নদী, মানুষ, প্রকৃতি নিয়ে নিমগ্ন গবেষক

ড. মাহফুজ পারভেজ, অ্যাসোসিয়েট এডিটর, বার্তা২৪.কম
ড. রূপকুমার বর্মন

ড. রূপকুমার বর্মন

  • Font increase
  • Font Decrease

 

'বিশ্ব নদী দিবস'-এর জন্য মোটেও অপেক্ষা করে বসে থাকেন না তিনি। নদী, মানুষ, প্রকৃতি নিয়ে নিমগ্ন গবেষণায় মিশে থাকেন সব সময়। ড. রূপকুমার বর্মন, পশ্চিমবঙ্গের কলকাতাস্থ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের চেয়ারম্যান এবং ড. আম্বেদকার সেন্টারের সমন্বয়ক।

করোনার কঠিন পরিস্থিতিতেও প্রকাশ পেয়েছে তার গবেষণা গ্রন্থ। শিরোনাম Caste, Class and Culture: The Malos, Adwaita Malla Barman and History of India and Bangladesh [New Delhi, Abhijeet Publications, 2020]

ড. রূপকুমারের বইয়ের মূল বিষয়ের মধ্যে রয়েছে: ১. ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, আসাম, ত্রিপুরা, মেঘালয় ও উত্তর-পূর্ব ভারতের অন্যান্য রাজ্য এবং বাংলাদেশের বসবাসকারী মালো (ঝালো-মালো) সম্প্রদায়ের ইতিহাস; ২. ভারত ও বাংলাদেশের জাতীয় ইতিহাসে মালোদের অবদান; ৩. নতুন আঙ্গিকে অদ্বৈত মল্লবর্মনের সাহিত্য এবং রাজনৈতিক ও সামাজিক ভাবনার বিশ্লেষণ। তিতাস তথা অদ্বৈত মল্লবর্মন-চর্চার ইতিহাসের উপর আলোকপাত; ৪. অদ্বৈত-পরবর্তী মালো সম্প্রদায়ের সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনের বিশ্লেষণ; ৫. বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের জন্য গোবিন্দ হালদার রচিত (এক সাগর রক্তের বিনিময়ে বাংলার স্বাধীনতা আনলো যারা ও অন্যান্য গান) গানের ইতিহাস ও বিশ্লেষণ; ৬. মালো সম্প্রদায়ের সংস্কৃতি চেতনার ধারাবাহিকতা; ৭. পশ্চিমবঙ্গের মৎস্যজীবী সমিতির “জাল যার জলা তার” আন্দোলনের ইতিহাস।

এর আগেও তিনি নদী, নদীভিত্তিক জীবন, সংগ্রাম ও সংস্কৃতি, নদীনির্ভর জনজাতির নানা দিক নিয়ে গবেষণা করেছেন। ধ্রুপদ সাহিত্যকে মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞানের নিরিখে বীক্ষণ করেছেন। তার অন্বেষণে 'তিস্তা বৃত্তান্ত' ও 'তিতাস একটি নদীর নাম' নবতর মূল্যায়নের আলোয় উদ্ভাসিত হয়েছে।

ড. রূপকুমারের জীবন ও বেড়ে ওঠার ধারাক্রমও নদীর মতো বৃহৎ বঙ্গদেশব্যাপী  বিস্তৃত। তার আদি শেকড়ের টান রয়েছে পূর্ববঙ্গে, অধুনা কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায়। যে জনপদ ছুঁয়ে পুরনো ব্রহ্মপুত্রের স্রোত অদূরেই মিশেছে প্রমত্তা মেঘনায়। পড়াশোনা করেছেন উত্তরবঙ্গের নদী, বৃক্ষ, প্রকৃতির মিলিত সুষমার অনিন্দ্য ভূগোলে। আর এখন কর্মসূত্রে কলকাতা স্থিত হলেও যার অভিমূল সমগ্র দক্ষিণ এশিয়া তথা বিশ্বমুখী।

ইতিহাসের গবেষণায় নদীমাতৃক এ জনপদের নদী ও তার অববাহিকার মানুষ, কৃষ্টি, সংগ্রামশীলতাকে নিরীক্ষণের যে কাজ করে চলেছে ড. রূপকুমার, তা শুধু গুরুত্বপূর্ণই নয়, জাতীয় ইতিহাসের অবিচ্ছেদ্য অংশ। তার গবেষণার পথে উন্মোচিত হয় অদেখা নদীজীবনের বহুমাত্রিক প্রপঞ্চ আর ইতিহাসের অকথিত উপাখ্যান।