মজুদ আছে, তবুও কুষ্টিয়ায় বেড়েছে চালের দাম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, কুষ্টিয়া
চালের বস্তা। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

চালের বস্তা। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

মনিটরিং ব্যবস্থা না থাকায় কুষ্টিয়ায় চালের দাম বেড়েছে। মূলত কুষ্টিয়ার চালের বাজার নিয়ন্ত্রণ করছেন এখানকারই ৪৬ অটো চালকল মালিক। তারা একটি সিন্ডিকেট তৈরি করে নানা অজুহাতে চালের দাম বাড়িয়ে দিয়ে লুটে নিচ্ছেন কোটি কোটি টাকা।

জানা গেছে, গত কয়েকদিনের ব্যবধানে কুষ্টিয়া মোকামে সব ধরনের চালে কেজিতে ১ থেকে ৩ টাকা বেড়েছে। আড়তে চাল সংকট দেখিয়ে দাম বাড়িয়ে দিচ্ছেন অনেক মিল মালিক। অথচ কুষ্টিয়া মোকামে গত এক সপ্তাহে ১০ হাজার টন চাল মজুদ আছে বলে তথ্য রয়েছে মিল মালিক ও জেলা প্রশাসনের কাছে। তারপরও দাম বাড়ানোর বিষয়টি পুরোপুরি অযৌক্তিক বলে জানান খুচরা ব্যবসায়ী ও ভোক্তারা। কুষ্টিয়া থেকে বিভিন্ন জেলায় চাল সরবরাহ করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ধানের দাম বৃদ্ধি ও মোকামে চাল সংকটের অজুহাতে নতুন করে সব ধরনের চালে কেজিতে ১ থেকে ৩ টাকা বাড়িয়ে দিয়েছেন মিল মালিকরা। এছাড়া গত এক সপ্তাহে পরিবহন ধর্মঘট চলায় কুষ্টিয়া মোকাম থেকে চাল সরবরাহ নিম্ন পর্যায়ে চলে আসে। এই কারণে অটো ও হাসকিং মিলগুলোতে প্রচুর চাল জমে যায়। যার পরিমাণ ১০ হাজার টনের বেশি। এরপরেও চালের দাম বাড়ানো হয়েছে।

কুষ্টিয়া পৌর বাজারের চালের ব্যবসায়ী শাপলা ট্রেডার্সের মালিক আশরাফুল ইসলাম জানান, চালের বাজার কয়েকদিন ধরে স্থিতিশীল ছিল। নতুন করে গতকাল শনিবার সকাল থেকে মিল গেটে ফের দাম বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। মিলের লোক এসেছিল। নতুন দাম নির্ধারণ করে লিখে দিয়ে গেছে। মূলত সিন্ডিকেটের কারণে দাম বাড়ে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, নতুন করে মিনিকেট এক টাকা বেড়ে ৫০ কেজির প্রতি বস্তা দুই হাজার ৩০০ টাকা, বাসমতি এক টাকা বেড়ে দুই হাজার ৫০০ টাকা, কাজললতা এক হাজার ৮৫০ টাকা, আঠাশ এক হাজার ৯৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেন বলেন, ‘মিল মালিকদের ডেকে চালের দাম না বাড়াতে অনুরোধ করেছি। যৌক্তিক কোনো কারণ না থাকলেও তারা দাম বাড়িয়ে দিচ্ছেন। অটো মিল মালিকরা এ কাজটি করছেন। তাদের বিরুদ্ধে বড় ধরনের অভিযান পরিচালনা করা হবে। মোকামে ধান ও চালের মজুদের বিষয়টি নজরদারিতে আছে। এছাড়া তারা অন্য কোথাও গোডাউনে চাল মজুদ করেছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

আপনার মতামত লিখুন :