সীমান্ত ব্যাংকের কানেক্ট অ্যাপ থেকে টাকা আনা যাবে বিকাশে



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

***দেশের শীর্ষস্থানীয় ২৬টি বাণিজ্যিক ব্যাংক নিয়ে এমএফএস-এ সবচেয়ে বড় ব্যাংক নেটওয়ার্ক বিকাশের

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) পরিচালিত বাণিজ্যিক ব্যাংক সীমান্ত ব্যাংক এর গ্রাহকরা এখন থেকে তাদের মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপ ‘এসএমবিএল কানেক্ট’ ব্যবহার করে যেকোনো সময় দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা আনতে পারবেন। যৌথভাবে চালু হওয়া এই সেবা সীমান্ত ব্যাংকের সাধারণ গ্রাহকদের পাশাপাশি দেশের সীমান্ত রক্ষায় দায়িত্বরত বিজিবি সদস্যদের নিজের অ্যাকাউন্টের টাকা ব্যবহারে আরো বেশি সক্ষমতা ও স্বাধীনতা দেবে।

বিকাশে টাকা আনতে প্রথমে নিজের অথবা প্রিয়জনের বিকাশ অ্যাকাউন্ট, বেনিফিশিয়ারি হিসেবে সীমান্ত ব্যাংক কানেক্ট অ্যাপে যুক্ত করতে হবে। অ্যাকাউন্ট যুক্ত করার সঙ্গে সঙ্গেই গ্রাহক টাকা ট্রান্সফার সেবা নিতে পারবেন।

২ মার্চ, মঙ্গলবার, সীমান্ত ব্যাংক এবং দেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ যৌথভাবে এই সেবা উদ্বোধন করে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সীমান্ত ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব মুখলেসুর রহমান, বিকাশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল কাদীর এবং আইটি কনসাল্টেন্ট লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী সাইফুদ্দিন মুনীর সহ প্রতিষ্ঠানগুলোর উর্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

গ্রাহক টাকা পাঠাতে বিকাশ অ্যাপ এর অ্যাড মানি অপশন এ গিয়ে ‘ব্যাংক টু বিকাশ’ আইকন, এরপর ‘ইন্টারনেট ব্যাংকিং’ অপশন থেকে সীমান্ত ব্যাংকের লোগো ক্লিক করে কানেক্ট অ্যাপের লিংক পেতে পারেন অথবা সরাসরি গুগল প্লে-স্টোর/অ্যাপ স্টোর থেকে কানেক্ট অ্যাপ ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

কানেক্ট অ্যাপে প্রবেশ করে ‘ট্রান্সফার টু বিকাশ’ অপশনে গিয়ে ‘বিকাশ অ্যাকাউন্ট ট্রান্সফার’ থেকে অ্যাকাউন্ট নম্বর নির্বাচন করে টাকার পরিমান এবং ওটিপি দিয়ে লেনদেন সম্পন্ন করতে পারবেন। তাৎক্ষণিকভাবে বাড়তি কোন খরচ ছাড়াই ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা চলে আসবে।

লেনদেন সম্পন্ন হলে গ্রাহক এসএমএস নোটিফিকেশন পাবেন। কানেক্ট অ্যাপ থেকে বিকাশে টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক নির্ধারিত অ্যাড মানি’র লিমিট প্রযোজ্য হবে।

আইটি কনসালট্যান্টস লিমিটেড (আইটিসিএল) এই সেবা প্রদান প্রক্রিয়ায় সীমান্ত ব্যাংককে প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রদান করছে।

”বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ কল্যাণ ট্রাস্ট” এর মালিকানায় প্রতিষ্ঠিত সীমান্ত ব্যাংকের প্রাথমিক উদ্দেশ্য হলো বিজিবি সদস্য সহ দেশের আপামর জনসাধারনকে ব্যাংকিং সুবিধা প্রদান করা। একটি বানিজ্যিক ব্যাংক হিসেবে সীমান্ত ব্যাংক আর্থিক অন্তর্ভুক্তির দ্বারা গ্রামীন জনগণ, সাধারন ভোক্তা, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের প্রসারের মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে অবদান রাখছে। নতুন প্রজন্মের ব্যাংকগুলোর মধ্যে প্রথম কাতারে পৌঁছানোর মানসিকতা নিয়ে এবং প্রযুক্তিনির্ভর ব্যাংকিং সেবাকে  জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে নিরলসভাবে কাজ করছে সীমান্ত ব্যাংক।

বিকাশের ব্যাংক নেটওয়ার্কে সীমান্ত ব্যাংক যুক্ত হওয়ায় এই নিয়ে দেশের শীর্ষস্থানীয় ২৬টি বাণিজ্যিক ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে ৫ কোটি ১০ লাখ গ্রাহকের বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা আনার সুযোগ তৈরি হ’ল। ফলে, সারাদেশের ২ লাখ ৪০ হাজার এজেন্টের কাছ থেকে ক্যাশ ইন করে বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা আনার পাশাপাশি ব্যাংক থেকে বিকাশে তাৎক্ষণিকভাবে টাকা এনে সেন্ড মানি, মোবাইল রিচার্জ, ইউটিলিটি বিল পরিশোধ, অফলাইন বা অনলাইনে পণ্য কিনে পেমেন্ট করা, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অনুদান দেয়া, স্কুল কলেজের বেতন পরিশোধ করা, বাস-ট্রেন-বিমান-লঞ্চ ও মুভি টিকেট ক্রয় করা, বিভিন্ন ধরনের অনলাইন নিবন্ধনের ফি পরিশোধ করা, ক্যাশ আউট সহ অসংখ্য সেবা খুব সহজেই নিতে পারছেন গ্রাহকরা, যা তাদের আর্থিক লেনদেনকে করেছে নিরাপদ, সহজ ও ঝামেলামুক্ত।

এছাড়াও বাংলাদেশে ইস্যুকৃত সকল ভিসা ও মাস্টার কার্ড থেকে বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা আনার সুযোগ তো রয়েছেই।