ইরাকে পোপ, সহিংসতা ও উগ্রবাদ পরিহারের আহ্বান



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ইরাকে পোপ, সহিংসতা ও উগ্রবাদ পরিহারের আহ্বান

ইরাকে পোপ, সহিংসতা ও উগ্রবাদ পরিহারের আহ্বান

  • Font increase
  • Font Decrease

ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস ইরাক সফরে গেছেন। প্রথমবারের মতো  ইরাক সফর করা পোপ সহিংসতা ও উগ্রবাদ পরিহারের আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি শুক্রবার (৫ মার্চ) অল ইটালিয়ার একটি উড়োজাহাজে বাগদাদ পৌঁছান।

বিমানবন্দরে অবতরণের পর তাকে লাল গালিচা সংবর্ধনার পাশাপাশি রাষ্ট্রীয় অভ্যর্থনা জানানো হয়। তাকে স্বাগত জানান ইরাকি প্রধানমন্ত্রী মুস্তাফা আল কাদহিমি। পরে মোটর শোভাযাত্রার মাধ্যমে প্রেসিডেন্টের বাসভবনে যান পোপ।

করোনা মহামারি শুরুর পর ৮৪ বছর বয়সী পোপ ফ্রান্সিসের এটা প্রথম আন্তর্জাতিক সফর। ক্যাথোলিক নেতা পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে দেশটির শিয়া মুসলমানদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা গ্র্যান্ড আয়াতুল্লাহ আলী সিসতানি বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

পোপ ইরাকের ক্রমহ্রাসমান খ্রিস্টান সম্প্রদায়কে অধিকার, স্বাধীনতা ও দায়িত্বশীল নাগরিক হিসাবে আরও বেশি ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি আশা করেন, ইরাকের সর্বাধিক শ্রদ্ধেয় শিয়া মুসলিম আলেমের সাথে সাক্ষাৎ এবং আন্তঃধর্মীয় সংলাপ উগ্রপন্থা, সংঘাত ও অসহিষ্ণুতার অবসান ঘটাবে।  ইরাকের উত্তরের ইরবিলের স্টেডিয়ামে একটি গণ উদযাপন অনুষ্ঠিত হবে।

২০১৩ সালে পোপ হিসেবে অভিষিক্ত হওয়ার পর এটিই তার সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ সফর। এ সফরকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয় গোটা বাগদাদ।

সূত্র: বিবিসি