ভারতে করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতি, মোদির জরুরি বৈঠক



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বর্তমানে বিশ্বের দ্বিতীয় কোভিড -১৯ আক্রান্ত দেশ ভারত, কেবল যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে পিছিয়ে রয়েছে দেশটি। এমন পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সভাপতিত্বে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে সহ কয়েকটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে ওই রাজ্যগুলির কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি বৈঠক করেছেন।

এদিকে শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) সকালে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত সর্বশেষ তথ্যে দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাস (কোভিড -১৯) নতুন করে ৩ লাখ ৩২ হাজার ৭৩০ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন এবং ২ হাজার ২৬৩ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে।

এ সময় সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৯৩ হাজার ২৭৯ জন। দেশটিতে মোট সংক্রমণের পরিমাণ ১ কোটি ৬২ লাখ ৬৩ হাজার ৬৯৫ জন এবং মোট মৃত্যুর সংখ্যা ১ লাখ ৮৬ হাজার ৯২০। এখন পর্যন্ত দেশটিতে সুস্থ হয়েছে ১ কোটি ৩৬ লাখ ৪৮ হাজার ১৫৯ জন রোগী এবং ২৪ লাখ ২৮ হাজার ৬১৬ জন রোগী চিকিৎসাধীন আছে ।

এদিকে অক্সিজেন বিতরণকে ত্বরান্বিত করার জন্য ভারতীয় বিমানবাহিনী তাদের ব্যবহারের জায়গা থেকে সারা দেশে ফিলিং স্টেশনগুলিতে বড় বড় অক্সিজেন ট্যাঙ্কার পরিবহন শুরু করেছে।

এর আগে গত কাল  বৃহস্পতিবার ( ২২ এপ্রিল) দেশটিতে করোনাভাইরাসে ৩ লাখ ১৪ হাজার ৮৩৫ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন এবং ২ হাজার ১০৪ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে।

এর আগের দিন বুধবার ( ২১ এপ্রিল) দেশটিতে করোনাভাইরাসে ২ লাখ ৯৫ হাজার ৪১ জন রোগী শনাক্ত হয়েছিলো এবং এ সময় মারা গিয়েছিলো ২ হাজার ২৩ জন। 

এদিকে মঙ্গলবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণে বলেন, 'ঝড়ের মতো করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে। আপনারা যে পীড়া সহ্য করছেন, তা আমি জানি। যারা আপনজনদের হারিয়েছেন তাদের প্রতি আমার সমবেদনা রইল। এই চ্যালেঞ্জ খুব বড়। কিন্তু আমাদের সবাইকে মিলে এই বিপদ মোকাবিলা করতে হবে।'

এ সময় তিনি রাজ্য সরকারগুলিকে কেবলমাত্র শেষ উপায় হিসাবে সম্পূর্ণ শট ডাউন বিবেচনা করতে বলেছে সাথে বলেছেন "আমাদের মাইক্রো কন্টেন্টমেন্ট জোনগুলিতে মনোনিবেশ করতে হবে এবং লকডাউন এড়াতে আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করতে হবে।"