শৈশবে ভাড়া দিতে না পারায় মাদুরে ঘুমিয়েছেন হৃতিক

বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
বাবা ও বোনের সঙ্গে ছোট হৃতিক রোশন

বাবা ও বোনের সঙ্গে ছোট হৃতিক রোশন

  • Font increase
  • Font Decrease

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম হৃতিক রোশন। কিন্তু আজকের এই অবস্থানে পৌঁছাতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে এই সুপারস্টারকে।

শুধু অভিনেতা হওয়ার জন্যই কাঠখড় পোড়াতে হয়নি হৃতিককে। তাকে তার শৈশবও পার করতে হয়েছে অভাবের মধ্যে।

২০০৬ সালে সাবেক স্ত্রী সুজানাকে নিয়ে বর্ষীয়ান অভিনেত্রী সিমি আগারওয়ালে সঞ্চালিত একটি অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন হৃতিক রোশন। সেখানেই এই দম্পতিকে তাদের শৈশব কেমন কেটেছে তা জানতে চাওয়া হয়।

সিমির প্রশ্নের উত্তরে সুজানা জানান, তিনি ছোটবেলা থেকে সবসময় সুখে আনন্দে দিন কাটিয়েছেন।

তবে হৃতিকের শৈশবটি ছিলো একেবারে ভিন্ন। কষ্টের সেই দিনগুলোর কথা স্মরণ করে এই সুপারস্টার বলেন, সময় মতো বাড়ি ভাড়া দিতে না পারায় মা আমাকে এবং আমার বোনকে নিয়ে নানা বাড়ি চলে যান। কেননা সেই মুহূর্তে বাবার আয় এতোটাও ছিলো না যে, তিনি নতুন একটি বাড়ি কিনবেন। একটা সময় আমরা অন্য একটি বাড়ি ভাড়া নেই। যেখানে দেয়াল আর ছাদ ছাড়া আর কিছুই ছিলো না। আমরা মেঝেতে মাদুর বিছিয়ে ঘুমাতাম। পরে আস্তে আস্তে ঘরে ফার্নিচার কেনা শুরু হয়।

আপনার মতামত লিখুন :