বিএনপি ধ্বংসে আত্মবিনাশী বিএনপিই যথেষ্ট: কাদের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, কুষ্টিয়া
সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছেন ওবায়দুল কাদের, ছবি: বার্তা২৪.কম

সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছেন ওবায়দুল কাদের, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপিকে নিয়ে বিচলিত হওয়ার কিছু নেই। তারা বলে র‌্যাব, পুলিশ দিয়ে তাদের রাজনীতি ধ্বংস করা হচ্ছে। তাদের রাজনীতি ধ্বংসে র‌্যাব, পুলিশ লাগবে না এজন্য আত্মবিনাশী বিএনপিই যথেষ্ট।

বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) বিকেলে কুষ্টিয়া ইসলামিয়া কলেজ মাঠে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

‘র‌্যাব, পুলিশ দিয়ে নির্যাতন করে সরকার বিএনপিকে ধ্বংস করতে চায়’-বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে কাদের বলেন, আমরা র‌্যাব-পুলিশ নিয়ে রাজনীতি করি না। আমাদের ক্ষমতার উৎস বাংলাদেশের জনগণ। বিএনপি আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে এখন ইস্যু খুঁজে বেড়াচ্ছে। বিএনপি এখন বাংলাদেশ নালিশ পার্টিতে পরিণত হয়েছে। বিদেশিদের কাছে নালিশ, প্রেস ব্রিফিংয়ে নালিশ। নালিশই এখন বিএনপির একমাত্র অবলম্বন।

তিনি বলেন, রাজনীতিতে, আন্দোলনে, জনগণের সাড়া না পেয়ে এখন তারা ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে। দুই দিন আগে আদালতকে তারা কলুষিত করেছে, পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে। এই বিএনপি আইন মানে না, আদালত মানে না, বিচার মানে না।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তিনি এখন বিশ্বের ১০ প্রভাবশালী রাষ্ট্রনায়কের একজন, দুইজন সেরা প্রধানমন্ত্রীর একজন। গত ৪৪ বছরে সবচেয়ে সৎ রাজনীতিক, দক্ষ শাসক, সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রধানমন্ত্রী তিনি। তার কর্মী হয়ে আমরা কোনো অপকর্ম করতে পারি না। কেননা আমাদের একটা আচরণের আবরণে ১০টি উন্নয়নের কাজ ঢেকে যাবে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, দলের ভেতরে কোন্দল সৃষ্টি করা যাবে না। দল ভারী করার জন্য আপনারা খারাপ লোক, সুবিধাবাদী লোকজনকে ভেড়াবেন না। ঘরের ভেতরে ঘর, মশারির ভেতরে মশারি টাঙাবেন না। নেতৃত্বে যাতে মৌসুমী পাখিরা না আসতে পারে সেদিকে নজর রাখবেন। দুর্দিনে এইসব মৌসুমী নেতারা সব হিমালয় কৈলাশ পর্বতে পালিয়ে যাবে। তখন পাঁচ হাজার ওয়াটের বাল্ব জ্বালিয়েও তাদের খুঁজে পাওয়া যাবে না।

সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে সদর উদ্দিন খান এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আজগর আলী পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। ওবায়দুল কাদের তাদের নাম ঘোষণা করেন।

এছাড়াও দলের সহ-সভাপতি হিসেবে হাজী রবিউল ইসলাম ও জাহিদ হোসেন জাফর, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মানিক ঘোষ ও ১নং সদস্য আনোয়ার আলীর নাম ঘোষণা করেন তিনি।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দিন খানের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, সম্পাদক আব্দুর রহমান, জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন (এমপি), জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য পিযুষ কান্তি ভট্টাচার্য্য, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এসএম কামাল হোসেন, পারভীন জামান কল্পনা, বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র ও বাগেরহাট-২ (সদর-কচুয়া) আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য শেখ সারহান নাসের তন্ময়, কুষ্টিয়া-১ আসনের সাংসদ আকাম সরওয়ার জাহান বাদশা, কুষ্টিয়া-৪ আসনের সাংসদ ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ।

এর আগে জাতীয় সংগীত পরিবেশন, জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও পায়রা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :