করোনার নতুন ধরনে মৃত্যুর হার বাড়তে পারে!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যুক্তরাজ্যে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের নতুন ধরনের সংক্রমণে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ও মৃত্যুর হার আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তবে তিনি দেশটিতে প্রয়োগ করা ভ্যাকসিনগুলো নতুন ধরনের সংক্রমণের বিরুদ্ধে কাজ করবে বলে আশা করেছেন। খবর বিবিসি।

মহামারি বিশেষজ্ঞ ও পরিসংখ্যানবিদরা ভাইরাসটির নতুন ও পুরাতন সংস্করণে সংক্রামিত ব্যক্তিদের মধ্যে মৃত্যুর হারের তুলনা করে দেখেছেন নতুন ধরনের সংক্রমণে মৃত্যুর হার বেড়েছে। শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা এ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

করোনাভাইরাসের পরিবর্তিত রূপটি (স্ট্রেইন) ইতিমধ্যে যুক্তরাজ্য জুড়ে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে।

ডাউনিং স্ট্রিটে এক ব্রিফিংয়ে বরিস জনসন আরও জানিয়েছেন, করোনার নতুন ধরনটি আরও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার পাশাপাশি, এখন এটি আরও প্রমাণিত হয়েছে যে নতুন রূপটি লন্ডন এবং দক্ষিণ পূর্বে প্রথম চিহ্নিত হওয়া বৈকল্পিক- উচ্চতর সংক্রমণের সাথে যুক্ত হতে পারে মৃত্যুও।

নতুন এই রূপটির প্রভাব যার অর্থ ব্রিটেনের শীর্ষ স্থানীয় ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস (এনএইচএস) ডাক্তারদের চাপের মধ্যে ফেলবে।

ইংল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য বিভাগ, ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডন, লন্ডন স্কুল অফ হাইজিন অ্যান্ড ট্রপিকাল মেডিসিন এবং ইউনিভার্সিটি অব এক্সেটর প্রত্যেকে নতুন রূপটি কতটা মারাত্মক তা নির্ধারণ করার চেষ্টা করছে।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, করোনার পুরাতন রূপটির সংক্রমণে ১০০০ জনের মধ্যে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে নতুন ধরনে ১০০০ জনের মধ্যে প্রায় ১৩ থেকে ১৪ জনের মৃত্যু হচ্ছে। বেড়েছে ৩০-৪০ শতাংশ মৃত্যু।

যুক্তরাজ্য সরকারের প্রধান বৈজ্ঞানিক উপদেষ্টা স্যার প্যাট্রিক ভ্যালান্স বলেছেন, এ পর্যন্ত করোনার নতুন ধরনের তথ্যগুলো শক্তিশালী না।

তিনি বলেছেন, করোনার নতুন ধরনের তথ্য নিয়ে আমাদের আরও কাজ করা দরকার, তবে স্পষ্টতই এটি উদ্বেগজনক বিষয় যে এটির সংক্রমণ ও মৃত্যুহার বৃদ্ধি পেয়েছে।