লক্ষ্মীপুরে শিক্ষকের ওপর হামলা, প্রধান আসামি কারাগারে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, লক্ষ্মীপুর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে একটি বেসরকারি বিদ্যালয়ের পরিচালক ও শিক্ষকের ওপর হামলার ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি মো. সুমনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে আমলি অঞ্চল (রায়পুর) আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. তারিক আজিজ এ নির্দেশ দেন।

বাদীর আইনজীবী আনোয়ার হোসেন মৃধা বলেন, আসামি সুমন স্বেচ্ছায় আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠায়।

গ্রেফতার সুমন রায়পুর পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর দেনায়েতপুর এলাকার মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে। মামলার অন্য আসামিরা হলেন একই এলাকার এমরান হোসেন স্বপন, আবদুল মতিন, মো. শফি, রোকেয়া বেগম, খুশি আক্তার, নুরে হেলাল মামুন ও অজ্ঞাত আরও ৮ জন।

মামলার এজাহার সূত্র জানায়, উত্তর দেনায়েতপুর এলাকা সৈয়দ গোলাম সারোয়ার রানাদের সঙ্গে সুমনদের পারিবারিক বিরোধ চলে আসছে। রানা তারা বাবা এটিএম মোস্তফা স্কুল অ্যান্ড কলেজের পরিচালক। ওই স্কুলে তার স্ত্রী তানজিনা আক্তার ও ভাই সৈয়দ গোলাম মাহমুদ মাসুদ শিক্ষকতা করেন। পারিবারিক বিরোধের জের ধরে গত ১৩ জানুয়ারি সকালে রানার স্ত্রী বাড়ি থেকে বিদ্যালয় যাওয়ার পথে সুমনসহ আসামিরা ইভটিজিং করে।

এর প্রতিবাদ করলে দুপুরে জোরপূর্বক বিদ্যালয়ে ঢুকে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সুমন তার লোকজন নিয়ে রানা ও তার স্ত্রী-ভাইয়ের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। একপর্যায়ে সুমন লোহার রড দিয়ে শিক্ষক মাসুদের মাথায় আঘাত করলে গুরুতর জখম হয়। এসময় তারা রানার স্ত্রীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। পরে তারা বিদ্যালয়ের ক্যান্টিনের ক্যাশবাক্স থেকে ৫৫ হাজার টাকা লুটে নেয়। পরে এ ঘটনায় রানা বাদী সুমনকে প্রধান আসামি করে ৭ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ৮ জনের বিরুদ্ধে রায়পুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

আপনার মতামত লিখুন :