করোনার নীরব প্রকৃতিতে সৌন্দর্য ছড়াচ্ছে বুনো ফুল ল্যান্টানা

রাকিবুল ইসলাম রাকিব, উপজেলা করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, গৌরীপুর (ময়মনসিংহ)।
করোনার নিরব প্রকৃতিতে সৌন্দর্য ছড়াচ্ছে বুনো ফুল ল্যান্টানা

করোনার নিরব প্রকৃতিতে সৌন্দর্য ছড়াচ্ছে বুনো ফুল ল্যান্টানা

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাসের ভয়াল থাবায় বদলে গেছে জীবনধারা। ক্রান্তিকাল বেড়েছে, বেড়েছে মানুষের ঘরে থাকার প্রবণতাও। সেই সুযোগে প্রকৃতি যেন ছন্দে ফিরেছে। সবুজ ও সতেজতার পূর্ণতা নিয়ে আবির্ভূত হয়েছে সৌন্দর্যের নতুন রূপে।

প্রকৃতির সেই নতুন রূপের কিছুটা রেশ পড়েছে বুনোফুল ল্যান্টানার মাঝেও। নিরব, নির্জন ও কোলাহলমুক্ত মায়াময় পরিবেশে ফুটে উঠা ল্যান্টানা ফুল যেন মেলা বসিয়েছে চোখ চেপে ধরা সৌন্দর্যের।

প্রকৃতির সেই নতুন রূপের কিছুটা রেশ পড়েছে বুনোফুল ল্যান্টানার মাঝেও

সম্প্রতি ময়মনসিংহের বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট এলাকায় ল্যান্টানা ফুলের এই সৌন্দর্য ধরা পড়ে বার্তা২৪.কমের ক্যামেরায়।

স্থানীয়রা জানান, করোনার প্রভাবে ঘরের বাইরে মানুষের চলাচল সীমিত থাকায় আগাছা হিসাবে পরিচিত ল্যান্টানা ফুলের গাছগুলোতে কারো থাবা পড়েনি। তাই ল্যান্টানা ফুলগুলো যেন এবার একটু বেশি সৌন্দর্য নিয়ে ফুটে উঠেছে।

ল্যান্টানা ফুলগুলো যেন এবার একটু বেশি সৌন্দর্য নিয়ে ফুটে উঠেছে

ল্যান্টানা আমেরিকা অঞ্চলের ফুল। ফুলগাছটি কষ্ট সহিষ্ণু হওয়ায় দেশের বন-জঙ্গল, পাহাড়ি টিলা, রাস্তা-ঘাটে অপ্রতিরোধ্য ভাবে বেড়ে উঠে।

ল্যান্টানা ফুলে বুনো গন্ধ থাকলেও রূপের জুড়ি নেই। ফুলে রয়েছে কমলা, হলুদ, বেগুনি এবং সাদা রঙের মিশ্রণ। ফুলটির বৈশিষ্ট্য হলো সময়ের সাথে রং বদলানো। তাই নতুন ফুল ও পুরনো ফুলের মধ্যে রঙের ভিন্নতা দেখা যায়।

ল্যান্টানা ফুলে চোখ ধাঁধানো হলেও আমাদের দেশে এটি আগাছা হিসাবেই পরিচিত। এই গাছের পাতা গবাদি পশুর জন্য বিষাক্ত। মানুষেরও হাত দিয়ে স্পর্শ করা বিপজ্জনক। তবে প্রজাপতি বান্ধব গাছটির ভেষজ গুণ আছে।

ল্যান্টানা ফুলে বুনো গন্ধ থাকলেও রূপের জুড়ি নেই

সব ঋতুতেই ল্যান্টানা ফুল ফুটে। তবে বর্ষায় বেশি দেখা যায়। গাছের পাকা বা শুকনো ফল থেকে বীজ সংগ্রহ করে চারা উৎপাদন করা যায়।

ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের সদস্য এইচএম খায়রুল বাসার বলেন ল্যান্টানা ফুল কমবেশি সবসময় চোখে পড়ে। কিন্তু করোনাকালের ল্যান্টানা ফুল যেন একটু বেশি সৌন্দর্য নিয়ে ফুটেছে। ঝোপালো গাছে ফুলের রাজত্ব দেখে মনে হচ্ছে ওরা যেন দীর্ঘদিনের শৃঙ্খল থেকে মুক্তি পেয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :