হিলিতে লাগামহীন পেঁয়াজের দাম, ভারতে আটকে আছে কোটি কোটি টাকার এলসি

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, হিলি (দিনাজপুর)
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে বেড়েই চলছে পেঁয়াজের দাম। কোনোভাবেই কমছে না। দেশীয় পেঁয়াজের সঙ্গে মিয়ানমারসহ কয়েকটি দেশ থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ বাজারে আসলেও দাম নিয়ন্ত্রণে আসেনি।

শুক্রবার(১৫ নভেম্বর) সকাল পর্যন্ত বাজারে কোনো প্রভাব ফেলতে পারেনি এ আমদানিকৃত পেঁয়াজ।

এদিকে নিত্য প্রয়োজনীয় এই পণ্যটির আমদানিতেও সুখবর পাচ্ছেন না হিলি স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীরা। ফলে ভারতের পেঁয়াজ ছাড়াই দেশের উৎপাদিত পেঁয়াজেই ভোক্তাদের চাহিদা মেটাতে হচ্ছে কম-বেশি।

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীরা বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, অভ্যন্তরীণ সঙ্কট দেখিয়ে গত ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত সরকার। এরপর থেকে বাড়তে থাকে ভারতীয় পেঁয়াজের পাশাপাশি দেশীয় পেঁয়াজের দামও। শুক্রবার পর্যন্ত গত দেড় মাসের ব্যবধানে কেজিতে ১৪০ টাকা করে বেড়েছে। বর্তমানে হিলি স্থলবন্দর সহ আশ-পাশের হাট-বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজ প্রতি কেজি প্রকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ১৮০-২০০ টাকায়। আর পাতাসহ দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৮০-১০০ টাকার মধ্যে।

হিলি স্থলবন্দরের ব্যবসায়ী মো. মোবারক হোসেন বলেন, আমরা অনেক ব্যবসায়ী এখন অলস বসে আছি। প্রতিদিনই ভারতের ব্যবসায়ীদের সাথে যোগাযোগ করছি। কিন্তু বাংলাদেশে আমদানিতে কোনো সুখবর পাচ্ছি না। বর্তমানে আমরা পেঁয়াজের আমদানি করার চিন্তাটা মাথা থেকে বাদ দিয়েছি। তবে বাজার নিয়ন্ত্রণ এবং আমদানি বাড়াতে আমাদের দেশের সরকারের দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া দরকার। না হলে বাজারে পেঁয়াজের দাম অনেক বেড়ে যাবে। শুধু মিয়ানমার থেকে সামান্য পেঁয়াজ আমদানি করে বাজার সামাল দেওয়া কোনো ভাবেই সম্ভব নয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান, হিলি স্থলবন্দরের অন্তত ৮-১০ জন ব্যবসায়ী তাদের পুরনো এলসির পেঁয়াজ ভারত থেকে আমদানি করতে না পারায় ভারতে কয়েক কোটি টাকা আটকে গেছে। এতে করে ব্যবসায়ীরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।

হিলি বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা হবিবর রহমান এবং ডুগডুগী বাজারের আজিজ হোসেন বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, প্রতিদিনই যেভাবে পেঁয়াজের দাম বাড়ছে, তাতে তরকারিতে আর পেঁয়াজ দিয়ে খেতে হবে না।

আপনার মতামত লিখুন :