়ে যাবেন।

তিনি আরও বলেন, মালিকানা সংক্রান্ত আইনগত জটিলতার কারণে দাবিকৃত জমির উপরে উপজেলার স্থাপনা তৈরি করা হলেও জমি অধিগ্রহণ করা হয়নি।

আপনার মতামত লিখুন :