রাত জেগে মাস্ক তৈরি করছেন কল্যাণী ফাউন্ডশনের কর্মীরা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নেত্রকোনা
রাত জেগে মাস্ক তৈরি করছেন কল্যাণী ফাউন্ডশনের কর্মীরা, ছবি: বার্তা২৪.কম

রাত জেগে মাস্ক তৈরি করছেন কল্যাণী ফাউন্ডশনের কর্মীরা, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষে এলাকার অসহায় ও সাধারণ মানুষের মাঝে বিনামূল্যে বিতরণের জন্য নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় রাত জেগে মাস্ক তৈরি করছেন স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান কল্যাণী ফাউন্ডশনের কর্মীরা।

বুধবার (২৫ মার্চ) রাত এগারোটার দিকে জেলার কেন্দুয়া পৌর শহরের সাউদপাড়া মহল্লায় অবস্থিত কল্যাণী ফাউন্ডশনের কার্যালয়ে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা ও কর্মীদের রাত জেগে মাস্ক তৈরির এমন দৃশ্য চোখে পড়ে।

এ সময় কথা হয় কল্যাণী ফাউন্ডশনের কর্মী বিলকিস আক্তারের সঙ্গে। তিনি জানান, কল্যাণী ফাউন্ডেশন এলাকার সুবিধাবঞ্চিত ও অসহায় মানুষকে সেবা প্রদানের পাশাপাশি তাদের বিভিন্ন বিপদ-আপদেও পাশে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় করোনা প্রতিরোধে আমরা এলাকার বিভিন্ন গ্রামের বাড়ি বাড়ি ঘুরে মানুষকে সচেতন করছি এবং বিনামূল্যে সাবান ও মাস্ক বিতরণ করছি। বুধবার দিনব্যাপী তারা উপজেলা সদরের ভাটিরকোণা গ্রামে বাড়ি বাড়ি ঘুরে প্রায় তিন শতাধিক মানুষের মাঝে সাবান ও মাস্ক বিতরণ করেছেন এবং এ কার্যক্রম চলমান থাকবে- আর সে লক্ষেই তারা রাত জেগে মাস্ক তৈরি করছেন বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে কল্যাণী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা কেন্দুয়া পৌর শহরের সাউপাড়া এলাকার বাসিন্দা কল্যাণী হাসানের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, আর্তমানবতার সেবার লক্ষে ২০১৫ সালে কল্যাণী ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করি। সংগঠনটিতে বর্তমানে অর্ধশত কর্মী রয়েছে। তারা সবাই স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করে। এলাকার সাধারণ মানুষের বিপদে বা দুর্যোগে তাদের পাশে দাঁড়ানোই আমাদের কাজ। করোনা ভাইরাস সারা বিশ্ব মহামারি আকার ধারণ করেছে। ভাইরাসটি প্রবেশ করেছে আমাদের বাংলাদেশেও। তাই মানুষের এ ঘোর নিদানে আমরা চেষ্টা করছি ভাইরাসটি প্রতিরোধে তাদের সচেতন করতে এবং পাশে দাঁড়াতে। আর সেই লক্ষেই ফাউন্ডশনের কর্মীরা দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। কল্যাণী ফাউন্ডেশনের কর্মীদের রাত জেগে তৈরি করা এসব মাস্ক এলাকার অসচেতন অসহায় সাধারণ মানুষের মধ্যে বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :