বাজারে ভিড়, দাম বেড়েছে সবজি-মুরগির



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বাজারে বেড়েছে ভিড়, দাম বেড়েছে সবজি-মুরগির

বাজারে বেড়েছে ভিড়, দাম বেড়েছে সবজি-মুরগির

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় সোমবার (৫ এপ্রিল) থেকে এক সপ্তাহের জন্য সারাদেশে লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। এই ঘোষণার পর থেকেই বাজারে বেড়েছে ক্রেতাদের ভিড়।‌ দাম বেড়েছে কাঁচা পণ্যেসহ মুরগির মাংসের।

রোববার (৪ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর ফার্মগেট, রাজাবাজার এবং টাউনহল কাঁচা বাজারে সরেজমিন ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়।

ইন্দিরা রোডের বাসিন্দা কামরুল আহসান বলেন, লকডাউন ঘোষণা পাওয়ার পর আমার পরিবারের ৭ দিনের বাজার করেছি। কিছু কিছু পন্যের দাম ঠিক থাকলেও আলু, পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচের দাম আগের চেয়ে কেজিতে ১০/১২ টাকা বড়েছে। এছাড়া বেশি দাম বেড়েছে মুরগির মাংসের, যা আগে ছিল ২৩০-২৫০ টাকা কেজি এখন দাম নিচ্ছে ৩০০- ৩২০ টাকা কেজি।

ফার্মগেট বাজারের ক্রেতা নুরুল হক বলেন, লকডাউনের খবর শুনে বাজার করতে এসেছি। গত পরশু বাজার করেছিলাম গরুর মাংস ৬০০ টাকা, আলু ২০ টাকা, পেঁয়াজ ৩৫ টাকা, মরিচ ৯০ টাকা। আর আজকে কিনলাম আলু ২৫ টাকা, পেঁয়াজ ৪৫ টাকা, মরিচ ১৭০ টাকা। গত ১ দিনেই অনেকটা দাম বেড়েছে। লকডাউন শুরু হলে দাম আরো বেড়ে যাবে আর তখন স্বাস্থ্য ঝুঁকিও বাড়বে।

বাজারে বেড়েছে ভিড়, দাম বেড়েছে সবজি-মুরগির

টাউনহল কাঁচামাল ব্যাবসায়ী মো. মনির বলেন, কালকের চেয়ে আজ মালের দাম একটু বেশি, কারণ আমরা যে পরিমাণ মাল আনি তার চেয়ে কেনার চাহিদা বেশি। কাল পাইকারি আলু কিনছি ১৬ টাকা আজকে সেটা ১৯-২০ টাকা, মরিচ কাল ছিল শুধু ৯০ টাকা আজকে সেটা ১৯০- ২০০ টাকা। আমরা যেমন দরে কিনি সিমিত কিছু লাভ করে বিক্রি করি।

যারাই বাজারে আসছেন তারা সবাই স্বাভাবিকের তুলনায় অনেক বেশি বাজার করায় জিনিস পত্রের দাম বেড়েছে। যোগানের তুলনায় চাহিদা বেশি থাকলে মালের দাম একটু বাড়বেই বলে মন্তব্য করেছেন রাজাবাজার দোকান মালিক সমিতির সদস্য ইকরাম উদ্দীন।

মুরগির মাংসের দাম বাড়ার কারণ জানতে চাইলে ফার্মগেটের মুরগি ব্যাবসায়ী আনিছুর রহমান বলেন, চাহিদার তুলনায় মুরগি পাওয়াই যাচ্ছে না। আগে প্রতিদিন মুরগি আনতাম ২০০/২৫০ পিস, এখন আনি ৮০/১০০ পিস। দেশের বেশির ভাগ ফার্মে মুরগি নাই। বাজারে সরবরাহ বেশি হলে দাম কমবে।