আবারও একসঙ্গে দুই ছবি স্টার সিনেপ্লেক্সে

বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ডুলিটল ও ব্যাড বয়েজ ফর লাইফ ছবির পোস্টার

ডুলিটল ও ব্যাড বয়েজ ফর লাইফ ছবির পোস্টার

  • Font increase
  • Font Decrease

বছরের শুরুতেই পরপর দুই সপ্তাহে একসঙ্গে দুটি করে হলিউডের ছবি মুক্তি দিচ্ছে স্টার সিনেপ্লেক্স। গত ১০ জানুয়ারি দুটি ছবি মুক্তির পর এবার ১৭ জানুয়ারি আরো দুটি ছবি মুক্তি দিচ্ছে জনপ্রিয় এই মাল্টিপ্লেক্সটি। এগুলো হলো- ‘ব্যাড বয়েজ’ সিরিজের ‘ব্যাড বয়েজ ফর লাইফ’ আর অন্যটি রবার্ট ডাউনি জুনিয়র অভিনীত ‘ডুলিটল’। আন্তর্জাতিক মুক্তির দিনই ছবিগুলো মুক্তি দিচ্ছে স্টার সিনেপ্লেক্স।

হলিউডের জনপ্রিয় মুভি সিরিজের প্রথম ছবি ‘ব্যাড বয়েজ’ মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯৫ সালে। ছবিটি সেসময় বেশ সাড়া জাগিয়েছিলো। পরের ছবি ‘ব্যাড বয়েজ টু’ মুক্তি পায় ২০০৩ সালে। সেটিও দর্শকদের মন জয় করে। যার ফলে দর্শকরা অপেক্ষায় ছিলেন পরের কিস্তির জন্য। কিন্তু অপেক্ষাটা বেশি দীর্ঘ হয়ে যায়। প্রায় ১৬ বছরের বিরতির পর অবশেষে সেই অপেক্ষার অবসান ঘটতে যাচ্ছে। পর্দায় আসছে সিরিজের তৃতীয় কিস্তি ‘ব্যাড বয়েজ ফর লাইফ’।

প্রথম দুই ছবির পরিচালক ছিলেন মাইকেল বে। ‘ব্যাড বয়েজ’ দিয়েই তিনি প্রথমবারের মতো পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ শুরু করেন। তবে ‘ব্যাড বয়েজ ফর লাইফ’ ছবি পরিচালনা করছেন আদিল এল আরবি এবং বিল্লাল ফালাহ।

শুধু নতুন পরিচালক নয়, দেখা যাবে কয়েকটি নতুন মুখও। তারা হলেন ভেনেসা হাজেন্স, অ্যালেক্সান্ডার লাডউইগ এবং চার্লস মেল্টনকে। তবে চমকটা হচ্ছে, এই তিনজন ছাড়াও রহস্যময় একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় সংগীত ব্যক্তিত্ব ডিজে খালেদ।

‘ব্যাড বয়েজ ফর লাইফ’র গল্পে দেখা যাবে রোমানিয়ান মাফিয়া প্রধান আর্মান্দো আর্মাস একজন ঠাণ্ডা মাথার খুনি। একের পর এক খুন করে চলে সে। চারদিকে ছড়িয়েছে মৃত্যুর আতংক। তাকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় দেশ। কিভাবে থামানো যায় তাকে? অবশেষে আর্মাসকে থামাতে দায়িত্ব নেন দুই গোয়েন্দা। ছবিতে প্রধান দুই গোয়েন্দা চরিত্রে অভিনয় করছেন যথারীতি উইল স্মিথ এবং মার্টিন লরেন্স।

১৯২০ সালে হিউ লফটিংয়ের লেখা একটি শিশুতোষ সিরিজ বই ‘ডুলিটল’। সিরিজটির গল্প মজার একজন ডাক্তারকে নিয়ে। যার নাম জন ডুলিটল। ১৯৬৭ সালে প্রথম এই সিরিজ নিয়ে সিনেমা নির্মিত হয়। যেখানে মূল চরিত্রে অভিনয় করেন র‌্যামক্স হ্যারিসন। এরপর ১৯৯৮ সালে আরেকটি সিনেমা তৈরি হয়। সেখানে অভিনয় করেন এডি মারফি। এছাড়া বিভিন্ন সময় ‘ডক্টর ডুলিটল’ চরিত্র নিয়ে তৈরি হয় টিভি সিরিজ, সিনেমা ও কার্টুন। জনপ্রিয় এই চরিত্র নিয়ে এবার নিতুন আঙ্গিকে সিনেমা নির্মাণ করল প্রযোজনা সংস্থা ইউনিভার্সেল পিকচার্স। সিনেমার নাম ‘ডুলিটল’। পরিচালনা করেছেন স্টিফেন গ্যাঘান। কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন রবার্ট ডাউনি জুনিয়র। আবার ফেরত আসছেন।

পশুপাখির চিকিৎসক মিস্টার ডুলিটল স্ত্রীর মৃত্যুর পর স্বেচ্ছায় কিছুটা আড়ালে চলে যান। তার এক অদ্ভুত ক্ষমতা আছে। সে প্রাণীদের সঙ্গে কথা বলতে পারে। তার সঙ্গী-সাথী কয়েকটা প্রাণী শুধু। কিন্তু এক অদ্ভুত আদেশ তার জীবন বদলে দেয়। রানীর জন্য এক ওষুধ আনতে তাকে পাঠানো হয় এক দ্বীপে। তার সঙ্গী-সাথী প্রাণীরাও তার সঙ্গে যাত্রা শুরু করে। ইচ্ছা না থাকা সত্ত্বেও ডুলিটল তার যাত্রা শুরু করেন।

ছবিটি ২০১৯ সালে মুক্তি দেয়ার কথা থাকলেও স্টার ওয়ার্সের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হতে পারে বলে সিনেমাটির মুক্তি পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। রবার্ট ডাউনি জুনিয়র ছাড়াও সিনেমাটিতে পশুর পাখির কণ্ঠ দিয়েছেন এমা থম্পসন, অস্কারজয়ী রামি মালেক, জেমস বন্ড সিনেমার এম খ্যাত রেফ ফাইঞ্জ, স্পাইডারম্যান খ্যাত টম হল্যান্ড, মারিয়োঁ কোতিয়ার, সাবেক রেসলার জন সিনা, কুমাইল নানজিয়ানি, অক্টোভিয়া স্পেন্সার, সেলেনা গোমেজের মতো এক ঝাঁক তারকা।

আপনার মতামত লিখুন :