করোনার চিকিৎসায় নতুন ওষুধ আবিষ্কার যুক্তরাজ্যের



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় নতুন ওষুধ আবিষ্কারের দাবি করেছে যুক্তরাজ্য। বলা হয়েছে, নতুন এই ওষুধ করোনা রোগীদের গুরুতর অসুস্থ হওয়া বা মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচাতে সাহায্য করবে। তাই দেশটি করোনা রোধে বৃহৎ আকারে এই ওষুধ প্রয়োগ করবে।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) বিকেলে দেশটির হুল রয়্যাল ইনফার্মারিতে নতুন এই ওষুধ প্রথম কোন রোগীর ওপর প্রয়োগ করা হয় । নতুন এই ওষুধের মধ্যে ইন্টারফেরন বিটা নামের একটি প্রোটিন রয়েছে যা শ্বাসের মাধ্যমে গ্রহণ করা হয়। যখন ভাইরাস সংক্রমণ হয় তখন এই ওষুধের ফলে ইন্টারফেরন বিটা উৎপাদন হয় শরীরে। যার ফলে করোনায় আক্রান্ত রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা দূর হয়।

আশা করা হচ্ছে, এই ওষুধ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করবে, প্রাইমিং কোষগুলি ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে তৈরি থাকবে।

প্রাথমিক অনুসন্ধানে বলা হয়েছে, এই চিকিৎসার ফলে হাসপাতালে গুরুতর অসুস্থ কোভিড-১৯ রোগীর অস্বস্তি কেটে যাবে। যেমন, শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা প্রায় ৮০ শতাংশ কমে যাবে।

এই ওষুধ সাউদাম্পটন বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালে তৈরি করা হয়েছে এবং এটি উৎপাদন করছে সাউদাম্পটন ভিত্তিক বায়োটেক সংস্থা সিনায়ারজেন নামে একটি কোম্পানি।

নতুন এই চিকিৎসায় ব্যয় হবে প্রায় ২ হাজার ডলার। যা করোনার চিকিৎসার জন্য খুব বেশি ব্যয়বহুল নয়।

সোমবার (১১ জানুয়ারি) করোনাভাইরাস নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) বিকেলে ৩৪ বছর বয়সী আলেকজান্দ্রা কনস্টান্টিনকে নতুন এই ওষুধ দেওয়া হয়।

আলেকজান্দ্রা তার প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর নার্স তাকে একটি নেবুলাইজার দেয় তা দিয়ে শ্বাস নেওয়ার পর তিনি এখন আগের চেয়ে ভালো অনুভব করছেন।