কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, কুষ্টিয়া
ছবি: সংগৃৃহীত

ছবি: সংগৃৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

কুষ্টিয়ায় আলম শেখ নামের এক ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে তিন জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) দুপুরে জেলা দায়রা জজ অরুপ কুমার গোস্বামী এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- কুমারখালি উপজেলার বাগুলাট এলাকার মো. মিরাজ উদ্দিন বিশ্বাসের ছেলে মো. ইয়ার আলী, একই এলাকার মো. নিয়ামত আলীর ছেলে মো. রেজাউল ইসলাম (পলাতক) এবং দমদমা এলাকার মৃত সুরুজ আলী শেখের ছেলে মো. শফিকুল ইসলাম ওরফে শফি।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালের ৩ মার্চ দুপুরে বাই-সাইকেলযোগে বাঁশগ্রাম বাজারে যান আলম শেখ। পরদিন সকালে বাগুলাট গ্রামের ডা. দুলালের বাড়ির উত্তর দিকে মেহগনি বাগানে তার তার গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

পরদিন আলম শেখের স্ত্রী মোছা. সবুরা খাতুন বাদী হয়ে ইয়ার আলীকে প্রধান আসামি করে কুমারখালি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলায় উল্লেখ করেন, হত্যাকাণ্ডের এক মাস পূর্বে আসামি মো. ইয়ার আলী একটি বিবাহিত মেয়েকে বিয়ে করার জন্য তার বাড়িতে নিয়ে আসেন। কয়েকদিন থাকার জন্য প্রস্তাব করেন। একদিন থাকার পর মেয়েটিকে তিনি, তার স্বামী ও দেবর মো. মাসুদ শেখ চলে যেতে বললে ইয়ার আলী তার স্বামীর প্রতি ক্ষুব্ধ হয়। এ কারণে আসামি মো. ইয়ার আলীসহ আরও অজ্ঞাতনামা কয়েকজন সন্ত্রাসী তার স্বামীকে খুন করেছেন।

দীর্ঘ তদন্ত শেষে আদালত এ রায় দেন।

আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট অনুপ কুমার নন্দী জানান, আসামি তিনজনকে দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে প্রত্যেককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও এক বছর করে সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :