ব্যাংককে ভালোবাসার ক্যানভাসে বঙ্গবন্ধু!



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ভালোবাসার ক্যানভাসে বঙ্গবন্ধু

ভালোবাসার ক্যানভাসে বঙ্গবন্ধু

  • Font increase
  • Font Decrease

লাল–সবুজের ক্যানভাস। মাঝখানে লাল রঙা হৃদয়। সেই হৃদয়ের মাঝে উজ্জ্বল আলোয় উদ্ভাসিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মুখচ্ছবি। থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংকক সিটির চাওপ্রায়া নদীর তীরবর্তী সুবিখ্যাত `দ্যা আর্ট অ্যান্ড এন্টিকস গ্যালারিতে এখন প্রদর্শিত হচ্ছে চিত্রশিল্পী রনি আহমেদের আঁকা বঙ্গবন্ধুর এই সাড়া জাগানো চিত্রকর্ম।

থাইল্যান্ডের শিল্পসংস্কৃতির প্রাণকেন্দ্র হিসেবে পরিচিত দ্যা আর্ট অ্যান্ড এন্টিকস গ্যালারিতে নিয়মিতই বিশ্বের খ্যাতিমান চিত্রশিল্পীদের প্রদর্শনী হয়। এই অভিজাত গ্যালারিতে বঙ্গবন্ধুর ব্যতিক্রমী চিত্রকর্মটি এখন প্রশংসা কুড়াচ্ছে থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের সর্বস্তরের মানুষের। তাঁরা চলার পথে থেমে গিয়ে দেখছেন রং-তুলির আঁচড়ে উদ্ভাসিত বিশ্ব নেতার মুখচ্ছবি । নানা রংয়ের মানুষের এই ভিড়ে আছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরাও। বিনম্র শ্রদ্ধায় তাঁরা দেখছেন জাতির পিতার ব্যতিক্রমী এই মুখচ্ছবি।

বঙ্গবন্ধুর ব্যতিক্রমী চিত্রকর্মটি এখন প্রশংসা কুড়াচ্ছে থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের সর্বস্তরের মানুষের

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বিদেশের মাটিতে জাতির পিতাকে তুলে ধরার এ উদ্যোগ নিয়েছেন মারমেইড ইকো ট্যুরিজম লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগ।

আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগ বলেন, 'বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। দলমতের ঊর্ধ্বে তাঁর অবস্থান। আমি ব্যক্তিগতভাবে তাঁকে আর্দশ মানি। আমাদের মহান নেতা ভালোবাসা দিয়ে সবকিছুকে জয় করতে চেয়েছিলেন। জাতির জনকের ভালোবাসার বার্তা আমরা বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে দিতে চাই।'
ব্যাংককের দ্যা আর্ট অ্যান্ড এন্টিকস গ্যালারিতে বঙ্গবন্ধুর চিত্রকর্ম প্রদর্শনীতে আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগের এই উদ্যোগে সহযোগিতা করেছেন মারমেইড ইকো ট্যুরিজম লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) রাদ হোসেন।