সিরাজগঞ্জে ব্রিজ দেবে উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে যান চলাচল ব্যাহত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সিরাজগঞ্জ
ডেবে যাওয়া সেতু, ছবি: বার্তা২৪.কম

ডেবে যাওয়া সেতু, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জের ভূইয়াগাঁতি এলাকায় পুরাতন একটি ব্রিজের পাটাতন ভেঙ্গে দেবে যাওয়ায় ব্রিজটি দিয়ে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

এতে উত্তরাঞ্চলের ৯ জেলা বগুড়া, রংপুর, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, গাইবান্ধা, নীলফামারী, সৈয়দপুর, কুড়িগ্রাম, পঞ্চগড় এবং ঢাকার মধ্যে যানবাহনগুলোকে বিকল্প পথ ব্যবহার করতে হচ্ছে। যার ফলে মহাসড়কটি ব্যবহার করা যানবাহনগুলোকে দীর্ঘ পথ ঘুরে চলাচল করতে হচ্ছে। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ যাত্রীরা।

সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আশরাফুল ইসলাম প্রমানিক জানান, নিরাপত্তার কারণে বুধবার সন্ধ্যা ৬টার পর থেকে ভূইয়াগাঁতি ব্রিজটি দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এ মহাসড়কে চলাচলকৃত যানবাহনগুলোকে বিকল্প পথে চলাচল করার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। আমরা আশা করছি ভোরের মধ্যে বিকল্প সড়কটি নির্মাণ হয়ে গেলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসবে।

তিনি আরও বলেন, ৪-৫ দিন আগে পুরাতন ব্রিজটির পাটাতন ৫ থেকে ৬ ইঞ্চি দেবে গিয়েছিলো। ওই অবস্থাতেই যানবাহন চলাচল অব্যাহত ছিল। কিন্তু বুধবার ভোরে ব্রিজটির একটি পাটাতন ২-৩ ফুট দেবে যায়। ওই অবস্থায় দিনভর ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করতে দেওয়া হলেও সন্ধ্যার পর ব্রিজটি দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়।

সেতু ডেবে যাওয়ায় মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট, ছবি: বার্তা২৪.কম

ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের উন্নয়ন প্রকল্প ফোরলেনের কাজ শুরু হয়েছে। প্রায় ৭০ বছর আগের পুরাতন ওই ব্রিজের পাশ দিয়ে বাইপাস রাস্তা নির্মাণ না করেই নতুন ব্রিজের নির্মাণ কাজ চলছে। এ অবস্থায় পুরাতন ব্রিজের পাশ থেকে মাটি সরে যাওয়ায় ব্রিজটি আরও ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছিলো।

বুধবার দিনভর নানা ঝুঁকি নিয়ে ব্রিজটির উপর দিয়ে যানবাহন চলাচল করেছে। যে কারণে মহাসড়কের উভয়প্রান্তে দিনভর ছিল যানজট। শত শত যানবাহন আটকে পড়ায় নানা ভোগান্তি পোহাতে হয় সাধারণ মানুষদের।

সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার (বিপিএম) টুটুল চক্রবর্তী বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত ব্রিজটি দিয়ে হালকা যানবাহনও চলাচল করতে পারছে না। যে কারণে ঝুঁকি এড়াতে সড়ক বিভাগ মহাসড়ক দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। যানবাহনগুলোকে বিকল্প পথে চলাচল করতে বলা হচ্ছে। এ জন্য ওই সকল সড়কে বাড়তি নিরাপত্তা হিসাবে ট্রাফিক ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত ব্রিজটির পাশেই বিকল্প সড়ক নির্মাণ কাজ শেষ হলে সকালের মধ্যেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

এমতাবস্থায় মহাসড়কটিতে চলাচলকৃত যানবাহনগুলোকে বিকল্প পথে সিরাজগঞ্জ-রায়গঞ্জ আঞ্চলিক, বগুড়ার ধুনট হয়ে ও কাজিপুর সড়ক দিয়ে সিরাজগঞ্জ শহর হয়ে বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে যুক্ত হচ্ছে এবং নাটোর হয়ে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়ক দিয়ে ঢাকার পথে যানবাহনগুলোকে চলাচল করতে হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :