বালিয়াকান্দিতে প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণের দায়ে মামলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, রাজশাহী
বালিয়াকান্দি থানা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

বালিয়াকান্দি থানা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে এক শ্রবণ প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ এনে আলমগীর শেখ (৩৫) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৪) নভেম্বর রাতে থানায় মামলা দায়ের করেছেন ধর্ষিতার ভাই। আসামি আলমগীর শেখ ইসলামপুর ইউনিয়নের হুলাইল গ্রামের মৃত সোনা মিয়া ওরফে রশিদ মাস্টারের ছেলে।

প্রতিবন্ধী ধর্ষণের মামলার বিষয়টি বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে নিশ্চিত করেছেন, বালিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম আজমল হুদা।

ধর্ষিতার ভাই মামলার বাদী আছাদুজ্জামান খান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, 'আমার বোন একজন শ্রবণ প্রতিবন্ধী। দীর্ঘ ছয় মাস ধরে সে (আলমগীর শেখ) আমার বোনকে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়ে আসছে। অক্টোবর মাসের ২৫ তারিখে রাতে আলমগীর জোর করে আমার বোনের সঙ্গে দৈহিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়লে সে চিৎকার করে কাঁদতে থাকলে আমরা ও প্রতিবেশীরা দৌড়ে এগিয়ে গিয়ে তাকে আপত্তিকর অবস্থায় হাতেনাতে ধরে ফেলি।'

তিনি আরও বলেন, 'তখন আলমগীরের মামা মোয়াজ্জেম মন্ডলসহ স্থানীয়রা মীমাংসা করে দেবে বলে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। কিন্তু তারা আর কোনো বিচার করেনি। হঠাৎ করে এখন আমার বোন অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে ডাক্তার জানান, সে গর্ভবতী। এখন আমরা কোনো উপায় না পেয়ে আইনের আশ্রয় নিলাম।'

বালিয়াকান্দি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম আজমল হুদা বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, 'বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। গতমাসে ঘটনাটি ঘটার পর আসামিকে হাতেনাতে আটক করে মেয়েটির স্বজনরা। কিন্তু আসামির স্বজন এবং স্থানীয়রা গ্রাম্য সালিশের কথা বলে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। এখন আসামি পলাতক রয়েছে। আমরা আসামিকে গ্রেফতারের জন্য বিশেষ অভিযান চালাব।'

ধর্ষণের শিকার ওই শ্রবণ প্রতিবন্ধীকে মেডিকেল ও ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জবানবন্দি দেওয়ার জন্য রাজবাড়ী আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :