প্রযোজক জেনিফারের অনুদানের টাকায় শপিং করেছেন!



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
সংবাদ সম্মেলনে মাহি ও রোশন

সংবাদ সম্মেলনে মাহি ও রোশন

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রযোজক জেনিফার ফেরদৌসের সঙ্গে অভিনেত্রী মাহিয়া মাহির ঝামেলা থামবার নাম নিচ্ছে না। প্রযোজকের বিরুদ্ধে এবার একরাশ বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

শুধু মাহিই নন, প্রযোজকের আচরণে বিরক্ত চিত্র নায়ক রোশানও। জেনিফার ফেরদৌসের প্রযোজনায় ‘আশীবার্দ’ ছবিতে অভিনয় করেছেন মাহি ও রোশান। গত সপ্তাহেই মাহির বিরুদ্ধে সংবাদমাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করেন এ প্রযোজক।

নবীন এই প্রযোজক গণমাধ্যমে কটু মন্তব্য করেন। এতে করে ভীষণ চটেছেন এই দুই তারকা।

বৃহস্পতিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে জেনিফারের বিরুদ্ধে সরকারি অনুদান হিসাবে প্রাপ্ত টাকা ‘নয় ছয়’-এর অভিযোগ আনলেন মাহি। ৬০ লাখ টাকা সরকারি অনুদান নিয়ে তৈরি হয়েছে ‘আর্শীবাদ’ ছবিটি।

মাহি জানান, জেনিফার ফেরদৌস কোনো পেশাদার প্রযোজক নন। যেহেতু এটা সরকার ও জনগণের টাকার সিনেমা তাই জেনিফার ফেরদৌস এখানে লাইন প্রডিউসার। তাঁকে যে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল উনি বরং সেখান থেকে টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

তিনি বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক ছবি এবং সরকারি অনুদানের ছবি বলেই ‘আশীর্বাদ’ করতে রাজি হয়েছিলাম। আরেকটি কারণ হচ্ছে এই ছবির পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। তার সঙ্গে আমার এতো ভালো বোঝাপড়া যে ১০ লাখের জায়গায় ৫ লাখ টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছি। আমি কিন্তু শুরু থেকে বলে আসছি জেনিফারকে দেখে আমি সিনেমাটি করিনি। কিন্তু জেনিফার শ্যুটিং এমন অপেশাদার আচরণ করবেন ভুলেও ভাবিনি। ছবি করতে গিয়ে যে তিক্ত অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছি গত ১০ বছরের কেরিয়ারে কোনও প্রযোজকের সঙ্গে এমন বাজে অভিজ্ঞতা হয়নি।’

মাহিয়া মাহি জানান, তিনি কাউকে ছোট করে কথা বলছেন না। বাধ্য হয়েই আজ সত্যিটা সামনে আনছেন। খুব স্বপ্ন নিয়ে অনুদানের সিনেমাটি করতে চেয়েছিলাম। ভেবেছিলাম কোনোভাবে যদি প্রধানমন্ত্রী কাজটি দেখেন! ৬০ লাখ টাকায় অনেক ভালো সিনেমা বানানো সম্ভব। কিন্তু আমার অভিজ্ঞতার আলোকে বলছি, সর্বোচ্চ ২৫ লাখ টাকার মতো খরচ করেছেন প্রযোজক। বাকি টাকা প্রযোজক কোথায় খরচ করেছে সরকারের খতিয়ে দেখা উচিত। তার জবাবদিহি করা উচিত। এই টাকা ওনার নয়। সরকারি অনুদান দেওয়া হয় জনগণের ট্যাক্স থেকে।

মাহির অভিযোগ সরকারি অনুদানের টাকায় প্রযোজক জেনিফার ফেরদৌস শপিং করেছেন কিনা খতিয়ে দেখা দরকার।

মাহি আরও বলেন, ‘আমি নাকি ২৫ লিটার পানি দিয়ে গোসল করেছি। ওনার শুটিংয়ে আউটডোরেই তো যাইনি, উনি পানি কি বাসায় পাঠিয়েছিলেন?

সংবাদ সম্মেলনে রোশান বলেন, আমি মাত্র একলাখ টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছি। বলেছি আমার বাকি টাকা সিনেমাটির ভালোর জন্য খরচ করতে। কিন্তু জেনিফার তা করেনি। বরং নিজের মন মতো যা ইচ্ছে তাই করছেন। আমাদের না জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করছেন যাতে তার ব্যক্তিগত প্রচার বাড়ে। আমাকে মিথ্যে অভিযোগ দিয়ে নিজের কাটতি বাড়াচ্ছেন। যা আমি কোনোভাবে আশা করিনি। বাধ্য হয়েই আজ সবাইকে কথাগুলো জানাতে হলো।

রোশান-মাহি ছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে ছিলেন ছবির পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত এই পরিচালক বলেন, প্রযোজক জেনিফার যেসব অভিযোগ তুলেছেন সবটাই অবান্তর। রোশান-মাহি যা বলেছেন একেবারেই ঠিক। তারা দুজনেই ভীষণ পেশাদারিত্বের পরিচয় দিয়েছেন।

লুই ভিতোঁর ফ্যাশন শো-তে দীপিকা



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
লুই ভিতোঁর ফ্যাশন শো-তে দীপিকা

লুই ভিতোঁর ফ্যাশন শো-তে দীপিকা

  • Font increase
  • Font Decrease

দীপিকা পাড়ুকোন। যার খ্যাতি ভারত ছেড়ে এখন দুনিয়া জুড়ে। সম্প্রতি লুই ভিতোঁ-এর অন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়েছেন অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। প্যারিসে এই কোম্পানির সামার ২০২২ কালেকশনের লঞ্চে উপস্থিত ছিলেন তিনি। গোটা বিশ্বের ফ্যাশন দুনিয়ার নামজাদা মুখদের দেখা মিলেছিল এদিনের প্যারিস ফ্যাশন উইকে। আর এতে সামনের সারিতে দীপিকা।

ফ্যাশন শো-তে গ্রে রঙের একটি মিনি ড্রেস পরেছিলেন দীপিকা। সঙ্গে গাঢ় পাম রঙের লিপস্টিক আর লুই ভিতন ব্র্যান্ডেরই অ্যাকসেসরিজ। চোখ টানছিল অভিনেত্রীর হাতে থাকা সোনালি রঙের ব্যাগটি। পায়ে ছিল কালো রঙের হাই-নি বুটস।


তিনিই প্রথম কোনও ভারতীয় যে লুই ভিতনের মুখ হয়েছেন। এর আগেও এই সংস্থার সঙ্গে মডেল হিসেবে কাজ করেছিলেন দীপিকা। ২০২০ সালে প্রথম ভারতীয় হিসেবে তিনি এই ফরাসি সংস্থার প্রচারেও অংশগ্রহণ করেছিলেন।

ব্র্যান্ড অ্যাম্বেসেডর হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর দীপিকা তাঁর ইনস্টাগ্রামে লিখেছিলেন, ‘কিছু জিনিস কেনার কথা স্বপ্নেও কেউ কল্পনা করতে পারেন না। লুই ভিতোঁ আমার কাছে সেটাই ছিল। আমি আসলে খুব বাস্তববাদী। জানি, কোনটা পারব, কোনটা পারব না। এই চুক্তি হওয়ার পর থেকে নিজেকে সমানে চিমটি কেটে যাচ্ছি। যাতে বুঝতে পারি এটা স্বপ্ন না, সত্যি!’


সপ্তাহখানেক আগেই খবর মিলেছিল শরীর নাকি একেবারেই ভালো নেই অভিনেত্রীর। মুম্বইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালেও ভর্তি হতে হয়েছিল। তবে এদিন নায়িকাকে দেখে অনেকটাই আশ্বস্ত তাঁর ভক্তরা। কারণ দেখে কোনওদিক থেকেই তাঁকে অসুস্থ লাগেনি। বরং ফুরফুরে মেজাজে লাবণ্য ছড়াচ্ছিলেন সবার প্রিয় ‘দীপু’।

;

১৬ অক্টোবর নিউইয়র্কের কুইন্সে থাকছে তারকামেলা



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
আমেরিকায় যাচ্ছে অনেক তারকা। কেনো যাচ্ছেন তাঁরা?

আমেরিকায় যাচ্ছে অনেক তারকা। কেনো যাচ্ছেন তাঁরা?

  • Font increase
  • Font Decrease

খবর নিয়ে জানা যায়, ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান যুক্তরাষ্ট্রে না গেলেও একটি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে অংশ নিতে ১৩ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বেন তাহসান, চঞ্চল চৌধুরী, ইমন, ফারিয়া শাহরিন, নির্মাতা রাজ, মেহজাবীন, তাসনিয়া ফারিণ, তানজিন তিশা, পূজা চেরি, জিয়াউল হক পলাশ প্রমুখ।

শোটাইম মিউজিক এই অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। ১৬ অক্টোবর নিউইয়র্কের কুইন্সে বসবে আসরটি, নিশ্চিত করেছেন আয়োজক প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার আলমগীর খান আলম। তিনি জানান, নিউইয়র্কের আমাজুরা কনসার্ট হলে অনুষ্ঠিত হবে ঢালিউড ফিল্ম অ্যান্ড মিউজিক অ্যাওয়ার্ড।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরে বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ে দীর্ঘদিন পর ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান শাকিব। তাঁরও এই শোতে অংশ নেবার কথা ছিল । শো টাইম মিউজিক দীর্ঘদিন ধরে সুনামের সাথে এই অনুষ্ঠানটি করে আসছে।

;

রায়হান রাফির নতুন সিনেমায় শাকিব খান



কন্ট্রিবিউটিং এডিটর, বার্তা ২৪.কম
রায়হান রাফির নতুন সিনেমায় শাকিব খান

রায়হান রাফির নতুন সিনেমায় শাকিব খান

  • Font increase
  • Font Decrease

এবার নির্মাতা রায়হান রাফির নতুন সিনেমায় দেখা যাবে ঢালিউডের কিং খানখ্যাত শাকিব খানকে। নাম না ঠিক হওয়া সিনেমার বিষয়টি ইতোমধ্যে চূড়ান্ত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে বিষয়টি রায়হান রাফি নিজেই নিশ্চিত করেছেন। রাফি জানান, ‘দামাল-এর পর আমার সবচেয়ে বড় ভেঞ্চার নির্মিত হতে যাচ্ছে এসকে ফিল্মসের সাথে। আমার এই সিনেমার প্রযোজক হিসেবে আছেনও টপি খান ও মনিরুজ্জামান।

এদিন পরাণখ্যাত এ নির্মাতা ফেসবুকে জানালেন, শাকিব খানের সঙ্গে পরিচালক রায়হান রাফির কোলাবোরেশন আসছে খুব শিগগিরই।

শাকিব খানের সাথে তাঁর কাজ হোক এটা রাফির নিজেরও অনেক ইচ্ছে ছিল বলে জানান তিনি।

সিনেমায় শাকিবের নায়িকা কে? বিষয়টিকে চমক হিসেবেই রেখেছেন নির্মাতা। বলছেন, শাকিব ভাই সাথে আমার প্রথম এই প্রোজেক্ট ইনশাআল্লাহ আপনাদের জন্য ধামাকা কিছুই হবে। এখনই জানাতে চান না এই নির্মাতা ।

;

ক্লাসরুম মাতাবেন তাহসান-ঐশী



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ক্লাসরুম মাতাবেন তাহসান-ঐশী

ক্লাসরুম মাতাবেন তাহসান-ঐশী

  • Font increase
  • Font Decrease

এবার বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটিতে বসবে তাহসান ও ঐশী ভক্তদের মেলা। কারণ, জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী-অভিনেতা তাহসান খান ও পাওয়ার ভয়েজের ঐশী হাজির হবেন বিশাল ধামাকা নিয়ে। দুই সুপার রকস্টারের মনমাতানো সব গানে মাতবে ক্লাসরুমের দুষ্টু ছেলে ও মিষ্টি মেয়েরা।

২৮ অক্টোবর এসএসসি-২০০১ ব্যাচের ফেসবুককেন্দ্রিক জনপ্রিয় গ্রুপ ‘ক্লাসরুম’র ৩য় বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ উপলক্ষে সব বন্ধু একত্রিত হবে বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটিতে। তাহসান-ঐশী ছাড়াও ক্লাসরুম বন্ধু রাফায়েল মুরসালিনের পারফরমেন্স, ডিজেসহ দিনভর আনন্দে ও গানে উৎসবমুখর পরিবেশে কাটাবে ক্লাসরুমে আগত বন্ধুরা।

ক্লাসরুম কর্তৃপক্ষ জানায়, ‘গত বছর ক্লাসরুমের ১২ই মার্চের প্রোগ্রাম ছিল এক ইতিহাস। নগরবাউল জেমস ক্লাসরুম মাতান জনপ্রিয় সব গান নিয়ে। ২৮ শে অক্টোবর সেই ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি করতে যাচ্ছে। এবার ক্লাসরুম মাতাবেন তাহসান ও ঐশী। যাঁদের গানে বুঁদ হয়ে যায় দেশের সবাই। এ উপলক্ষে সকল বন্ধু একত্রিত হবে বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে।

২৮শে অক্টোবর এসএসসি-২০০১ ব্যাচের ২১ বছর পূর্তি এবং ক্লাসরুমের ৩য় বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠিত হবে। সব বন্ধুকে একত্রিত করতেই ফের আমরা মিলিত হচ্ছি এক ছাদের নিচে। বন্ধুদের নিয়ে হবে খাওয়া-দাওয়া, আনন্দ, গানে গানে মাতামাতি আর আড্ডা। এসএসসি-২০০১ ব্যাচের সকল বন্ধুরা সাদরে আমন্ত্রিত।’

তাহসান বলেন, ‘দেখা হবে ২৮ অক্টোবর। প্রিয় সব গান হবে। আশা করছি, উপভোগ্য একটি অনুষ্ঠান হবে।’ ঐশী বলেন, ‘আমি বরাবরই এমন ধরনের আয়োজন পছন্দ করি। যেখানে গানের সঙ্গে প্রিয় বন্ধুদের আড্ডা-দারুণ বিষয়! সেদিন দেখা হবে ক্লাসরুমের দুষ্টু পোলাপানের সঙ্গে। ক্লাসরুম বন্ধুরা, সবাই রেডি তো?’

;