ইসলামী ব্যাংকের ব্যবসায় উন্নয়ন সম্মেলনের উদ্বোধন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

শুরু হল ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর দুই দিনব্যাপী ব্যবসায় উন্নয়ন সম্মেলন। 

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে ব্যাংকের বোর্ড অব ডাইরেক্টরস-এর চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. নাজমুল হাসান, পিএইচডি প্রধান অতিথি হিসেবে এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ কমিটির চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মো. সেলিম উদ্দিন এফসিএ, এফসিএমএ, রিস্ক ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) ইঞ্জিনিয়ার আবদুল মতিন, অডিট কমিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সোলায়মান, এফসিএ, পরিচালক প্রফেসর মোঃ কামাল উদ্দিন, পিএইচডি, মো. জয়নাল আবেদীন, প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল আলম, সৈয়দ আবু আসাদ, ডা. তানভীর আহমেদ, মো. কামরুল হাসান, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ সালেহ জহুর, প্রফেসর ড. মোঃ ফসিউল আলম, খুরশীদ উল আলম, মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, এফসিএমএ ও মো. কামাল হোসেন গাজী।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ব্যাংকের অ্যাডিশনাল ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মুহাম্মদ কায়সার আলী এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন অ্যাডিশনাল ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মোঃ ওমর ফারুক খান।

ব্যাংকের শরী’আহ সুপারভাইজরি কমিটির সদস্য সচিব প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আব্দুস সামাদসহ ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর, প্রধান কার্যালয়ের ঊর্ধ্বতন নির্বাহী, ঢাকাস্থ চারটি জোনের প্রধান এবং দেশব্যাপী ১১টি ভেনুতে আয়োজিত অনুষ্ঠান থেকে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে অন্যান্য জোনপ্রধান ও ৩৮৪টি শাখার ব্যবস্থাপকগণ সম্মেলনে অংশ নেন। 

সম্মেলনে জানানো হয়, ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ পর্যন্ত ইসলামী ব্যাংকের আমানতের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৩৮ হাজার কোটি টাকা যা গত বছরের তুলনায় ২০ হাজার কোটি টাকা বেশি। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ১৮ হাজার কোটি টাকা যা গত বছরের তুলনায় ১৭ হাজার কোটি টাকা বেশি। ২০২১ সালে ইসলামী ব্যাংক আমদানি, রপ্তানি বাণিজ্য ও রেমিট্যান্স আহরণ করেছে যথাক্রমে ৬৪,৫৩০ কোটি, ৩০,১৭৮ কোটি এবং ৫০,৫১৮ কোটি টাকা। ইসলামী ব্যাংক বর্তমানে ৩৮৪টি শাখা, ২১৯টি উপশাখা, ২৬৭৮টি এজেন্ট আউটলেট, ২৩১৮টি এটিএম/সিআরএম বুথের মাধ্যমে গ্রাহকদের সেবা প্রদান করছে।

চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. নাজমুল হাসান প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, ইসলামী ব্যাংক ২০২১ সালে পরিবর্তন ও চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। মানসম্পন্ন ও অন্তর্ভূক্তিমূলক বিনিয়োগের মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিতে আহবান জানান তিনি। তিনি বলেন, নতুন পরিস্থিতির সাথে অভিযোজিত হয়ে আধুনিক প্রযুক্তিতে শক্তিশালী হয়ে কাজ করতে হবে। ব্যাংকের সেলফিন অ্যাপ ও কার্ডভিত্তিক সেবা, পিওএস মেশিন, এমক্যাশ, আই-ব্যাংকিংসহ  অন্যান্য প্রযুক্তিসমৃদ্ধ সেবার প্রসারে আরো বেশি গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে নির্দেশনা দেন তিনি। 

সভাপতির বক্তব্যে ব্যাংকের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ও প্রধান নির্বাহী মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা বলেন, বাংলাদেশ আজ বিশ্বের ৪১তম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ যা ২০৩৬ সালে ২৪তম বৃহৎ অর্থনীতির দেশে পরিণত হবে। উন্নয়নের এই ধারাবাহিকতায় নানান চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করে ইসলামী ব্যাংক ব্যবসায়ের সকল সূচকে ভালো করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজ এর বিনিয়োগ বিতরণে ইসলমী ব্যাংক ব্যাংকিং খাতের শীর্ষে। ব্যাংকের সমৃদ্ধি ও সাফল্যে নিরন্তর সহযোগিতা অব্যাহত রাখায় বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন বিভাগ, অর্থ মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ব্যাংক, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্্রচেঞ্জ কমিশনসহ সকল নিয়ন্ত্রক সংস্থা ও গ্রাহক-শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

সম্মেলনে বক্তারা বলেন, জনগণের আস্থা, শরীআহর শক্তি, উন্নত ও আন্তরিক সেবার মাধ্যমে ইসলামী ব্যাংক দেশীয় স্বীকৃতি ও গণ্ডি পেরিয়ে বৈশ্বিক পরিমন্ডলে খ্যাতি অর্জন করছে। ব্যাংকের এই অবস্থান সমুন্নত রাখতে ব্যবসা পরিচালনায় মানবিক মূল্যবোধের বিকাশ ও ফাইন্যান্সিয়াল টেকনোলোজির উত্তম ব্যবহারের মাধ্যমে সাসটেইনেবল বিজনেস রিলেশনশিপ গড়ে তুলতে হবে।

সরকারি ব্যাংকের সব নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি সচিবালয়ের তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠিতব্য সকল পরীক্ষা (এমসিকিউ, লিখিত ও মৌখিক) পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক ও সদস্য-সচিব, বিএসসি মো. আজিজুল হক স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, স্বল্প সময়ের নোটিশে যাতে স্থগিতকৃত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারেন সে জন্য পরীক্ষার্থীদের প্রস্তুত থাকতে অনুরোধ করা হয়েছে

;

সূচক কমে বাড়ল লেনদেন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবারও (২৭ জানুয়ারি) সূচকের পতন ঘটেছে শেয়ারবাজারে। সেই সঙ্গে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমেছে। তবে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ।

আজ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনের শুরুতেই সূচক ঊর্ধ্বমুখী হয়ে যায়। মাঝে সামান্য পতন ঘটলেও বেলা সাড়ে ১২টা পযর্ন্ত বড় উত্থানের আভাস পাওয়া যায়। কিন্তু শেষ দিকে বেশিরভাগ কোম্পানির দর কমতে শুরু করলে সূচকের পতন ঘটে। দিনশেষে প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৭ হাজার ২৭ পয়েন্টে।

প্রধান সূচকের পাশাপাশি কমেছে অপর দুই সূচকও। বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক ৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২৬০২পয়েন্টে এবং শরীয়াহ সূচক ৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৪৯৯ পয়েন্টে।

আজ ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয় মোট ৩৮১টি কোম্পানি। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ১৪২টির, কমেছে ১৮৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৫টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের দাম।

বাজারটিতে সূচক ও শেয়ারদর কমলেও বেড়েছে মোট লেনদেন। আজ ডিএসইতে মোট লেনদেন হয় ১ হাজার ২১৯ কোটি টাকা। গতকাল লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ১১৫ কোটি ৭৮ লাখ টাকা। সে হিসেবে আজ লেনদেন বেড়েছে ১০৩ কোটি ২২ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে আজ সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর। কোম্পানিটির লেনদেন হয় ৬১ কোটি ১৩ লাখ টাকা। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের লেনদেন হয় ৬১ কোটি টাকা এবং তৃতীয় অবস্থানে থাকা কুইন সাউথের লেনদেন হয় ৫০ কোটি ৭৯ লাখ টাকা।

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসপিআই ৬ পয়েন্ট কমেছে। লেনদেনে অংশ নেয়া ৩২২টি কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১২২টির, কমেছে ১৪৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের দাম। সিএসইতে আজ ৪৮ কোটি ৫ লাখ ৮২ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

;

নতুন পারফিউমের পণ্যদূত হলেন বাংলাদেশের মুনিম এহসান



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: লাক্সারি ব্র্যান্ড প্রসাধনীর মডেল হলেন বাংলাদেশের মুনিম এহসান

ছবি: লাক্সারি ব্র্যান্ড প্রসাধনীর মডেল হলেন বাংলাদেশের মুনিম এহসান

  • Font increase
  • Font Decrease

লাক্সারি ব্র্যান্ড প্রসাধনী প্যাকো রাবানি ফ্যান্টমের মডেল হলেন এবার বাংলাদেশের মুনিম এহসান । সম্প্রতি এই লাক্সারি ব্র্যান্ডটি নতুন একটি পারফিউম বের করেছে। আর এই পারফিউমের বাংলাদেশের পণ্যদূত হয়েছেন বাংলাদেশি মডেল মুনিম। মুনিমের পুরো নাম এ.এফ.এম.ইফতে খায়রুল এহসান হলেও শোবিজের সকলে তাকে মুনিম নামেই চিনেন।

২০০৭ সালে পরিচালক সাইফুল ইসলাম মান্নুর ‌কোথাও কেউ নেই নাটকের মাধ্যমে অভিনয় শুরু করেন মুনিম। পাশাপাশি মডেল হিসেবে সেভেন আপ, প্রাণসহ অনেক পণ্যের মডেল হয়েছেন। মুনিম বাংলাদেশে ইয়েলো, অ্যাপেক্স, স্টাইলসেল, ট্রেন্ডজ, টেক্সমার্ট, ওকাল্ট জিনস, নাবিলা বুটিকসহ অনেক ফ্যাশন হাউসের সঙ্গে কাজ করেছেন।

পেশাদার মডেল হিসেবে মুনিমের ক্যারিয়ার প্রায় ১৪ বছরের। বাংলাদেশের প্রথম সারির প্রায় সব ব্র্যান্ডের সঙ্গেই কাজ করেছেন। মুনিম বলেন, লাক্সারি ব্র্যান্ড প্রসাধনী প্যাকো রাবানি ফ্যান্টমের মডেল হিসেবে আমাকে নির্বাচিত করার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এটা আমার জন্য সত্যিই আনন্দের খবর । বেস্ট ইন ব্র্যান্ডকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। নামী ব্র্যান্ড সুন্দরা বিউটির অংশ হতে পেরে খুব ভালোলাগছে।

 

;

পাঁচ বছরে  ২২৮টি এনজিও’র নিবন্ধন বাতিল



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
আ ক ম মোজাম্মেল হক

আ ক ম মোজাম্মেল হক

  • Font increase
  • Font Decrease

শর্ত লঙ্ঘনসহ নানা অভিযোগের কারণে গত পাঁচ বছরে (২০১৭ থেকে ২০২১) ২২৮টি এনজিও’র নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে বলে জাতীয় সংসদকে জানিয়েছেন সংসদ কার্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) একাদশ জাতীয় সংসদের ষোড়শ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য মসিউর রহমান রাঙ্গার প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ কথা জানান। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী জানান, বর্তমানে এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর অধীন নিবন্ধিত এনজিও'র সংখ্যা বিদেশি ২৬০টি এবং দেশীয় ২২৬৬টিসহ মোট দুই হাজার ৫২৬টি। বৈদেশিক অনুদান (স্বেচ্ছাসেবামূলক কার্যক্রম) রেগুলেশন আইন, ২০১৬ এর ১৪ ধারা অনুযায়ী, কোনো এনজিও বা এনজিওতে কর্মরত ব্যক্তি এই আইন ও বিধি বা আদেশের বিধান লঙ্ঘন করলে এবং সংবিধান এবং সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে বিদ্বেষমূলক ও অশালীন কোনো মন্তব্য করলে বা রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ড করলে বা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসমূলক কর্মকাণ্ডে অর্থায়ন, পৃষ্ঠপোষকতা কিংবা সহায়তা করলে অথবা নারী ও শিশু পাচার বা মাদক ও অস্ত্রোপচারের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পাওয়া গেলে দেশে প্রচলিত আইনের আওতায় অপরাধ বলে গণ্য হয় এবং আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

তিনি জানান, প্রকল্পের নাম, প্রকল্পের মেয়াদকাল, টাকার পরিমাণ, প্রকল্প অনুমোদনের তারিখ, প্রকল্পের উদ্দেশ্য, প্রকল্প এলাকার সংশ্লিষ্ট তথ্য, জেলা বা উপজেলায় প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ, বহুবর্ষী প্রকল্পের ক্ষেত্রে আলোচ্য বর্ষে বরাদ্দ, আলোচ্য বর্ষে প্রকৃত ব্যয়, প্রকল্পে উপকারভোগীর সংখ্যা, উপকারভোগী নির্বাচনে স্থানীয় প্রশাসনকে সম্পৃক্ত করা হয়েছে কিনা, হয়ে থাকলে তার সংক্ষিপ্ত বিবরণী এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর অনুমোদিত পত্রের শর্তাদি যথাযথভাবে প্রতিপালিত হয়েছে কিনা এ বিষয়গুলো মনিটরিং করা হয়।

মন্ত্রী জানান, বৈদেশিক অনুদান (স্বেচ্ছাসেবামূলক কার্যক্রম) রেগুলেশন আইন, ২০১৬ অনুসারে এনজিও বিষয়ক ব্যুরো কোনো ব্যক্তি এবং এনজিও কর্তৃক পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবামূলক কার্যক্রম মনিটরিং করে থাকে। এই আইন অনুযায়ী ব্যুরো মনিটরিং কমিটি গঠন করতে পারে এবং প্রয়োজনে বহিঃপর্যবেক্ষণকারী নিয়োগ করতে পারে। 

 

;