লন্ডনের মিয়ানমার দূতাবাস দখলে নিল সামরিক অ্যাটাশে



মহিউদ্দিন আহামেদ, কন্ট্রিবিউটিং এডিটর, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নজিরবিহীনভাবে কোন শিষ্টাচারের তোয়াক্কা না করে লন্ডনের মিয়ানমার দূতাবাস দখল করে নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে মিয়ানমার জান্তা সরকারের সামরিক অ্যাটাশে। নিজের অধস্তন সামরিক অ্যাটাশে কর্তৃক রাতের বেলায় দূতাবাস ছাড়তে বাধ্য হয়ে এটাকে আরেকটি ‘অভ্যুত্থান’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন রাষ্ট্রদূত কিউ জাওয়ার মিন। খবর বিবিসি।

মিয়ানমারে সামরিক জান্তা ক্ষমতা অধিগ্রহনের পর থেকেই নানাভাবে তার বিরোধীতা করে আসছিলেন যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিউ জাওয়ার মিন। তিনি জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে সংহতি প্রকাশ করে মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী সুচিকে মুক্তির দাবিও জানিয়েছিলেন।

গতকাল বুধবার দূতাবাসের সামনে জান্তা বিরোধী এক বিক্ষোভেও অংশ নেন কিউ। দূতাবাসের সামনে জড়ো হওয়া বিক্ষোভকারীদের সাথে সংহতি প্রকাশ করে তিনি যখন দূতাবাসের ভিতরে ঢুকতে যান তখনই আটকে দেয়া হয় তাকে। রাষ্ট্রদূত কিউ কে জানিয়ে দেয়া হয় তিনি আর লন্ডনে মিয়ানমারের প্রতিনিধিত্ব করছেন না। তাই দূতাবাসে তার আর ঢোকার কোন প্রয়োজন নেই। এর পরপরই দূতাবাসের পুরো দখল নিয়ে নেয় সামরিক অ্যাটাশে।

বার্তা সংস্থা এএফপির কাছে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করতে গিয়ে কিউ বলেন, আমি গতকাল গাড়িতে পুরো রাত কাটিয়েছি। দূতাবাসের ভিতরে আমাদের যেসব লোকজন আছে তাদেরকেও দূতাবাস থেকে বের হতে দেয়া হচ্ছে না। তাদের মধ্যে শিশুও রয়েছে। এ বিষয়ে তিনি ব্রিটিশ সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।