গাইবান্ধার বাজারে পাতা পেঁয়াজ, কমছে দাম

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, গাইবান্ধা
গাইবান্ধার বাজারে পাতা পেঁয়াজ ও এলসি পেঁয়াজ, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

গাইবান্ধার বাজারে পাতা পেঁয়াজ ও এলসি পেঁয়াজ, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

গাইবান্ধার হাট-বাজারে আসতে শুরু করেছে পাতা পেঁয়াজ। এতে দাম কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের। একদিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম কেজিতে কমেছে ৬০ টাকা।

রোববার (১৭ নভেম্বর) গাইবান্ধার জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে ঘুরে দেখা যায়, এলসি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৯০ টাকায় ও পাতা পেঁয়াজের দাম ৭০ টাকা।

এর আগে, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে বাজারে অস্বাভাবিক হারে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। ২৫০ টাকা পর্যন্ত ছাড়ায় পেঁয়াজের দাম। পেঁয়াজের বাজারে এমন অস্বাভাবিকতার ফলে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে সকল শ্রেণির ক্রেতাদের। বিশেষ করে খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষের সংসারে টান পড়েছে। অনেকেই রান্না করেছেন পেঁয়াজ ছাড়া।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কৃষকরা বাজারে অতিরিক্ত পেঁয়াজের দাম দেখে জমিতে লাগানো পেঁয়াজ তোলতে শুরু করেছেন। সেই সঙ্গে পেঁয়াজের বাজারে নিয়মিত অভিযান চালাচ্ছে প্রশাসন। এছাড়া সরকারের উদ্যোগে কার্গো বিমানেও আসছে পেঁয়াজ। এতে করেই পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে।

দাম কমের কথা স্বীকার করে আজাদুল ইসলাম নামের এক ক্রেতা জানান, এখনো পাতা পেঁয়াজের কেজি ৭০ টাকা ও ভারতীয় পেঁয়াজ ১৯০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এতেও সন্তুষ্টি নয় তিনি। সব ধরেনের পেঁয়াজ ৫০ টাকা কেজিতে দাবি জানান তিনি।

কৃষক নুরুন্নবী আকন্দ জানান, সম্প্রতি পেঁয়াজের দাম বেশি হওয়ায় একটু অসময়ে ক্ষেত থেকে পেঁয়াজ তোলা হচ্ছে। পাইকারি বাজারে দেশি পাতা পেঁয়াজ ৬০-৬৬ টাকা বিক্রি করে লাভ পাওয়া যাচ্ছে।'

গাইবান্ধা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক ড. এসএম ফেরদৌস বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে জানান, পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণ রাখতে বাজার মনিটরিং করা হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :