দ্যুতিময় এক শিল্পীর নাম সালমান শাহ: শাকিব খান



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
সালমান শাহ ও শাকিব খান

সালমান শাহ ও শাকিব খান

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলা সিনেমার ইতিহাসে খুব কম নায়কই এসেছে তাঁর মতো। বাংলা সিনেমার দর্শকেরাও খুব কম দেখেছে তাঁর মতো নায়ক। প্রথম চলচ্চিত্র থেকেই তিনি ছিলেন সুপারহিট নায়ক। অসাধারণ ও সাবলীল অভিনয় দক্ষতা দিয়ে জয় করে নিয়েছিলেন সর্বশ্রেণির দর্শকের মন। উপহার দিয়েছেন অনেক জনপ্রিয় ও ব্যবসাসফল ছবি।

একজন সফল চিত্রনায়ক হিসেবে যখন পুরোপুরি প্রস্ফূটিত তাঁর নায়কজীবন, ঠিক তখনই ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর হঠাৎ করে থেমে গেল তাঁর গতিময় ও প্রাণবন্ত জীবন। ‘রহস্যময় আত্মহত্যা’ তাঁকে কেড়ে নেয় দেশব্যাপী লাখো ভক্তদের কাছ থেকে। বাংলা সিনেমা হারিয়ে ফেলল তাঁর ইতিহাসের অন্যতম সেরা ও সফল নায়ককে। আজ এই মহানায়কের ৫০তম জন্মদিন।

সালমান শাহ নেই তবুও তার জীবনের বিশেষ এই দিনটিতে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন সকলে। আবার কেউ কেউ শেয়ার করছেন তার সঙ্গে কাটানো নানা মুহূর্ত।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সালমান শাহ’র জন্মদিনে তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে শাকিব খান লিখেছেন, “দ্যুতিময় এক শিল্পীর নাম সালমান শাহ। বেঁচে থাকলে তিনি আজ ৫০ বছরে পা রাখতেন। হয়তো বয়সের ছাপ ফুটে উঠতো তাঁর হাসিতে। গলায় ভর করতো গাম্ভীর্য। দুয়েকটা সাদাচুল দেখা গেলেও তাঁর নায়ক সুলভ ব্যক্তিত্বের সামনে হয়তো কোনো পাত্তাই পেত না! তাকে নিয়েই ৫০তম জন্মদিনের সুর্বণ জয়ন্তী পালন করতাম।”

“বাংলা চলচ্চিত্রের ইতিহাসে ক্ষণজন্মা এ মানুষটি ২৫ বছর আগে চলে গেলেও আজও আমার মনে সেই ২৫ বছরের তরুণ নায়ক হয়ে দাগ কেটে আছেন। যে দাগটা তাঁর প্রস্থানের এতো বছর পরেও জ্বলজ্বলে।”

“অভিনয় জীবনে অল্পসময়ে এতো মানুষের ভালোবাসা পাওয়া যে সত্যি দুর্লভ ভাগ্যের ব্যাপার, সেটা সালমান শাহকে দেখলে বোঝা যায়। আজও বাংলার মানুষ তাকে আবেগ ও শ্রদ্ধায় স্মরণ করছে, ভবিষ্যতেও করে যাবে।”

“একজন মানুষ অমরত্ব পায় তার কর্মের মাধ্যমে। সালমান শাহ নামক মহান শিল্পী অকালে চলে গিয়েও আমাদের কাছে অমর হয়ে আছেন। তিনি বেঁচে থাকবেন তার ভক্ত অনুরাগীদের হৃদয়ে, প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে।”

“শুভ জন্মদিন ইতিহাসের অন্যতম শ্রেষ্ঠ নায়ক সালমান শাহ।”