ব্যাংক মাস্কাট থেকে ৪৫ মিলিয়ন ডলার সিন্ডিকেটেড ঋণ পেল সিটি ব্যাংক



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ব্যাংক মাস্কাট থেকে ৪৫ মিলিয়ন ডলার সিন্ডিকেটেড ঋণ পেল সিটি ব্যাংক

ব্যাংক মাস্কাট থেকে ৪৫ মিলিয়ন ডলার সিন্ডিকেটেড ঋণ পেল সিটি ব্যাংক

  • Font increase
  • Font Decrease

সিটি ব্যাংক ওমানের শীর্ষস্থানীয় আর্থিক ব্যাংক মাস্কাট থেকে ৪৫ মিলিয়ন ডলারের সিন্ডিকেট ঋণ নিয়েছে। ব্যাংক মাস্কাট প্রাথমিকভাবে ২৫ মিলিয়ন ডলারের ঋণ সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে লেনদেন শুরু করে। পরবর্তীতে ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য, আফ্রিকার বিভিন্ন দেশের ব্যাংকের কাছ থেকে অভূতপূর্ব সাড়ার প্রেক্ষিতে এইসব দেশের স্বনামধন্য আন্তর্জাতিক ব্যাংকের অংশগ্রহণের মাধ্যমে ৪৫ মিলিয়ন ডলারের ফান্ড সংগ্রহ করে ব্যাংক মাস্কাট যা প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা ২৫ মিলিয়ন ডলার থেকে ৮০ শতাংশ বেশি। এটি সিটি ব্যাংকের জন্য ব্যাংক মাস্কাটের নেতৃত্বে তৃতীয় সফল সিন্ডিকেটেড ঋণ সুবিধা।

বিশ্ব করোনা মহামারি থেকে এখনো পুরোপুরি মুক্ত হয়নি, আবার বর্তমান ভূরাজনৈতিক অস্থিরতায়  অর্থনীতি ব্যাপকভাবে প্রভাবিত। এই ঋণ সুবিধা সিটি ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রার তারল্য ব্যবস্থাপনায় গুরুত্বপূর্ণ সহায়তা প্রদান করবে। দেশের বাণিজ্য খাতের অন্যতম শীর্ষ ব্যাংক সিটি ব্যাংক তাদের বাণিজ্যিক লেনদেনের অর্থায়নে এই ঋণ ব্যবহার করতে পারবে। বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতিতে দেশের বাণিজ্য কার্যক্রম এবং অর্থনৈতিক  প্রবৃদ্ধি অর্জনে এটি সহায়তা করবে।

অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান ব্যবসায়িক কর্মকর্তা শেখ মোহাম্মদ মারুফ এই  সিন্ডিকেট ঋণের বিষয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, ‘সিটি ব্যাংকের সিন্ডিকেশন ঋণে বৈশ্বিক ব্যাংকগুলোর অভূতপূর্ব সাড়া দেখে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। এ সিকিন্ডিকেট ঋণ প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা থেকে ৮০ শতাংশ ওভারসাবস্ক্রাইবড হওয়ায় তা সিটি ব্যাংকের শক্তি এবং বিশ্বব্যাপী আর্থিক বাজারে তার গ্রহণযোগ্যতার চিত্র তুলে ধরে। বর্তমান বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে, ব্যাংকটির জন্য শক্তিশালী তারল্য নিশ্চিত করতে এবং আমাদের ক্লায়েন্টদের ক্রমবর্ধমান আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক প্রয়োজন মেটাতে আমরা এই ঋণসহ একাধিক উদ্যোগ নিয়েছি।  সিটি ব্যাংকের সঙ্গে দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্কের জন্য এবং এই চুক্তিটি সম্পন্ন করতে সাহায্য করার জন্য আমি ব্যাংক মাসকটকে ধন্যবাদ জানাই।’

উল্লেখ্য, সিটি ব্যাংক ২০১৯ সালে প্রথমবারের মতো ব্যাংক মাস্কাট থেকে ২০ মিলিয়ন ইউরো সিন্ডিকেট ঋণ নিয়েছিল। যা ছিল কোনো ওমানি ব্যাংকের কাছ থেকে কোনো বাংলাদেশি ব্যাংকের নেওয়া এ ধরনের প্রথম ঋণ। ২০২০ সালে সিটি ব্যাংক ৩০ মিলিয়ন ডলার সিন্ডিকেটেড ঋণ গ্রহণ করে।

৩৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও বেশি সম্পদের ব্যাংক মাস্কাট হলো ওমানের সালতানাতের সবচেয়ে বড় ব্যাংকিং নেটওয়ার্ক। ৩৫ শতাংশ মার্কেট শেয়ারসহ এটি দেশটির শীর্ষস্থানীয় ব্যাংক। ব্যাংকটির বিশ্বব্যাপী ব্যাংকিং সম্পর্কের নেটওয়ার্ক বিস্তৃত, যা ব্যবসা বাণিজ্যকে গতিশীল করতে গুরুত্বপূর্ণ। ব্যাংকটি উপসাগরীয় অঞ্চল, ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্র, এশিয়া এবং আফ্রিকা জুড়ে ঋণদাতাদের কাছ থেকে অনুকূল অর্থায়নের শর্তে তহবিল সংগ্রহে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

   

স্বস্তির কিস্তিতে আপনার সাধ ও সাধ্যের মিলবন্ধন যমুনা এল ই ডি টিভি



নিউজ ডেস্ক বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা২৪

ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

পৃথিবীতে এখন অর্থনীতির টালমাটাল অবস্থা। বাংলাদেশ ও তার বাহিরে নয়। এরই মধ্যেই বিশ্ব ক্রিকেটের মহাউৎসব -এর ডামাডোল বেজে উঠেছে। ক্রিকেট পাগল বাঙালী জাতি ক্রিকেট জ্বর -এ ভুগছে। তাদের এ আনন্দে শরিক হতে যমুনা ইলেকট্রনিক্স নামমাত্র কিস্তিতে গ্রাহকদের চাহিদানুসারে বিশাল ছাড়ে এল ই ডি টিভি দিচ্ছে। ০% ইন্টারেস্টে ৬ মাসের সহজ কিস্তিতে সহজ শর্তে দেশব্যাপি ছড়িয়ে থাকা যমুনা প্লাজা থেকে আজই বিশ্বমানের যমুনা এল ই ডি টিভি কিনুন।

ক্রিকেটের এই মহা উৎসবে যমুনা নিয়ে এলো “টাইগার ড্রাইভ” অফার। যমুনা এল ই ডি টিভি কিনলেই সর্বোচ্চ ৪৫ পারসেন্ট (৪৫%) পর্যন্ত ডিস্কাউন্ট। বড় স্ক্রিনে বিশ্বকাপ দেখতে কার না ভাল লাগে, তাই যমুনা লেটেস্ট ৫৫" ফার ফিল্ড ভয়েস কন্ট্রোল দিচ্ছে ৩৩,২০০/- টাকার বিশাল ছাড়। যা মাত্র ৬৪,৮০০/- টাকায় কাস্টমার কিনতে পারবে। এছাড়াও মাত্র ১৪,৮০০/- টাকায় ৩২" বেসিক, ২২,৮০০/- টাকায় ৩২" স্মার্ট ভয়েস কন্ট্রোল, ৩২,৮০০/- টাকায় ৪৩" স্মার্ট ভয়েস কন্ট্রোল টিভি পাওয়া যাচ্ছে। যমুনা প্লাজায় এছাড়াও থাকছে নিশ্চিত ক্যাশ ডিস্কাউন্ট , এক্সচেঞ্জ অফার, জিরো পারসেন্ট (০% ) ইন্টারেস্টে ৬মাসের নগদ কিস্তি ও ইএমআই সুবিধা । ক্রিস্টাল ক্লিয়ার ঝকঝকে ছবি আর নিখুঁত শব্দে টিভি দেখার এক নতুন অভিজ্ঞতা যমুনা এল.ই.ডি.টিভি। স্মার্ট এল.ই.ডি টিভি কেনা অনেকেরই শখ কিন্তু সাধ্যের কারনে অনেক সময় কেনা হয়ে ওঠে না। তাইতো সাধ ও সাধ্যের মিল-বন্ধন ঘটাতে যমুনা বাজারে নিয়ে এলো অত্যাধুনিক
প্রযুক্তির স্মার্ট এল.ই.ডি টিভি। কালের পথ-পরিক্রমায় অন্যসব প্রযুক্তির মত টিভির প্রযুক্তিতেও যোগ হচ্ছে নিত্য নতুন অধ্যায়। চমকপ্রদ সব প্রযুক্তি আর value Added Service নিয়ে যমুনা এল.ই.ডি টিভি এখন আপনার পরিবারেরই অংশ।

যমুনা এল.ই.ডি টিভির আকর্ষণীয় ন্যারো বেজেল ডিজাইন, আলট্রা-হাই-ডেফিনেশন ডিসপ্লে, ডলবি ডিজিটাল সাউন্ড টিভি দেখার ক্ষনকে আরো রাঙিয়ে তুলবে, যমুনা এল.ই.ডি টিভির হাই কোয়ালীটি রেজুলেশন, কন্ট্রাস্ট রেশিও এবং সুপার ব্রাইটনেস স্ক্রিন টিভি দেখার মুহূর্তকে করবে আরো প্রাণবন্ত। এর স্মার্ট অ্যান্ড্রয়েড ফিচারস্ র‍্যাম,রোম, ইন্টারনেট ব্রাউজিং-এ আপনার প্রয়োজনীয় কাজগুলো সহজেই করা যাবে।

যমুনা টিভির স্ক্রিনকাস্ট অ্যাপ্স দিয়ে সহজেই মোবাইলের ছবি ও ভিডিও শেয়ার করা যায়, ভিডিও কল ও স্মরণীয় মুহূর্তগুলো যমুনা এল.ই.ডি টিভিতে শেয়ার করা যায়। যমুনা টিভির ফার-ফিল্ড ভয়েস কন্ট্রোল সিস্টেম যা রিমোট ছাড়াই আপনার কমান্ড শুনবে। সুতারং ইউটিউব সহ অন্যান্য এন্টারটেইনমেন্ট অ্যাপ্স মুহূর্তেই আপনার কমান্ড অনুযায়ী অপারেট হবে। যমুনা এল.ই.ডি টিভির Blue Ray গ্লাস চোখ ও পরিবেশের কোণ ক্ষতি করে না। তাইতো আনলিমিটেড এন্ট্রারটেইনমেন্ট যখন-তখন।

অনলাইনে কিনতে ভিজিট করুন www.estorejamun.com-এ ।

;

টিসিবির জন্য ১ কোটি লিটার সয়াবিন তেল কিনছে সরকার



নিউজ ডেস্ক বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

২০৮ কোটি ৮২ লাখ ৭০ হাজার টাকা ব্যয়ে সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ-এর (টিসিবি) জন্য ১ কোটি ৩০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কিনছে সরকার।

বুধবার (৪ অক্টোবর) বিকেলে অর্থমন্ত্রী আ হ ম ‍মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
 
বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের কাছে বিস্তারিত তুলে ধরেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সাঈদ মাহবুব খান। তিনি জানান, দুটি পৃথক ক্রয় প্রস্তাবে আলাদাভাবে এই তেল কেনা হবে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন টিসিবির জন্য ২০২৩-২৪ অর্থবছরে স্থানীয়ভাবে উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতিতে সুপার অয়েল রিফাইনারি লিমিটেড থেকে ৫০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কেনার প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৭৯ কোটি ২৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

অপর এক প্রস্তাবে একই পদ্ধতিতে মেঘনা এডিবল অয়েলস রিফাইনারি লিমিটেড থেকে ১২৯ কোটি ৫৫ লাখ ২০ হাজার টাকায় ৮০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কেনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব।

সাঈদ মাহবুব খান জানান, বুধবার সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে মোট ১২টি প্রস্তাব উপস্থাপন করা হয়। এর সব কটিই মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিয়েছে। এর মধ্যে কৃষি মন্ত্রণালয়ের তিনটি, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের দুটি, শিল্প মন্ত্রণালয়ের দুটি, স্থানীয় সরকার বিভাগের দুটি, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের একটি, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের একটি এবং নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের একটি প্রস্তাব ছিল। এসব প্রস্তাবে সব মিলিয়ে ব্যয় ধরা হয়েছে ২ হাজার ৮৫২ কোটি ১৬ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

;

পদ্মা ব্যাংক কুমিল্লার কাদুটি বাজার উপশাখা উদ্বোধন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

কুমিল্লার চান্দিনার গ্রাহকদের আর্থিক লেনদেন সহজ ও দ্রুত করতে আধুনিক, প্রযুক্তি নির্ভর সেবা দিতে চান্দিনার কাদুটি বাজার উপশাখার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করল পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড। কুমিল্লা শাখার অধীনে পরিচালিত হবে এর কার্যক্রম। উপশাখাটি স্থানীয় সুপরিচিত বাশার মার্কেটে ওয়ালটন শো রুমের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত। এটি পদ্মা ব্যাংকের আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন হওয়া দশম উপশাখা।

মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শাখাটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রফেসর ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত, এমপি। এ সময় তিনি বলেন, কুমিল্লার মানুষ আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর সেবায় বিশ্বাস করে, কেননা এতে থাকে স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতা। এই উপশাখাটির মাধ্যমে কাদুটি বাজারের ব্যবসায়ী, শিক্ষার্থী, প্রবাসীরা-সহ স্থানীয় জনগণের আর্থিক লেনদেন সহজ ও দ্রুততর হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পদ্মা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) ফয়সাল আহসান চৌধুরী। তিনি বলেন, গ্রাহকদের বিশ্বাসই আমাদের পুঁজি। গ্রাহকরা যদি এগিয়ে আসে তাহলে আগামীতে আরো নতুন নতুন আধুনিক বিভিন্ন সেবা ও পণ্য নিয়ে আসতে সক্ষম হবে পদ্মা ব্যাংক। তিনি উপস্থিত গ্রাহকদের ধন্যবাদ জানান পদ্মা ব্যাংকের পাশে থাকার জন্য।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক ও চিফ বিজনেস অফিসার মোহাম্মদ ইমতিয়াজ উদ্দিন। এছাড়া ব্যাংকের সিওও সৈয়দ তৌহিদ হোসেন এবং কুমিল্লা শাখা প্রধান মো. খোরশেদ আলমসহ বিভিন্ন বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও স্থানীয় গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ, সমাজকর্মী ও বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

সব ধরনের ব্যাংক হিসাব খোলা, নগদ টাকা জমা ও উত্তোলন, চেক বই ও পে অর্ডার জমা, আমানত ও ঋণ সুবিধা, রিয়েল টাইম অনলাইন ব্যাংকিং সুবিধা, ইউটিলিটি বিল, এ-চালানের মাধ্যমে সরকারি বিভিন্ন সেবার বিল জমাসহ সব ধরনের ব্যাংকিং সেবা পাওয়া যাবে এ উপশাখায়।

;

দেশের বাজারে আবারও কমলো স্বর্ণের দাম



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
দেশের বাজারে আবারও কমলো স্বর্ণের দাম

দেশের বাজারে আবারও কমলো স্বর্ণের দাম

  • Font increase
  • Font Decrease

চার দিনের মাথায় দেশের বাজারে আরও কিছুটা কমানো হয়েছে স্বর্ণের দাম। ভালো মানের এক ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম ১ হাজার ১৬৭ টাকা কমিয়ে নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে ভালো মানের এক ভরি স্বর্ণের দাম হয়েছে ৯৭ হাজার ৪৪ টাকা।

বৃহস্পতিবার (৫ অক্টোবর) থেকে নতুন এই দাম কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

স্থানীয় বাজারে তেজাবী সোনার (পাকা সোনা) দাম কমার প্রেক্ষিতে এই দাম কমানো হয়েছে।

এর আগে, গত ৩০ সেপ্টেম্বর ২২ ক্যারটের স্বর্ণের ভরিতে এক হাজার ৭৪৯ টাকা কমানোর ঘোষণা দেয় বাজুস, যা পরদিন রোববার থেকে কার্যকর হয়। তখন থেকে এই মানের এক ভরি স্বর্ণ বিক্রি হচ্ছিল ৯৮ হাজার ২১১ টাকা।

স্থানীয় বাজারে তেজাবী সোনার (পাকা সোনা) দাম কমার পরিপ্রেক্ষিতে নতুন করে দাম কমানোর এই ঘোষণা দেয় বাজুস।

;