হবিগঞ্জের নিহতদের ১৫ হাজার টাকা করে দেবে প্রশাসন

  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবাতে ট্রেন দুর্ঘটনা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, হবিগঞ্জ
ঘটনাস্থলে উৎসুক জনতার ভিড়, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ঘটনাস্থলে উৎসুক জনতার ভিড়, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় ট্রেন দুর্ঘটনায় ১৬জন নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন ৭৪ জন। এর মধ্যে হবিগঞ্জের দুই শিশুসহ আটজন নিহত এবং আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন আরও ১৮ জন।

হবিগঞ্জের নিহতরা হলেন- হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি আলী মো. ইউসুফ, হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলা গ্রামের ইয়াসিন আরাফাত, গোপায়া গ্রামের রিপন মিয়া, বানিয়াচং উপজেলার মুরাদপুর গ্রামের আল-আমিন, বড়বাজার গ্রামের সোহেল মিয়ার শিশু মেয়ে আদিবা, চুনারুঘাট উপজেলার উলুকান্দি গ্রামের রুবেল মিয়া তালুকদার, পীরেরগাঁও গ্রামের সুজন মিয়া ও নবীগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের নজরুল মিয়া। তারা সবাই উদয়ন ট্রেনের যাত্রী ছিলেন।

এদিকে, ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১৬ জনের পরিবারকে সরকারের পক্ষ থেকে এক লাখ ২৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। এছাড়া শুধুমাত্র হবিগঞ্জের নিহত আটজনের পরিবারকে জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে ১৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. কামরুল হাসান।

তিনি বলেন, ‘হবিগঞ্জের যে কজন নিহত হয়েছেন তাদের পরিবারকে ১৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। এর বাইরেও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে যতটুকু সম্ভব সহযোগিতা করা হবে।’

এর আগে মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) রাত ৩টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশনের ক্রসিংয়ে আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ও তূর্ণা নিশিতা ট্রেনের মধ্যে সংঘর্ষে ১৬ জন নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হন আরও অন্তত ৭৪জন যাত্রী।

আপনার মতামত লিখুন :

  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবাতে ট্রেন দুর্ঘটনা