বাউডেন-হ্যারিসকে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের অভিনন্দন



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বিশ্ব নেতৃবৃন্দ।

বুধবার (২০ জানুয়ারি) সকালে শপথ নিয়েছেন জো বাইডেন ও কমলা হ্যারিস।

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদ মাধ্যম সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, শপথ নেওয়ার পরপরই তাদেরকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেছেন বিভিন্ন দেশ, সংস্থা ও জোটের প্রধানরা।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাইডেন শপথ নেওয়ার কয়েক মিনিট পরেই টুইট করে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের জন্য জো বাইডেনকে আমার আন্তরিক অভিনন্দন। ভারত-যুক্তরাষ্ট্র কৌশলগত অংশীদারিত্ব জোরদারে তার সঙ্গে কাজ করতে মুখিয়ে রয়েছি।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন টুইটারে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথগ্রহণের জন্য জো বাইডেন এবং কমলা হ্যারিসকে তার ঐতিহাসিক অভিষেকের জন্য অভিনন্দন। জলবায়ু পরিবর্তন থেকে শুরু করে কোভিড পর্যন্ত যেসব বিষয় আমাদের সবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ, সেসব ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্ব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমি প্রেসিডেন্ট বাইডেনের সঙ্গে কাজ করার অপেক্ষায় রয়েছি।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু ভিডিওবার্তা পোস্ট করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্টকে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও টুইটারে বলেছেন, প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে অভিষেকের জন্য অভিনন্দন জানাই। বাণিজ্যিক-অর্থনৈতিক চুক্তি, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে লড়াই, জনস্বাস্থ্যের উন্নতি, দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে আঞ্চলিক এবং এর বাইরে উন্নয়নের জন্য একটি শক্তিশালী পাক-মার্কিন অংশীদারিত্ব গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করার অপেক্ষায় থাকলাম।

স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ বলেন, আজকের দিনটা চমৎকার। জো বাইডেন ও কমলা হ্যারিসের প্রশাসন যাত্রা শুরু করল। আমরা গণতন্ত্র এবং আরও ন্যায্য, টেকসই ও সর্বাত্মক বিশ্বব্যাপী শাসন ব্যবস্থার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কাজ করব।

এছাড়াও বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিয়েন, জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা, ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমান্যুয়েল ম্যাক্রোঁ, মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ, চিলির প্রেসিডেন্ট সেবাস্তিয়ান পিনেরা, ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস, পোপ ফ্রান্সিস প্রমুখ।