স্মার্ট বাংলাদেশের রূপরেখা, থাকছে ৪০ মেগা প্রকল্প



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

‘উন্নয়নের দীর্ঘ অগ্রযাত্রা পেরিয়ে স্মার্ট বাংলাদেশের অভিমুখে’ এই স্লোগান নিয়ে তৈরি করা ২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেটে থাকছে নতুন ৪০টি মেগা প্রকল্প। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এবার বাজেট বক্তব্যে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ-২০৪১’ এর স্বপ্ন ও বাস্তবায়নের পথ ও নানা চ্যালেঞ্জ তুলে ধরবেন।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, আসন্ন বাজেটে ৪০টি নতুন মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ২০২৫, ২০৩১ এবং ২০৪১-এই তিনটি সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে। পাশাপাশি স্বল্প, মধ্যম ও দীর্ঘমেয়াদি প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে।

জানা গেছে, স্মার্ট বাংলাদেশের রূপরেখা সর্বত্র হবে প্রযুক্তিনির্ভর। অন্তর্ভুক্তিমূলক ডিজিটাল সমাজ গড়ে তোলার কথা বলা হবে। আর পিছিয়ে পড়া প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে উন্নয়নের মূলধারায় নিয়ে আসতে আত্মকর্মসংস্থানভিত্তিক প্রশিক্ষণ কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে। পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের অনলাইন কার্যক্রম নিশ্চিতে ‘ওয়ান স্টুডেন্ট, ওয়ান ল্যাপটপ, ওয়ান ড্রিম’ এর আওতায় শিক্ষার্থীদের ল্যাপটপ সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হবে।

কৃষিতে প্রচলিত যুগের অবসান হয়েছে। আগামী দিনের কৃষি হবে প্রযুক্তিনির্ভর। প্রচলিত কৃষককেও এখন স্মার্ট ফোনের কার্যকর ব্যবহার জানতে হবে। আইওটি (ইন্টারনেট অব থিংস বা পারস্পরিক সম্পর্কযুক্ত ও ইন্টারনেট-সংযুক্ত বস্তুর একটি সিস্টেম) ডিভাইস ব্যবহার করে কীভাবে অল্প খরচে মাছ চাষে এবং কৃষিতে অধিক লাভবান হওয়া যায়, তা জানতে হবে।

সূত্র জানিয়েছে, আগামী অর্থবছরের জন্য উপস্থাপন করা হচ্ছে ৭ লাখ ৬১ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকার বাজেট। এতে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ-২০৪১’ এর রূপরেখা তুলে ধরা হবে। ডিজিটাল বাংলাদেশের পর ভবিষ্যৎ বাংলাদেশের রূপরেখা এটি। সেখানে প্রধান চারটি কৌশল হবে- স্মার্ট সিটিজেন, স্মার্ট ইকোনমি, স্মার্ট গভর্নমেন্ট এবং স্মার্ট সোসাইটি। এছাড়া স্মার্ট শিক্ষা, স্মার্ট স্বাস্থ্যসেবা, স্মার্ট কৃষি, স্মার্ট বাণিজ্য ও স্মার্ট পরিবহন ব্যবস্থার কথাও থাকবে বলে জানা গেছে।

সূত্রমতে, স্মার্ট বাংলাদেশ মহাপরিকল্পনার শুরুতে ২০২৩ সালের মধ্যে বাংলা ডিজিটাল দক্ষতা বৃদ্ধি, আইসিটি নীতিমালা, জাতীয় প্রকিউরমেন্ট ই-বাজার, ডিজিটাল চাকরির প্ল্যাটফর্ম, স্মার্ট পাবলিক সার্ভিস (জনপরিষেবা) ও পেপারলেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (কাগজবিহীন প্রশাসন), ইনক্লুসিভ ফিন্যান্সিয়াল (অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক সংস্থান), গভর্নমেন্ট ক্লাউড অ্যান্ড ডেটা সেন্টার ইত্যাদি কার্যক্রম শুরুর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

২০২৪ সালের মধ্যে ইউনিভার্সাল ডিজিটাল আইডি, ডিজিটাল কারিকুলাম, স্মার্ট ডিভাইস অ্যাকসেস, স্মার্ট বাংলা ক্যাম্পেইন, স্মার্ট হেলথ কেয়ার, স্মার্ট ট্যাক্স, ডিজিটাল লিডারশিপ অ্যাকাডেমি উদ্যোগ গ্রহণের প্রস্তাব দেওয়া হবে। এছাড়া ২০২৫ সালের মধ্যে স্মার্ট ল্যান্ড ম্যানেজমেন্ট, স্মার্ট পোস্টাল সার্ভিস, স্মার্ট জুডিশিয়ারি, স্মার্ট বর্ডারস, স্মার্ট সোশ্যাল সেফটি নেট, পুলিশ মডার্নাইজেশন, ইনক্লুসিভ ফিন্যান্সিয়াল ইকোসিস্টেম, ফিনটেক অ্যাকসেলারেটর, উদীয়মান প্রযুক্তিবিষয়ক সেন্টার অব এক্সিলেন্স (সিওই) বাস্তবায়নের প্রস্তাব দেওয়া হবে। এভাবে স্মার্ট বাংলাদেশের রূপরেখা প্রণয়ন করা হচ্ছে।

আজ জাতীয় সংসদে উপস্থাপিত হবে ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জাতীয় বাজেট। জাতীয় সংসদে বিকাল ৩টায় নতুন অর্থবছরের জন্য ৭ লাখ ৬৩ হাজার ৯৯১ কোটি টাকার বাজেট পেশ করবেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এটি অর্থমন্ত্রীর পঞ্চম বাজেট, বাংলাদেশের ৫২তম এবং আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের ২৪তম বাজেট।

এ প্রসঙ্গে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘সরকারের সব কিছু প্রস্তুত। প্রস্তুত অর্থমন্ত্রীও। এবারের বাজেটে সরকারের আগামী ভিশনের একটি দিক নির্দেশনা থাকবে। এটি নির্বাচনি বছর। সে কারণে সরকার ও দলের জন্য এবারের বাজেট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ বাজেট অবশ্যই হবে জনদরদী বাজেট। মানুষের কল্যাণের বাজেট। এ নিয়ে সন্দেহের কোনো কারণ নেই।’

ক্ষতিগ্রস্ত গ্যাস পাইপ মেরামত সম্পন্ন, বিকেলে পরিস্থিতি উন্নতি হবে



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ক্ষতিগ্রস্ত গ্যাস পাইপ মেরামত সম্পন্ন, ছবি: সংগৃহীত

ক্ষতিগ্রস্ত গ্যাস পাইপ মেরামত সম্পন্ন, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আনোয়ারা-ফৌজদারহাট পাইপলাইনের ক্ষতিগ্রস্ত পাইপ মেরামত ও গ্যাস কমিশনিং সম্পন্ন হয়েছে।

শুক্রবার (১২ জুলাই) সকাল সাড়ে ৭টায় গ্যাস সরবরাহ শুরু হয়েছে বিকেল নাগাদ গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক হবে বলে জানিয়েছে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ।

এলএনজি সরবরাহ ও গ্যাসগ্রিডের চাপ (বর্তমান ৭০ পিএসআই) এর সঙ্গে সমন্বয় করে পর্যায়ক্রমে গ্যাস সঞ্চালন ও চাপ বৃদ্ধি করা হচ্ছে। সিইপিজেডের জেটি নির্মাণের জন্য সয়েল টেস্ট কাজ পরিচালনার সময় জিটিসিএলের ৪২ ইঞ্চি ব্যাসের আনোয়ারা-ফৌজদারহাট উচ্চচাপ গ্যাস সঞ্চালন পাইপলাইনের ক্ষতিসাধন করে। নদীর তীর হতে ২৮০ মিটার দূরত্বে মাটির ১.৫ মিটার গভীরে পাইপলাইনটি অবস্থিত।

বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ সকল পাইপলাইনের ম্যাপ রাখার নির্দেশ দিয়ে বলেন, ম্যাপিং হাতে থাকলে এরকম দুর্ঘটনা ঘটবে না। গ্রাহক ভোগান্তি লাঘোব করতে নিয়মিত মনিটরিং বাড়াতে হবে অনাকাঙ্ক্ষিত এই ঘটনার জন্য গ্রাহকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

ঘূর্ণিঝড় রিমালের পর থেকেই গ্যাস সংকট বিরাজ করছে। ঝড়ে পন্টুনের সঙ্গে ধাক্কা লেগে সামিট গ্রুপের ভাসমান এলএনজি টার্মিনালের পাইপ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ওই ঘটনার পর থেকেই ওই এফএসআরইউ থেকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। ১৫ জুলাই নাগাদ চালু হওয়ার কথা রয়েছে। সামিট গ্রুপের ভাসমান ওই টার্মিনালটি দৈনিক ৫০০ মিলিয়ন গ্যাস সরবরাহ দিতে পারে। গ্যাস সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাওয়া সারাদেশেই তার প্রভাব পড়েছে। শিল্প কারখানা ও সিএনজি ফিলিং স্টেশনে স্বল্পচাপ বিরাজ করছে। সিএনজি ফিলিং স্টেশনগুলোতে যানবাহনের লম্বা সারি দেখা যাচ্ছে।

;

গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের বেনাপোল শাখা উদ্বোধন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের বেনাপোল শাখা উদ্বোধন

ছবি: গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের বেনাপোল শাখা উদ্বোধন

  • Font increase
  • Font Decrease

বিশ্বস্ত ব্যাংকিং সেবার প্রতিশ্রুতি নিয়ে বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) যশোরের বেনাপোলে গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের বেনাপোল শাখার উদ্বোধন করা হয়েছে।

প্রধান অতিথি হিসেবে শাখাটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ হাবিব হাসনাত।

এ সময় ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী মশিউর রহমান জেহাদ, বেনাপোল পৌরসভার মাননীয় মেয়র মোঃ নাসির উদ্দীন, বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ বজলুর রহমান, ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক, বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাসহ আমন্ত্রিত অতিথি ও গ্রাহকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও বিশ্বস্ত ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে ব্যাংকটি দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে স্বকীয়তা বজায় রেখে দ্রুততার সাথে ব্যাংকিং সেবার পরিধি সম্প্রসারণ করবে বলে অনুষ্ঠানে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়।

;

শুরু হলো এয়ার এ্যাস্ট্রা'র ফ্রিকোয়েন্ট ফ্লায়ার প্রোগ্রাম 'অরবিট'



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ফ্রান্সের তৈরি এটিআর-৭২-৬০০ এয়ারক্রাফট নিয়ে গত বছরে এদেশের আকাশে ডানা মেলে বেসরকারি এয়ারলাইনস এয়ার এ্যাস্ট্রা। অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার, প্রিমিয়াম এভিয়েশন সার্ভিস ও দেশের ডমেস্টিক এয়ার লাইন্স হিসেবে বেশ জনপ্রিয় লতা পেয়েছে খুব অল্প সময়ে।

এবার যাত্রী সেবা আরও সুন্দর ও আনন্দময় করতে আন্তর্জাতিক মানের সুবিধা নিয়ে এবার এয়ারলাইনটির ফ্রিকোয়েন্ট ফ্রায়ার প্রোগ্রাম 'অরবিট' এর যাত্রা শুরু হলো।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে এয়ার এ্যাস্ট্রা'র ফ্রিকোয়েন্ট ফ্রায়ার প্রোগ্রাম 'অরবিট' এর উদ্বোধন হয়।

এয়ার এ্যাস্ট্রা কর্তৃপক্ষ জানায়, যাত্রীদের সুবিধার্থে তিনটি ক্যাটাগরি রাখা হয়েছে অরবিট প্রোগ্রামে ইকো, ইভো এবং প্রো। যাত্রীরা এয়ার এ্যাস্ট্রায় নিয়মিত ভ্রমণ করে তাদের ফ্রিকোয়েন্ট ফ্লায়ার প্রোগ্রামে মাইলেজ যোগ করতে পারবেন এবং নির্দিষ্ট মাইলেজ খরচ করে এয়ার এ্যাস্ট্রায় ফ্রি ভ্রমণ করতে পারবেন। এছাড়াও থাকছে প্রায়োরিটি চেক-ইন, র‍্যাম্প কার, সিট সিলেকশন অপশন ও অতিরিক্ত ব্যাগেজ সুবিধা।

'অরবিট' উদ্বোধন উপলক্ষে, এই প্রোগ্রামে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার সাথে সাথে একটি ওয়েলকাম কিট পাবেন যাত্রীরা। যেখানে থাকছে দেশের স্বনামধন্য ১০টি ব্র্যান্ড শেয়ারট্রিপ, গোযায়ান, টুয়েলভ ক্লোবিং, শাহরুখ আমিন, এপেক্স, মানা বে, সি পার্ল ওয়াটার পার্ক, সিক্রেট রেসিপি, রেড বাই আফরোজা পারভিন, ফয়েজ লেক রিসোর্ট এর ডিসকাউন্ট ভাউচার। যাত্রীরা এয়ার এ্যাস্ট্রা'র ওয়েবসাইট, মোবাইল অ্যাপস, সেলস অফিস, এয়ারপোর্ট চেক-ইন কাউন্টার এবং ইন-ফ্লাইটে অরবিট' এর রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

এয়ারলাইনসটির নতুন এই অরবিট উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট কর্পোরেট ব্যক্তিত্ব এবং ওরাকল বাংলাদেশ, নেপাল এবং ভুটানের কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর রুবাবা দৌলাসহ ছিলেন এয়ার এ্যাস্ট্রা'র চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার ইমরান আসিফ এবং এয়ার এ্যাস্ট্রা'র চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার ইমরান আসিফ এবং চিফ কমার্শিয়াল অফিসার সোহেল মজিদ উপস্থিত ছিলেন।

এয়ার এ্যাস্ট্রা বর্তমানে ঢাকা-কক্সবাজার-ঢাকা, ঢাকা-চট্টগ্রাম-ঢাকা, ঢাকা-সিলেট-ঢাকা এবং ঢাকা- সৈয়দপুর-ঢাকা রুটে প্রতিদিন ১৪টি ফ্লাইট পরিচালনা করছে। এয়ার এ্যাস্ট্রা'র বহরে বর্তমানে চারটি এটিআর ৭২-৬০০ এয়ারক্রাফট রয়েছে, যা ফ্রান্সে নির্মিত সর্বাধুনিক প্রযুক্তির নিরাপদ টার্বোপ্রপ এয়ারক্রাফট। খুব শীঘ্রই আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট শুরু করবে বলে জানিয়েছে এয়ার এ্যাস্ট্রা কর্তৃপক্ষ।

;

জয়পুরহাটে ওয়ালটন এক্সক্লুসিভ শোরুম ‘আপন এন্টারপ্রাইজ’ উদ্বোধন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে ওয়ালটনের এক্সক্লুসিভ শোরুম ‘আপন এন্টারপ্রাইজ’ উদ্বোধন করছেন অতিথিবৃন্দ।

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে ওয়ালটনের এক্সক্লুসিভ শোরুম ‘আপন এন্টারপ্রাইজ’ উদ্বোধন করছেন অতিথিবৃন্দ।

  • Font increase
  • Font Decrease

বিশ্বমানের ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স পণ্য মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে যাত্রা শুরু করল দেশের ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটনের এক্সক্লুসিভ পরিবেশক শোরুম ‘আপন এন্টারপ্রাইজ’।

উপজেলার ডাকবাংলো সংলগ্ন মেইন রোডে চালু হওয়া শোরুমটিতে পাওয়া যাচ্ছে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও ফিচারের ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ফ্রিজ, টিভি, এসি, ওয়াশিং মেশিন, ফ্যান, রাইস কুকার, ব্লেন্ডার, ওভেন, এলইডি লাইট, ল্যাপটপ, কম্পিউটার, মোবাইল ফোনসহ ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স, আইসিটি, হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্স পণ্যসামগ্রী।

উদ্বোধন উপলক্ষে ওয়ালটনের যেকোনো পণ্য কেনায় ক্রেতাদের ১০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে আপন এন্টারপ্রাইজ। এই সুবিধা চলবে চলতি জুলাই মাস জুড়ে।

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিকভাবে এক্সক্লুসিভ শোরুম ‘আপন এন্টারপ্রাইজ’ উদ্বোধন করেন ওয়ালটনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ও চিত্রনায়ক আমিন খান এবং ওয়ালটন ডিস্ট্রিবিউটর নেটওয়ার্কের হেড অব সেলস ফিরোজ আলম।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আক্কেলপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র সাদেকুর রহমান, থানার অফিসার ইন-চার্জ নয়ন হোসেন, ওয়ালটনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শাহজালাল হোসেন লিমন, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শহীদুজ্জামান রানা, ডিভিশনাল সেলস ম্যানেজার মিজানুর রহমান, রিজিওনাল সেলস ম্যানেজার মেহেদি হাসান, আপন এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী ছানোয়ার হোসেনসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

অনুষ্ঠানে আপন এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী ছানোয়ার হোসেন জানান, আন্তর্জাতিকমানের পণ্য ও সেবা প্রদানের মাধ্যমে ওয়ালটন বাংলাদেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় ও বিশ্বস্ত ব্র্যান্ডে পরিণত হয়েছে। ওয়ালটন সব সময় সর্বোচ্চ ক্রেতাসুবিধা দিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় নতুন শোরুমটি উদ্বোধন উপলক্ষে চলতি জুলাই মাস জুড়ে যেকোনো পণ্য কেনায় ক্রেতারা ১০ শতাংশ ছাড় পাবেন।

ওয়ালটন ডিস্ট্রিবিউটর নেটওয়ার্কের হেড অব সেলস ফিরোজ আলম বলেন, ওয়ালটনের আন্তর্জাতিকমানের পণ্য এখন প্রতিটি ঘরে শোভা পাচ্ছে। রপ্তানি হচ্ছে বিভিন্ন দেশে। ওয়ালটনের ইলেকট্রনিক্স পণ্য মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতেই এই শোরুমটির উদ্বোধন। নতুন শোরুমটি থেকে এই অঞ্চলের মানুষ এখন আরও সহজেই ওয়ালটনের পণ্য ও সেবা পাবেন।

চিত্রনায়ক আমিন খান বলেন, দেশে ইলেকট্রনিক্স পণ্যের চাহিদা মিটিয়ে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগযুক্ত ওয়ালটনের পণ্য এখন ৪০টিরও অধিক দেশে রপ্তানি হচ্ছে। এই অঞ্চলে নতুন শোরুমের মাধ্যমে ওয়ালটনের ব্যবসায়িক পরিধি আরও বৃদ্ধি পাবে। আপন এন্টারপ্রাইজের মাধ্যমে হাতের নাগালেই পাবেন প্রয়োজনীয় ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স পণ্য।

;