করোনার বেপরোয়া সংক্রমণে ত্রস্ত ভারত



মায়াবতী মৃন্ময়ী,  কন্ট্রিবিউটিং করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ভারতের করোনা পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যেতে পারে। সংগৃহীত

ভারতের করোনা পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যেতে পারে। সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনার সর্বাত্মক, লাগামছাড়া, বেপরোয়া সংক্রমণে ত্রস্ত সমগ্র ভারত। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে। এমনকি, চলমান আগ্রাসী পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যর্থ হলে আগামী জুন মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে ভারতে করোনায় প্রতিদিন ২ হাজার ৩২০ জনের মৃত্যুও হতে পারে।

করোনার চলতি প্রলয়ঙ্করী সংক্ষমণ-প্রবাহ বা  ওয়েভ তাণ্ডবের লাগামছাড়া ও বেপরোয়া গতিতে দ্রুতলয়ে বাড়ছে মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা। পাশাপাশি ভারত জুড়ে বইছে আতঙ্কের ত্রস্ত পরিস্থিতি। ভারতের একাধিক রাজ্যে করোনার সংক্রমণ বিপজ্জনক আকার নিয়েছে। সংক্রমণে লাগাম টানতে বেশ কয়েকটি রাজ্যে ফের শুরু হয়েছে লকডাউন এবং নাইট কারফিউ। কোভিড প্রোটোকল মেনে চলার ব্যাপারে আরও বেশি জোর দেওয়া হচ্ছে দেশজুড়ে। তথাপি বেসামাল গোটা ভারত।

প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী, মহারাষ্ট্র, দিল্লি, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, ছত্তীশগড়, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান, পশ্চিমবঙ্গ-সহ একাধিক রাজ্যে করোনার বেড়ে চলায় উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠাও বৃদ্ধি পেয়েছে। সংক্রমণ থেকে বাঁচতে করোনাবিধি মেনে চলার ব্যাপারেই আরও বেশি সচেষ্ট থাকতে বলছেন বিশেষজ্ঞরা। বেড়ে চলা সংক্রমণ নিয়ে ঘোর উদ্বেগে স্বাস্থ্য দপ্তর। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দিন কয়েক আগেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক সেরেছেন। তবে, করোনার সংক্রমণ বাড়লেও অর্থনৈতিক পরিস্থিতির কথা মাথা রেখেই গোটা ভারতে এখনই লকডাউন ঘোষণা করা হবে না বলে স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন।

তবে এবার চাঞ্চল্যকর একটি রিপোর্ট পেশ করেছে Lancet Covid-19 Commission, যাতে গত কয়েকদিন ধরেই ভারতে লাগামছাড়া সংক্রমণের তথ্য-পরিসংখ্যান পাওয়া গেছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতে নতুন করে ২ লক্ষ ১৭ হাজারের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) সকালে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেশে ফের করোনায় কাবু হয়েছেন ২ লক্ষ ১৭ হাজার ৩৫৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১১৮৫ জনের এবং এর মাধ্যমে করোনার দৈনিক সংক্রমণ ২ লক্ষের গণ্ডি ছাড়িয়ে গিয়েছিল।

Lancet Covid-19 Commission-এর তরফে টাস্ক ফোর্সের এক সদস্য জানিয়েছেন, করোনার চলতি ঢেউয়ে ভারতে এবার ১ হাজার ৭৫০ জনের প্রতিদিন মৃত্যু হতে পারে। সংখ্যাটা বাড়তে-বাড়তে জুনের প্রথম সপ্তাহে ২৩২০ জনের কাছাকাছি পৌঁছতে পারে। চাঞ্চল্যকর এই রিপোর্ট জমার পাশাপাশি করোনা রুখতে এখনই কেন্দ্রীয় সরকারকে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এখনই করোনায় লাগাম টানতে উপযুক্ত ব্যবস্থা না নিলে অচিরেই সমগ্র ভারতের গোটা পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যেতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে এই রিপোর্টে।

উল্লেখ্য, ব্রাজিলকে পিছনে ফেলে ভারত এখন সারা বিশ্বে দ্বিতীয় শীর্ষ করোনা আক্রান্ত দেশ। ক্ষয়-ক্ষতির নিরিখে প্রথম শীর্ষ দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরেই অবস্থান নিয়েছে চরম করোনা আক্রান্ত ভারত।