ক্ষমা চাওয়ার প্রস্তাব ‘নাকচ’ করে কঠোর প্রতিক্রিয়া চীনের



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আফগানিস্তানে অস্ট্রেলিয়ার সেনা এক আফগান শিশুকে হত্যা করছে এমন এক বিতর্কিত ছবি প্রকাশ করাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত চীন-অস্ট্রেলিয়ার সম্পর্ক। ওই ছবিকে বিতর্কিত, ভুয়া আখ্যা দিয়ে বেইজিংকে ক্ষমা চাইতে বলেছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন।

তবে অস্ট্রেলিযার এমন প্রস্তাবকে ‘নাকচ’ করে কঠোর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে চীন। চীন জানিয়েছে, সেনাদের নৃশংস কর্মকাণ্ড থেকে মানুষের দৃষ্টি অন্যদিকে নেওয়ার চেষ্টা করছে অস্ট্রেলিয়া। সেই সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া "দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের অবনতি’র জন্য চীনকে দোষী করার চেষ্টা করছে। মঙ্গলবার (০১ ডিসেম্বর) দূতাবাসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে এমনটাই দাবি করে বেইজিং।

সম্প্রতি চীন-অস্ট্রেলিযার মধ্যে সম্পর্ক একবারেই তলানীতে গিয়ে ঠেকেছে। সোমবার (৩০ নভেম্বর) চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লিজিয়ান ঝাও তাঁর অফিশিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে একটি ছবি পোস্ট করেন। ছবিতে দেখা যায়, অস্ট্রেলিয়ান ওই সেনা এক আফগান শিশুর গলায় রক্তমাখা ছুরি ধরা। এরপরই একে ভুয়া ছবি অ্যাখা দিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে অস্ট্রেলিয়া। এ ঘটনাকে ‘অপমানজনক’ বলেন মরিসন। এর জন্য চীনকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান।

বিবৃতিতে চীন আরও জানায়, আমাদের পরামর্শ হবে, আফগানিস্তানে অস্ট্রেলিয়ার সেনারা যে অপরাধ করেছেন, দেশটির বিচারের মুখোমুখি হওয়া উচিত। অপরাধীদের জবাবদিহি করার পাশাপাশি ভুক্তভোগীদের ন্যায়বিচার পাওয়া নিশ্চিত করতে হবে।

দুই দেশের এমন তিক্ত সম্পর্কে এক টুইট বার্তায় গভীর উদ্বেগ জানিয়েছে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন। চীনের পক্ষ থেকে এমন ছবি প্রকাশ করায় হতাশা ব্যক্ত করেন।

এদিকে এক প্রতিবেদনে অস্ট্রেলিয়ান প্রতিরক্ষা বাহিনী জানায়, তারা নির্ভরযোগ্য পেয়েছে ২০০৯ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত ৩৯ জন আফগান বেসামরিক নাগরিক এবং বন্দী হত্যার সাথে ২৫ জন অস্ট্রেলিয়ান সেনা জড়িত ছিল।