রানির অভিষেকের দিন বাবার বাইপাস সার্জারি

বিনোদন ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
বাবা রাম মুখার্জির সঙ্গে রানি মুখার্জি

বাবা রাম মুখার্জির সঙ্গে রানি মুখার্জি

  • Font increase
  • Font Decrease

‘রাজা কি আয়েগি বারাত’ ছবির মধ্য দিয়ে ১৯৯৬ সালে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখেন রানি মুখার্জি। গত ১৮ অক্টোবর ২৩ বছর পূর্ণ করেছে ছবিটি। এ উপলক্ষ্যে একটি সাক্ষাৎকারে অংশ নিয়েছিলেন বলিউডের এই অভিনেত্রী। যেখানে তিনি জানান, ছবিটি মুক্তির দিন তার বাবা রাম মুখার্জির বাইপাস সার্জারি হয়।

এ প্রসঙ্গে রানি বলেন, “রাজা কি আয়েগি বারাত’ মুক্তির দিনটি আমার কাছে অনেক বেশি স্মরণীয়। কারণ এই দিনটিতে বাবার বাইপাস সার্জারি হয়। তিনি সেসময় মুম্বাইয়ের বিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। বাবা অবশ্য ছবিটি দেখে তারপর সার্জারি করাতে চাইছিলেন। কিন্তু সেসময় তাকে বোঝালাম যে, বাবা তোমার অবস্থা একটু ক্রিটিক্যাল তাই সার্জারিটা আগে প্রয়োজন।”

মা-বাবার সঙ্গে রানি মুখার্জি

 

যোগ করে রানি বলেন, ‘বাবার সার্জারি হওয়ার পর অজ্ঞান অবস্থায় দুইদিন আইসিইউতে ছিলেন। আর জ্ঞান ফেরার পর তিনি প্রথমেই যে কথাটি জিজ্ঞাসা করেন সেটি ছিলো, ছবিটি মুক্তি পেয়েছে? কেমন চলেছে?”

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পরই মেয়ের ছবি দেখতে হলে চলে গিয়েছিলেন রাম মুখার্জি। এ প্রসঙ্গে রানি বলেন, ‘আমার মনে আছে আমি যখন হাসপাতাল থেকে বাবাকে বাড়িতে নিয়ে যাই সেসময় তিনি গায়তি গ্যালাক্সিতে গিয়ে ছবিটি দেখার জন্য খুব জোর করেন। পরে তিনি গায়তি গ্যালাক্সিতে গিয়ে হুইলচেয়ারে বসে ছবিটি দর্শকদের সঙ্গে দেখেন। এটিই ছিল আমার অভিষেক ছবির কাহিনি যা আমি কোনদিনও ভুলবো না।’

‘রাজা কি আয়েগি বারাত’-এর পর ‘গুলাম’, ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’, ‘হে রাম’, ‘কাভি খুশি কাভি গাম’, ‘কাল হো না হো’ ও ‘নায়ক’র মতো অসংখ্য ব্লকবাস্টার ছবিতে অভিনয় করেছেন রানি। বর্তমানে তিনি ব্যস্ত রয়েছেন ‘মারদানি’ ছবির সিক্যুয়েল ‘মারদানি টু’ নিয়ে। আগামী ১৩ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে ছবিটি।

আপনার মতামত লিখুন :