সেই ফ্লিনকে ক্ষমা করে দিয়েছেন ট্রাম্প



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিনকে ক্ষমা করে দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যিনি ২০১৬ সালে মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের তদন্তে এফবিআইকে মিথ্যা তথ্য দেওয়ার অভিযোগে ২০১৭ সালে দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন ৷

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, ফ্লিনকে ক্ষমা করা তার কাছে অনেক সম্মানের।

মাইকেল ফ্লিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক সহযোগী ছিলেন। যিনি ২০১৬ সালে মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার কথিত হস্তক্ষেপের অভিযোগে বিচার বিভাগের তদন্তকালে দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন।

তিনি ২০১৭ সালে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতের সাথে যোগাযোগের বিষয়ে এফবিআইয়ের কাছে মিথ্যা বলার কথা বলে স্বীকার করেছিলেন, তারপরে তার আবেদনটি প্রত্যাহারের চেষ্টা করেছিলেন।

বুধবার (২৫ নভেম্বর) হোয়াইট হাউস জানিয়েছে ক্ষমাটি অবশেষে একজন নিরপরাধ ব্যক্তির নিরলস, পক্ষপাতমূলক অনুসরণ শেষ করবে।

এক বিবৃতিতে ফ্লিনকে ২০১৬ সালের নির্বাচনকে নষ্ট করার একটি সমন্বিত প্রচেষ্টায় নিযুক্ত পক্ষপাতী সরকারি কর্মকর্তাদের শিকার হিসাবে বর্ণনা করা হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ক্ষমার প্রতিক্রিয়ায় মাইকেল ফ্লিন টুইটারে মার্কিন পতাকার ইমোজি এবং বাইবেলের শ্লোক যিরমিয় ১.১৯ পদযুক্ত একটি টুইট পোস্ট করেছেন।

যেখানে বলা হয়েছে, তারা তোমার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করবে কিন্তু তোমাকে পরাস্ত করতে পারবে না, কারণ আমি তোমার সাথে আছি এবং তোমাকে উদ্ধার করব।

২০১৯ সালে ২২ মাসের বিচার বিভাগের তদন্তে সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছিল যে ট্রাম্প বা তার সহযোগীদের কেউই ২০১৬ সালের নির্বাচনে জয়ের জন্য ক্রেমলিনের সাথে ষড়যন্ত্র করেছিলেন তার কোনও প্রমাণ নেই।