ইটভাটার জীবন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা ২৪
নারী কিংবা পুরুষ কোনো ভেদাভেদ নেই। ছবি: বার্তা২৪

নারী কিংবা পুরুষ কোনো ভেদাভেদ নেই। ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

ইটভাটায় ভোর থেকেই শুরু হয় তাদের যুদ্ধ। শরীরের ঘাম ঝরিয়ে টাকা আয় করেন তারা। নারী কিংবা পুরুষ কোনো ভেদাভেদ নেই, ভাগাভাগি করে কাজ করে যান দিনের পর দিন। কাজ করেন বিরতিহীনভাবে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত।

রাজধানীর আশপাশের ৮০০ ইটখোলায় প্রায় এক লাখ শ্রমিক কাজ করেন। তাদের অধিকাংশ শ্রমের ন্যায্যমূল্য না পাওয়ায় মানবেতর জীবন যাপন করতে বাধ্য হচ্ছেন। সারা দিন ইট বানিয়ে কিংবা ইট টেনে একজন শ্রমিক যে টাকা পান তা দিয়ে খাবার জোগানোই কষ্ট তাদের।

বৃষ্টির পানিতে ইটভাটায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হলেও থেমে নেই তাদের জীবন সংগ্রাম। ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের কোন্ডা ইউনিয়নের মোল্লাবাজার এলাকার একটি ইটভাটা থেকে ছবিগুলো তোলা।

 

ঝুঁকি নিয়েও কাজ করেন তারা।

 

মাঝে মধ্যে সারা দিনই টানতে হয় ইট!

 

সারি সারি ইট দিয়ে ট্রলার পূর্ণ করে দিতে হয়।

 

সকাল থেকেই ইট টানায় ব্যস্ত শ্রমিকেরা

 

দল বেঁধে ইট টানায় ব্যস্ত নারীরা

 

শিশুরাও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় কখনো কখনো।

 

নারী-পুরুষে কোনো ভেদাভেদ নেই।

 

চোখে মুখে কোনো ক্লান্তি নেই।

 

জলাবদ্ধতাও হার মানে তাদের কাছে!

 

কখনো স্পষ্ট হয়ে উঠে কোনো অসহায় মুখ!