ছুটির দিনে জনস্রোত বাণিজ্য মেলায়

নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছুটির দিনে বাণিজ্য মেলায় উপচেপড়া ভিড়

ছুটির দিনে বাণিজ্য মেলায় উপচেপড়া ভিড়

  • Font increase
  • Font Decrease

বাণিজ্য মেলা প্রাঙ্গণ থেকে: সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বাণিজ্য মেলায় বেড়েছে ক্রেতা সমাগম, বাড়ছে বিক্রিও। সপ্তাহের ছুটির দিন শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বাণিজ্য মেলায় ছিল দর্শনার্থী ও ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়। গতবারের তুলনায় এবার মেলায় বেশ সুশৃঙ্খল ভাবে দর্শনার্থী ও ক্রেতাদের মেলা প্রাঙ্গণে ভিড়তে দেখা গেছে।

মেলা ঘুরে দেখা যায়, প্রায় সব স্টল ও প্যাভিলিয়নে ছিল ক্রেতা সমাগম। ক্রেতা সমাগম বেশি থাকায় খুশি বিক্রেতারাও। রকমারি পণ্যের পসরা সাজিয়ে নানা অফার রাখছেন ক্রেতাদের জন্য। দূর থেকে আসা দর্শনার্থীদেরও যেন খালি হাতে ফিরে না যেতে হয় এজন্য সর্বনিম্ন মূল্যে বাহারি পণ্য মিলছে স্টলগুলোতে। শিশু-কিশোর, তরুণ-তরুণী থেকে শুরু করে সব বয়সীদরে জন্যই রয়েছে নানান ধরনের পণ্য।

প্রায় সব স্টল ও প্যাভিলিয়নে ছিল ক্রেতা সমাগম

বিক্রেতারা জানান, প্রতিবারের মতো এবারও মেলায় সবচেয়ে বেশি চাহিদা রয়েছে গৃহস্থালি পণ্যের। ওয়ালটন, আরএফএল, বেঙ্গল, পারটেক্স, আকতার ফার্নিচার, নাভানাসহ বিভিন্ন গৃহ সামগ্রীর স্টল ও প্যাভিলিয়নে ক্রেতাদের ভিড় সবচেয়ে বেশি।

মেলার গৃহস্থলি পণ্য বিক্রয়কর্মী হিসেবে কাজ করছেন আজহার। তিনি বার্তা২৪.কমকে বলেন, ছুটির দিন হওয়ায় মেলায় লোক সমাগম বেশি। অন্য দিনের তুলনায় আজ পণ্যও বেশি বিক্রি হচ্ছে। সন্ধ্যার পর হয়তো আরও ভিড় হবে।

মেলায় কসমেটিকস বিক্রেতা আজিজ বলেন, আমার এখানে সবই পাকিস্তানি কসমেটিকস। মাসের ১৭ তারিখ হলেও মেলা এখনও জমে ওঠেনি। মেলায় বিক্রি নেই বললেই চলে। সামনের দিন গুলতে বিক্রি জমে উঠবে বলে আশা করছি। তবে চাহিদা অনুযায়ী বেচা-বিক্রিতে সন্তুষ্ট না আমরা। অনেকটা হতাশ বলা চলে।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বাণিজ্য মেলায় বেড়েছে ক্রেতা সমাগম, বাড়ছে বিক্রিও

মেলায় ধানমন্ডি থেকে আগত দর্শনার্থী শিলা রহমান বলেন, আজই প্রথম মেলায় এসেছেন তিনি। এখানে দিল্লি অ্যালুমিনিয়াম থেকে গৃহস্থালি পণ্য কিনতে এসেছেন। পাশাপাশি সব স্টল ঘুরে দেখছেন। বাইরে মতোই দাম এখানে। তবে কিছু অফার থাকায়  পণ্যগুলো বিক্রেতাদের জন্য সাশ্রয়ী হচ্ছে।

অন্যান্য ক্রেতারা জানান, মেলা ঘুরে তবে পণ্য কিনছি। প্রতিবারের মতো ক্রেতা আকৃষ্ট করতে নানা কৌশল অবলম্বন করছেন বিক্রেতারা। মিষ্টি কথা বলছেন আবার কেউবা দিচ্ছেন মূল্যছাড়সহ নানা অফার। এছাড়া পণ্যে গ্যারান্টি থাকায় বাড়তি সুবিধা মিলছে। চাইলে আশপাশে নির্দিষ্ট শোরুম থেকে চেঞ্জ করে নেবার সুবিধাও রয়েছে।

দীর্ঘলাইনে অপেক্ষার পর মেলায় প্রবেশ করছেন দর্শনার্থীরা

রাজধানীর মিরপুর থেকে এসেছেন একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা মুনেম আহমেদ। তিনি বার্তা২৪.কমকে বলেন, ছুটির দিনে পরিবার নিয়ে ঘুরতে এসেছি। এছাড়া অনেক কিছু কেনারও আছে। কারণ মেলায় ভিন্ন ধরনের অনেক আইটেম পাওয়া যায়। পাশাপাশি মূল্যছাড়ও থাকে।

মেলায় বিভিন্ন দেশ থেকে আগত বিক্রয়কর্মীরা জানান, আমরা সব পণ্য সীমিত লাভেই বিক্রি করছি। কারণ আমাদের দেশের এসব পণ্যের বেশ চাহিদা এদেশে আছে। এজন্য বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থাও রেখেছি। প্যাভিলিয়নে দর্শনার্থী-ক্রেতা উভয়ই আসছেন। তারা পণ্য দেখছেন, অনেকে কিছু কিনছেন। আবার অনেকে না কিনলেও পণ্যটি পছন্দ করে রেখে যাচ্ছেন আরেকদিন এসে কিনবেন বলে।

তবে সামনের দিনগুলোতে কেনাবেচা আরও জমে উঠবে, এমন প্রত্যাশাই করছেন মেলার দেশি-বিদেশি বিক্রেতারা।

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর